ব্রেকিং:
পাঁচ বিভাগে পাঁচ বার্ন ইউনিট স্থাপনসহ প্রায় ৭ হাজার ৪৪৭ কোটি ৭ লাখ টাকা ব্যয় সম্বলিত ১০ প্রকল্প একনেকে অনুমোদন
  • বুধবার   ০৮ ডিসেম্বর ২০২১ ||

  • অগ্রাহায়ণ ২৩ ১৪২৮

  • || ০২ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৩

Find us in facebook
সর্বশেষ:
ভারতের সঙ্গে বন্ধুত্বের বন্ধন এখন আরো শক্তিশালী: প্রধানমন্ত্রী বাল্যবিয়ে মুক্ত হলো কুড়িগ্রামের রাজারহাট এক কোটি ৬০ লাখ টাকা মূল্যের সাপের বিষ উদ্ধার ধান-চালের বাজার তদারকি জোরদারের নির্দেশ বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক ইউনিট পাচ্ছে ৫ মেডিকেল হাসপাতাল

শিক্ষা ব্যবস্থা ডিজিটাল রূপান্তরের বিকল্প নেই: টেলিযোগাযোগমন্ত্রী

– দৈনিক রংপুর নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ১৯ নভেম্বর ২০২১  

Find us in facebook

Find us in facebook

ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেছেন, বাংলাদেশের জন্য সম্পূর্ণ ডিজিটাল শিক্ষা নিশ্চিত করার বিষয়টি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। গোটা শিক্ষা ব্যবস্থা ডিজিটাল রূপান্তর করার বিকল্প কিছু নেই।

গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে অনলাইনে এটুআই’র ব্যবস্থাপনায় ‘ইনক্লুসিভ একসেস ফর ব্লেন্ডেড অ্যাডুকেশন ইন বাংলাদেশ’ শীর্ষক প্যানেল আলোচনা অনুষ্ঠানে বক্তৃতাকালে এসব কথা বলেন তিনি। শিক্ষা মন্ত্রণালয়, ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগ, আইসিটি বিভাগ, মেটা (ফেসবুক) এবং আইটিইউ এর আয়োজন করে।

মোস্তাফা জব্বার বলেন, শিক্ষা ব্যবস্থা ডিজিটাল রূপান্তরের ক্ষেত্রে প্রধান তিনটি চ্যালেঞ্জ হচ্ছে- ডিজিটাল কনটেন্ট তৈরি, ডিজিটাল সংযুক্তি এবং ডিজিটাল ডিভাইসের সহজলভ্যতা। আমাদের মতো দেশের জন্য সবগুলো চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করে এক ধাপে শিক্ষার ডিজিটাল রূপান্তর করাটা কঠিন বলে আমরা এখন ব্লেন্ডেড শিক্ষার পথ ধরে হাঁটছি।

শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক, মেটা’র গ্লোবাল হেড অব কানেক্টিভিটি অ্যান্ড একসেস পলিসি মনিকা দেশাই ও আইটিইউ’র স্পেশাল ইনিশিয়েটিভ গিগা চিফ এলেক্স অং প্যানেলিস্ট হিসেবে অনলাইনে আলোচনায় অংশ নেন।

আইসিটি বিভাগের সিনিয়র সচিব এন এম জিয়াউল আলম এ অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন।

অনুষ্ঠানে শিক্ষামন্ত্রী দৃঢ়তার সঙ্গে বলেন, বর্তমান সরকার শিক্ষা ব্যবস্থাকে ডিজিটাল রূপান্তরের জন্য প্রতিজ্ঞাবদ্ধ। তিনি মেটা ও আইটিইউকে এ বিষয়ে সহায়তা করার আহ্বান জানান।

আইসিটি প্রতিমন্ত্রী বলেন, দেশে ডিজিটাল সংযুক্তির বিস্তার ঘটেছে। তিনি ফেসবুক কর্তৃপক্ষকে কেবল টেক্সট ব্রাউজিং ফ্রি না করে ইন্টার-এ্যাকটিভ মাল্টিমিডিয়া কনটেন্টও ফ্রি করার আহ্বান জানান।

অনুষ্ঠানে প্যানেলিস্টরা স্ব-স্ব প্রতিষ্ঠান ও সংস্থার বিষয়-ভিত্তিক অগ্রগতি ও নীতিগত বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনা করেন।

Place your advertisement here
Place your advertisement here