ব্রেকিং:
পাঁচ বিভাগে পাঁচ বার্ন ইউনিট স্থাপনসহ প্রায় ৭ হাজার ৪৪৭ কোটি ৭ লাখ টাকা ব্যয় সম্বলিত ১০ প্রকল্প একনেকে অনুমোদন
  • বুধবার   ০৮ ডিসেম্বর ২০২১ ||

  • অগ্রাহায়ণ ২৩ ১৪২৮

  • || ০১ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৩

Find us in facebook
সর্বশেষ:
ভারতের সঙ্গে বন্ধুত্বের বন্ধন এখন আরো শক্তিশালী: প্রধানমন্ত্রী বাল্যবিয়ে মুক্ত হলো কুড়িগ্রামের রাজারহাট এক কোটি ৬০ লাখ টাকা মূল্যের সাপের বিষ উদ্ধার ধান-চালের বাজার তদারকি জোরদারের নির্দেশ বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক ইউনিট পাচ্ছে ৫ মেডিকেল হাসপাতাল

আধুনিক ওয়ার্ড গড়ার প্রতিশ্রুতি আরিফের

– দৈনিক রংপুর নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ২৮ অক্টোবর ২০২১  

Find us in facebook

Find us in facebook

দ্বিতীয় দফার ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের প্রচারণা জমে উঠেছে। প্রতীক পেয়েই মাঠ চষে বেড়াচ্ছেন চেয়ারম্যান প্রার্থী থেকে সাধারণ ওয়ার্ড সদস্য ও সংরক্ষিত (নারী) সদস্যরা। ভোটযুদ্ধে প্রচারণায় পিছিয়ে নেই শারীরিক প্রতিবন্ধী আরিফ মণ্ডলও।

প্রতীক পেয়েই উচ্ছ্বসিত আরিফ মণ্ডল আধুনিক ওয়ার্ড গড়ার প্রতিশ্রুতি দেন ভোটারদের। শারীরিক প্রতিবন্ধকতাকে জয় করা আরিফ এবার ব্যালেট যুদ্ধেও জিততে চান।

বুধবার (২৭ অক্টোবর) প্রতীক বরাদ্দের দিনে রিটার্নিং কর্মকর্তার কাছ থেকে আরিফ পেয়েছেন বৈদ্যুতিক পাখা প্রতীক।

রংপুরের পীরগঞ্জ উপজেলার কাবিলপুর ইউনিয়নের ৩ নং ওয়ার্ড থেকে সাধারণ সদস্য (মেম্বার) পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন আরিফ মণ্ডল (২৫)। তিনি একই ইউনিয়নের ইসলামপুর গ্রামের আব্দুল হালিম মণ্ডলের ছেলে।

আরিফ মণ্ডল বলেন, শারীরিক প্রতিবন্ধকতা আমার এগিয়ে যাওয়ার অনুপ্রেরণা। নির্বাচনে আমার প্রতিদ্বন্দ্বী আরও তিন প্রার্থী রয়েছেন। তারপরও জয়ের সম্ভাবনা দেখছি। কারণ, ভোটার ও এলাকাবাসী আমার সঙ্গে আছেন। আমি প্রতিবন্ধী হলেও মানুষের পাশে সব সময় থাকার চেষ্টা করেছি। সাধ্য ও সামর্থ্য থেকে অনেকের উপকার করেছি।

তিনি আরও বলেন, আমি মনে করি মানুষের দেহকে মূল্যায়ন না করে মানসিকতাকে মূল্যায়ন করা দরকার। এলাকার মানুষ আমাকে ভালোবাসে। তারা আমার দেহকে মূল্যায়ন করেনি, মানসিকতাকে দেখেছে। আমি নির্বাচিত হলে একটি পরিচ্ছন্ন ও আধুনিক ওয়ার্ড গড়তে সবাইকে নিয়ে কাজ করব।

ওয়ার্ডবাসীসহ ভোটারদের দোয়া এবং ভোটেই বৈদ্যুতিক পাখা মার্কার জয় হবে বলেও বিশ্বাস এই তরুণের। নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা আগ থেকেই সাধারণ মানুষের দ্বারে দ্বারে ঘুরেছেন আরিফ মণ্ডল। এখন প্রতীক পেয়েও সকাল থেকে রাত পর্যন্ত পাড়া-মহল্লার অলিগলি, মেঠোপথ, হাটবাজারে গণসংযোগে দেখা যাচ্ছে তাকে। গ্রামের সবার সঙ্গে ভালো সংখ্য থাকায় আরিফ মণ্ডলকে নিয়ে তার সমর্থকরাও আশাবাদী।

৩ নং ওয়ার্ডের ভোটার বাবু মিয়া ঢাকা পোস্টকে বলেন, আরিফ ভাই শারীরিক প্রতিবন্ধী হলেও একজন ভালো মানুষ। গ্রামের মানুষের কথা ভাবেন। মানুষের উপকারে কাজ করেন। কখনো নিজের প্রতিবন্ধকতার দোহাই দেননি। বরং এলাকার সমস্যা সমাধানে পরামর্শ দিয়ে পাশে থেকেছেন। আমরা তাকে ভোট দেব।

উল্লেখ্য, দ্বিতীয় ধাপের ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে পীরগঞ্জ উপজেলার ১৫টির মধ্যে ১০টি ইউনিয়নে আগামী ১১ নভেম্বর ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। এই ১০ ইউপিতে চেয়ারম্যান পদে ৯০ জন ও সাধারণ ওয়ার্ড সদস্য পদে ৪২২ এবং সংরক্ষিত ওয়ার্ডে ১৩৬ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

Place your advertisement here
Place your advertisement here