• বৃহস্পতিবার   ০৭ জুলাই ২০২২ ||

  • আষাঢ় ২২ ১৪২৯

  • || ০৬ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৩

Find us in facebook
সর্বশেষ:
বায়তুল মোকাররমে ঈদের প্রথম জামাত ৭টায় হিলি স্থলবন্দর দিয়ে পেঁয়াজ আমদানি শুরু ঈদের ছুটিতে বাড়ি ফেরার পথে প্রাণ গেল মা-মেয়ের মানুষের কষ্ট লাঘবে লোডশেডিংয়ের রুটিন করার পরামর্শ প্রধানমন্ত্রীর ডিজিটাল ডিভাইস আমরা রপ্তানি করব: প্রধানমন্ত্রী

রংপুরে অপহরণ মামলায় এক নারীর ১৪ বছরের কারাদণ্ড   

– দৈনিক রংপুর নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ৬ এপ্রিল ২০২২  

Find us in facebook

Find us in facebook

রংপুরের কাউনিয়ায় দুই স্কুলছাত্রী অপহরণ মামলায় স্বপ্না রানী ওরফে লাইজু বেগম নামে এক নারীকে ১৪ বছরের কারাদণ্ডাদেশ দিয়েছেন আদালত। আসামির অনুপস্থিতিতে এ রায় ঘোষণার করেন বিচারক। রায়ে ওই নারীর পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে, আরও ১ মাসের দণ্ডাদেশ দেওয়া হয়।

আজ বুধবার (৬ এপ্রিল) দুপুরে রংপুর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-৩ এর বিচারক এম আলী আহমেদ আসামির অনুপস্থতিতে এই আদেশ দেন।

আসামি স্বপ্না রানী ওরফে লাইজু বেগম মিঠাপুকুর উপজেলার পদাগঞ্জ এলাকার বকশিপাড়া গ্রামের শওকত আলীর মেয়ে। রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী ও মামলা সূত্রে জানা যায়, ২০১০ সালের ৫ আগস্ট কাউনিয়া উপজেলার ধর্মেশ্বর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রথম শ্রেণিতে পড়ুয়া দুই শিক্ষার্থী শাহিমা (৭) ও জিনাত জাহানকে (৭) স্কুলে যাবার পথে অপহরণ করেন স্বপ্না রানী। পরে ওই দিনই অপহরণ হওয়া দুই শিশুসহ স্বপ্না রানীকে আটক করেন স্থানীয় জনতা। পরে তাকে পুলিশে সোপর্দ করা হয়। ওই ঘটনায় ফেরদৌস আলী বাদী হয়ে স্বপ্না রানীকে একমাত্র আসামি করে কাউনিয়া থানায় একটি অপহরণ মামলা দায়ের করেন। তবে, স্বপ্না জামিনে মুক্ত হয়ে সেই থেকে পলাতক আছেন।

আদালত সূত্রে জানা গেছে, অপহরণের ঘটনায় দায়ের করা মামলায় কাউনিয়া থানার উপ-পুলিশ পরিদর্শক (এসআই) আমিনুল ইসলাম ২০১০ সালের ৮ ডিসেম্বর একটি অভিযোগ দাখিল করেন। এতে ১৫ জনকে সাক্ষী করা হলেও আদালতে সাক্ষ্য দিয়েছেন ১৩ জন।

রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী তাজেবুর রহমান লাইজু জানান, জামিনে মুক্ত হয়ে দীর্ঘদিন ধরে পলাতক থাকায় তার অনুপস্থিতিতে রাষ্ট্রপক্ষ স্বপ্নার মামলাটি পরিচালনা করেন।
কে/

Place your advertisement here
Place your advertisement here