• শুক্রবার   ১৯ আগস্ট ২০২২ ||

  • ভাদ্র ৩ ১৪২৯

  • || ২০ মুহররম ১৪৪৪

Find us in facebook
সর্বশেষ:
আমাদের বিচার চাইতেও বাধা দেওয়া হয়েছে: প্রধানমন্ত্রী ত্রিভুজ প্রেমের কারণে জীবন দিতে হলো সানজিদাকে: পুলিশ জামানতবিহীন গুচ্ছভিত্তিক ঋণ দেওয়ার নির্দেশ একদিনে ৮ কোটি ডলার বিক্রি করল বাংলাদেশ ব্যাংক কমতে পারে জ্বালানি তেলের দাম

প্রাতঃভ্রমণের পর কী খাবেন

– দৈনিক রংপুর নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ১২ জুন ২০২২  

Find us in facebook

Find us in facebook

স্বাস্থ্যকে যারা সম্পদ মনে করেন, তারা ব্যস্ততার মধ্যেও শরীরচর্চা করে থাকেন। অহেতেুক অজুহাতকে পাত্তা না দিয়ে নিয়মিত প্রাতঃভ্রমণে যান। সুস্থ থাকতে কেউ দৌড়ান, কেউবা হাঁটেন। কিন্তু সকালে ঘাম ঝরানোর পর বাড়ি ফিরে যদি উপযুক্ত খাবার না খান, তাহলে কিন্তু শরীর কর্মক্ষমতা ফিরে পাবে না। প্রাতঃভ্রমণের পর কী খাবেন জেনে নিন।
 
কলা: প্রাতঃভ্রমণের পর কোনো ধরনের ভারী খাবার না খাওয়াই ভালো। কলা খেতে পারেন। কলাতে আছে প্রচুর পরিমাণ খনিজ পদার্থ ও শর্করা। ঘামের মধ্য দিয়ে শরীর থেকে বেরিয়ে যাওয়া খনিজ লবণের ঘাটতি পূরণ করতে কলা।

তরমুজ: গরমে তরমুজ খেতে এমনিতেই সবার ভালো লাগে। তরমুজে আছে সাইট্রুলিন ও লাইকোপিন নামক দুটি উপাদান। এই সাইট্রুলিন নাইট্রিক অক্সাইড উৎপাদন করে, আর লাইকোপিন শরীরকে ক্লান্তি থেকে রক্ষা করে। 

অমলেট: ডিমে থাকে প্রচুর পরিমাণ প্রোটিন, ভিটামিন ও স্বাস্থ্যকর ফ্যাট। নামমাত্র তেলে তৈরি অমলেট খেলে হেঁটে আসার পর খিদে যেমন মিটবে, তেমনই মিলবে জরুরি পুষ্টিও। ইচ্ছে করলে অমলেটে দিয়ে দিতে পারেন বিভিন্ন ধরনের শাকসবজিও। এতে পুষ্টিগুণের মাত্রা বাড়বে।

প্রোটিন শরবত: শরীরচর্চার পর দেহে প্রোটিনের মাত্রা বজায় রাখতে প্রোটিন শেক পান করে নিতে পারেন। এতে আপনার শরীরের কর্মক্ষমতা ফিরে আসবে। স্বাভাবিকভাবেই ব্যায়ামের পর শরীর ক্লান্ত হয়ে যায়। আধা ঘণ্টা পর হালকা খাবার খেতে পারেন যেমন ফল কিংবা ফলের রস।

মুরগির মাংস: তেল ও মসলা ছাড়া অল্প গোলমরিচ দিয়ে সেদ্ধ করা মুরগির মাংস অত্যন্ত উপযোগী হতে পারে প্রাতঃভ্রমণের পর। পেশি সুগঠিত করতে সেদ্ধ করা মুরগির মাংস ও স্টু খুবই কার্যকরী হতে পারে। 

ব্যায়ামের পর পর গোসল করবেন না। কিছুক্ষণ বিশ্রামের পর গোসল করা উচিত। তবে ফ্যানের নিচে বা এসিতে ঘাম না শুকিয়ে স্বাভাবিক তাপমাত্রায় থেকে ঘাম শুকাতে হবে, নইলে ঠান্ডা লেগে যেতে পারে। আর মনে রাখবেন সব খাবার সবার সহ্য নাও হতে পারে। বিশেষ করে অনেকেই শারীরিক বিভিন্ন সমস্যার জন্য সকালে হাঁটেন। তারা কী খাবেন, তা জেনে নিতে হবে চিকিৎসকদের থেকেই।

Place your advertisement here
Place your advertisement here