• বৃহস্পতিবার   ০৭ জুলাই ২০২২ ||

  • আষাঢ় ২২ ১৪২৯

  • || ০৬ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৩

Find us in facebook
সর্বশেষ:
বায়তুল মোকাররমে ঈদের প্রথম জামাত ৭টায় হিলি স্থলবন্দর দিয়ে পেঁয়াজ আমদানি শুরু ঈদের ছুটিতে বাড়ি ফেরার পথে প্রাণ গেল মা-মেয়ের মানুষের কষ্ট লাঘবে লোডশেডিংয়ের রুটিন করার পরামর্শ প্রধানমন্ত্রীর ডিজিটাল ডিভাইস আমরা রপ্তানি করব: প্রধানমন্ত্রী

‘নজরুলের ইসলামী গানে শান্তির বার্তা পাওয়া যায়’

– দৈনিক রংপুর নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ৩১ মে ২০২২  

Find us in facebook

Find us in facebook

সংস্কৃতি বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ বলেছেন, জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামই প্রথম বাংলায় গজল গান রচনা করেছেন। তার ইসলামী গানে সমাজ সচেতনতা, সাম্য, মৈত্রী, স্বাধীনতা, সংগ্রাম ও শান্তির বারতা পাওয়া যায়। তার গজলে আছে ইরানি কাব্যসুষমার লালিত্য ও ভারতীয় সংগীতের অপূর্ব সুর।

তিনি বলেন, নজরুলের গজল তাই সৃষ্টি রসে অতুলনীয়। তার গজলে অবশ্য ইরানি মহাকবি হাফিজের প্রভাব লক্ষণীয়। সেই সঙ্গে ওমর খৈয়ামেরও।

মঙ্গলবার বিকেলে রাজধানীর শাহবাগ জাদুঘরে ‘কাজী নজরুল ইসলামের গজল: বাংলা গানের মাইলফলক’ শীর্ষক সেমিনার-আলোচনা সভায় এসব কথা বলেন।

প্রধান অতিথি বক্তব্য কে এম খালিদ বলেন, প্রিয়তম সন্তান বুলবুলের মৃত্যুর পর কবি নজরুল মুষড়ে পড়েছিলেন। তখন তিনি আধ্যাত্মিকতার পথে ধাবিত হয়েছিলেন। আমাদেরও সে পথে অনুপ্রাণিত করেছেন। সে সময় তিনি রচনা করেছেন অসংখ্য ইসলামী গান- গজল, হামদ, নাত প্রভৃতি। তার ইসলামী গানে পাওয়া যায় সমাজ সচেতনতা, সাম্য, মৈত্রী, স্বাধীনতা, সংগ্রাম ও শান্তির বারতা।

বাংলাদেশ জাতীয় জাদুঘর বোর্ড অব ট্রাস্টিজ এর সভাপতি অধ্যাপক ড. আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. আবুল মনসুর। 

মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন বিশিষ্ট নজরুল সংগীত শিল্পী ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সংগীত বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ড. প্রিয়াংকা গোপ। আলোচনা করেন বিশিষ্ট নজরুল সংগীত শিল্পী ও অনুবাদক অধ্যাপক ড. নাশিদ কামাল। 

অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন বাংলাদেশ জাতীয় জাদুঘর এর মহাপরিচালক খোন্দকার মোস্তাফিজুর রহমান এনডিসি।

Place your advertisement here
Place your advertisement here