• বুধবার   ০১ ডিসেম্বর ২০২১ ||

  • অগ্রাহায়ণ ১৬ ১৪২৮

  • || ২৪ রবিউস সানি ১৪৪৩

Find us in facebook
সর্বশেষ:
খালেদাকে বিদেশে যেতে আইনি প্রক্রিয়া মানতে হবে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী ক্ষুদ্র উদ্যোক্তা ও কর্মসংস্থানে ১৫ কোটি ডলার ঋণ দিচ্ছে এডিবি মূল্যায়ন ও অগ্রগতিতে প্রথম গম ও ভুট্টা গবেষণা ইনস্টিটিউট এনবিআর উন্নয়ন কর্মসূচি বাস্তবায়নে নিরলস কাজ করছে: প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশের সম্ভাবনাময় খাতে বিনিয়োগ করবে তুরস্ক

সৈয়দপুরে চকলেট খেয়ে ৯ শিক্ষার্থী হাসপাতালে

– দৈনিক রংপুর নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ২৪ অক্টোবর ২০২১  

Find us in facebook

Find us in facebook

ভেজাল ও নিম্নমানের খাবার খেয়ে নীলফামারীর সৈয়দপুর শহরের কুন্দল এলাকার একটি মাদ্রাসার নয় শিশু অসুস্থ হয়ে পড়েছে। এসব শিক্ষার্থীদের শনিবার (২৩ অক্টোবর) দিবাগত রাত সোয়া ১০টা থেকে রাত সাড়ে ১২টা পর্যন্ত সময়ের মধ্যে সৈয়দপুর ১০০ শয্যা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

চিকিৎসাধীন শিশুরা হলেন, শহরের কুন্তল এলাকার পূর্ব পাড়ার আলিফ (৭), সাফি (৬), সামিয়া (৮), মৌমিতা (১০), আয়ান (৭), নিমু (৮), ইসমাইল (৭), আফসান (৯) ও রুহি (৬)।

এ বিষয়ে ওই শিশুদের অভিভাবকেরা জানান, কুন্দল পূর্ব পাড়া ফোরকানিয়া মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষ শনিবার সকালে অধ্যয়নরত প্রায় ৬০ থেকে ৭০ জন শিশুকে এক প্যাকেট করে নিম্ন মানের চকলেট বিতরণ করে। শিশুরা দুপুরে বাড়িতে এসে অনেকে এসব চকলেট খায়। সন্ধ্যার দিকে শিশুদের বমি ও ডায়রিয়া দেখা দিলে হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়।

হাসপাতালে ফজলুর রহমান ও নাসরিন নামে দুজন অভিভাবক জানান, শফিকুল ইসলাম নামে এক স্কুলশিক্ষক প্রায়ই শিশুদের মাঝে খাবার বিতরণ করেন। শিশুদের মাদ্রাসামুখী করতেই এ উদ্যোগ। প্যাকেটের গায়ে মেয়াদোত্তীর্ণ তারিখের শেষদিন ছিল শনিবারই।

খাবার বিতরণকারী শিক্ষক শফিকুল ইসলাম বলেন, প্যাকেটের মোড়কে মেয়াদোত্তীর্ণ বিষয়টি নজরে আসেনি। তাছাড়া শনিবার পর্যন্ত মেয়াদ ছিল। মোড়কের ভেতরের খাবারটি নিম্নমানের ছিল নিশ্চিত।

সৈয়দপুর ১০০ শয্যা হাসপাতালের জরুরি বিভাগের কর্মকর্তা ডা. রাশেদুজ্জামান রাশেদ বলেন, বমি ও ডায়রিয়ার উপসর্গ নিয়ে আসা শিশুদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বর্তমানে তাদের শিশু ও ডায়রিয়া বিভাগে রেখে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। তাদের অবস্থা উন্নতির দিকে বলে জানান তিনি।

Place your advertisement here
Place your advertisement here