• শুক্রবার ০১ মার্চ ২০২৪ ||

  • ফাল্গুন ১৭ ১৪৩০

  • || ১৯ শা'বান ১৪৪৫

Find us in facebook
সর্বশেষ:
পুলিশকে বন্ধু হিসেবে জনগণের পাশে থাকতে হবে: রাষ্ট্রপতি চিকিৎসকদের দায়িত্ব নিয়ে সেবা দিতে হবে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী রোজায় বড় ইফতার পার্টি না করার নির্দেশনা প্রধানমন্ত্রীর দিনাজপুরে সোহেল হত্যা মামলায় ৫ জনের যাবজ্জীবন কাউনিয়ায় ভুট্টা গাছের সঙ্গে শত্রুতা

ঘোড়াঘাটে পরিক্ষামূলক কমলা চাষে সফল জাহাঙ্গীর

– দৈনিক রংপুর নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ৫ ডিসেম্বর ২০২৩  

Find us in facebook

Find us in facebook

দিনাজপুরের ঘোড়াঘাটে বিসমিল্লাহ নার্সারীতে ফলজ, বনজ ও ঔষধী গাছের চারা উৎপাদনের পাশাপাশি দার্জিলিং, ম্যান্ডারিং, চায়না এবং ছাতকী জাতের কমলা পরিক্ষামূলক চাষে সফলতা পেয়েছেন জাহাঙ্গীর আলম।

২০০১ সালে মাত্র ৩৩ শতক জমি নিয়ে ঘোড়াঘাট পৌরসভার নুরজাহানপুর এলাকায় নার্সারী গড়ে তোলেন জাহাঙ্গীর আলম। গত কয়েক বছরে নার্সারীর পরিধি বেড়ে বিস্তার লাভ করে ৪ একর জমিতে। বর্তমানে নার্সারীতে বাহারি জাতের দেশী-বিদেশী ফলজ, ফুল, মসলা ও ঔষধী গাছ রয়েছে।

২০২০ সালের জুন মাসে জাহাঙ্গীর তার নার্সারীর মধ্যে ১ একর জমিতে পরিক্ষামুলক ভাবে বিভিন্ন জাতের কমলার চাষ করেন। কমলা চাষের শুরুতে নানা শঙ্কা থাকলেও এখন তিনি সফলতার পথে। গাছে গাছে থোকায় থোকায় ঝুলছে হলুদ রঙ্গের কমলা। প্রতিদিনই বিভিন্ন স্থান থেকে কমলার বাগান দেখতের আসছেন নানা বয়সী ও শ্রেণী পেশার মানুষ। কমলা বিক্রি করে এ বছর খরচ বাদে ২ লক্ষ ৫০ হাজার টাকা লাভ হওয়ার সম্ভাবনা আছে। এছাড়াও তিনি কমলার চারা ১০০ থেকে ৫০০ টাকা কেজি দরে বাগান থেকে বিক্রি করছেন।

কমলার বাগান দেখতে আসা দর্শনার্থী মো. রুহুল আমিন বলেন, এ রকম কমলার বাগান আগে কখনো দেখিনি। প্রতিটি গাছই কমলায় পরিপূর্ণ। কমলা ছিড়ে খেয়ে দেখেছি অনেক মিষ্টি। যার কারণে আমি নিজেও বাগান লাগানোর কথা ভাবছি।

নার্সারী মালিক মো. জাহাঙ্গীর আলম বলেন, ৩ বছর আগে আমার নার্সারীর ১ একর জমিতে পরীক্ষামুলক কমলা চাষ করি। বর্তমানে বাগানে পরিপূর্ণভাবে কমলা ধরেছে, সুস্বাদু হওয়ায় এ কমলার অনেক চাহিদা। আমি বাগান থেকেই ৩২০ টাকা দরে কমলা বিক্রি করছি।

উপজেলা কৃষি অফিসার মো. রফিকুজ্জামান জানান, কমলা চাষের জন্য ২৫-৩০ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা সহ গ্রীষ্মকালে কমলা ক্ষেতে ছাঁউনি দিয়ে ছায়ার ব্যবস্থা করলে ভালো হয়। এছাড়া পর্যাপ্ত পরিমাণ জৈব সার ব্যবহার করতে হবে। গাছ প্রতি পটাশ ১২০ গ্রাম ও বোরণ ২০ গ্রাম প্রয়োগ করতে হবে এবং গাছের গোড়ার দিকে অ-প্রয়োজনীয় ডাল ছাঁটাইয়ের পরামর্শ প্রদান করেন তিনি। ঘোড়াঘাটে কমলা চাষ বাড়াতে নানা পরার্মশ ও চাষে উদ্বুদ্ধ করছে উপজেলা কৃষি বিভাগ।
 

Place your advertisement here
Place your advertisement here