• মঙ্গলবার   ০৯ আগস্ট ২০২২ ||

  • শ্রাবণ ২৫ ১৪২৯

  • || ১০ মুহররম ১৪৪৪

Find us in facebook
সর্বশেষ:
বিদ্যুৎ, জ্বালানি তেল ও গ্যাসের সাশ্রয়ী ব্যবহার নিশ্চিতের আহ্বান রাষ্ট্রপতির বাংলাদেশকে আরো ১৫ লাখ টিকা দিলো যুক্তরাষ্ট্র মালয়েশিয়ায় গেল বাংলাদেশি ৫৩ কর্মীর প্রথম ফ্লাইট অনেকটা নিরুপায় হয়েই জ্বালানির দাম সমন্বয় করেছে সরকার: জয় আওয়ামী লীগ বিএনপির ওপর কোনো অত্যাচার করেনি: তোফায়েল আহমেদ

তাইওয়ান সফরে এসে ডেপুটি স্পিকারকে যা বললেন ন্যান্সি পেলোসি

– দৈনিক রংপুর নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ৩ আগস্ট ২০২২  

Find us in facebook

Find us in facebook

লাগাতার হুঁশিয়ারি উপেক্ষা করে তাইওয়ান সফর সফল করছেন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের হাউস অব রিপ্রেজেন্টেটিভসের স্পিকার ন্যান্সি পেলোসি। এরই মধ্যে তিনি তাইওয়ান পার্লামেন্টের ডেপুটি স্পিকার সাই চাই চ্যাং-এর সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছেন। 

এ সময় পেলোসি বলেন, আমরা তাইওয়ানে বন্ধুত্বের জন্য এসেছি। আমরা এই অঞ্চলে শান্তির জন্য এসেছি।

এর আগে, মঙ্গলবার স্থানীয় সময় রাত পৌনে ১১টার দিকে তাইওয়ানে যান ন্যান্সি। তাইওয়ানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী জোসেফ উ নিজে উপস্থিত থেকে ন্যান্সি পেলোসিকে বিমানবন্দরে স্বাগত জানান।

পেলোসির সফরের জেরে তাইওয়ানে নির্মাণে ব্যবহৃত বালু রফতানি এবং তাইওয়ান থেকে সাইট্রিস (লেবু জাতীয়) ফল ও কিছু বিশেষ ধরনের মাছ আমদানি নিষিদ্ধ করেছে চীন।

চীনের তাইওয়ান সম্পর্কিত দফতর আলাদাভাবে ঘোষণা করেছে যে, তাইয়ানের দুটি ফাউন্ডেশনের (দ্যা তাইওয়ান ফাউন্ডেশন ফর ডেমোক্রেসি এবং দ্য তাইওয়ান ইন্টারন্যাশনাল কো-অপারেশন অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট ফান্ড) সঙ্গে চীনের মূল ভূণ্ডের কোম্পানিগুলো বাণিজ্য কিংবা অর্থনৈতিক লেনদেন করতে পারবে না। দফায় দফায় হুঁশিয়ারির পরও ন্যান্সি পেলোসি তাইওয়ানে সফর করার কারণে এ ঘোষণাটি এসেছে।

চীনের কাস্টমস এজেন্সি বুধবার ১০০ এর বেশি তাইওয়ানি খাদ্য সংশ্লিষ্ট ব্র্যান্ডকে কালো তালিকাভুক্ত করেছে যারা নতুন করে রফতানির জন্য পুনরায় নিবন্ধন করতে পারবেন না।

এদিকে, পেলোসির তাইওয়ান সফরের ব্যাখ্যা চেয়ে বেজিংয়ে কর্মরত দেশটির রাষ্ট্রদূতকে জরুরিভিত্তিতে তলব করেছে চীন। চীনের পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী ঝি ফেং মার্কিন রাষ্ট্রদূতকে তলব করেন।

চীনের পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী বলেন, পেলোসি বৈশ্বিক নিন্দার মধ্যেও ইচ্ছাকৃতভাবে উসকানি ও আগুন নিয়ে খেলার ঝুঁকি নিয়েছেন। তার তাইওয়ান সফর এক চীন নীতির এবং চীন ও যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যকার তিনটি যৌথ চুক্তির জন্য মারাত্মক হুমকি।

পেলোসির তাইওয়ান সফর চীন ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের রাজনৈতিক ভিত্তির উপরও মারাত্মক প্রভাব পড়বে। তার সফর চীনের সার্বভৌমত্ব, ভৌগলিক অখণ্ডতা রক্ষায় মারাত্মকভাবে লঙ্ঘন করে।

তিনি আরো বলেন, এ সফর ভয়াবহভাবে তাইওয়ান প্রণালীতে আমাদের আঞ্চলিক শান্তি ও স্থিতিশীলতাকে অবজ্ঞা করেছে এবং যারা তাইওয়ানের বিচ্ছিন্নতাবাদী রয়েছে তাদের উসকানি দেওয়া হচ্ছে। সফরটি চরমভাবে শান্তি বিনষ্ট করছে যার ফলাফল গুরুতর হবে। এজন্য চীন বসে থাকবে না।

চীনের পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী বলেন, পেলোসির এ সফরের জন্য মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সরকার দায়ী। মুহূর্তের মধ্যে যুক্তরাষ্ট্র এক কথা বলেছে আবার করেছে অন্য কিছু। তাদের ধারাবাহিক পদক্ষেপ এক চীন নীতিকে নষ্ট ও ঝুঁকিতে ফেলছে।

Place your advertisement here
Place your advertisement here