• শুক্রবার   ০২ ডিসেম্বর ২০২২ ||

  • অগ্রাহায়ণ ১৭ ১৪২৯

  • || ০৬ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

Find us in facebook
সর্বশেষ:
গৌরবদীপ্ত বিজয়ের মাস শুরু দেশে করোনার টিকার ৪র্থ ডোজ দেওয়া হবে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী রংপুর সিটি নির্বাচনে ১০ মেয়র প্রার্থীর মনোনয়ন বৈধ নীলফামারীতে ইয়াবাসহ ১৫ মামলার আসামি গ্রেফতার টিসিবির জন্য ২ কোটি ২০ লাখ লিটার সয়াবিন তেল কিনবে সরকার

৪ মাসের ছুটি নিয়ে ৬ বছর ধরে প্রবাসে, কারণ দর্শানোর নোটিশ

– দৈনিক রংপুর নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ১ আগস্ট ২০২২  

Find us in facebook

Find us in facebook

রংপুরের গঙ্গাচড়ায় চার মাসের ছুটি নিয়ে ছয় বছর ধরে যুক্তরাষ্ট্রে অবস্থান করা প্রধান শিক্ষক নাজমা খাতুনকে কারণ দর্শানোর নোটিশ দিয়েছে বিভাগীয় শিক্ষা অধিদপ্তর।

রংপুর বিভাগীয় প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের ভারপ্রাপ্ত উপ-পরিচালক মুজাহিদুল ইসলাম স্বাক্ষরিত গত ২০ জুলাই ইস্যু করা কারণ দর্শানো ওই নোটিশে বিধিমালা অনুযায়ী কেন চাকরি থেকে বরখাস্ত করা বা যথোপযুক্ত শাস্তি দেওয়া হবে না তা চিঠি প্রাপ্তির ১০ কার্যদিবসের মধ্যে প্রধান শিক্ষক নাজমা খাতুনকে জবাব দিতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এছাড়া আত্মপক্ষ সমর্থনের জন্য ব্যক্তিগত শুনানি দিতে ইচ্ছুক হলে তা জবাবে উল্লেখ করার জন্য বলা হয়েছে।

কারণ দর্শানো ওই নোটিশটি ২৬ জুলাই (মঙ্গলবার) ইমেইলে পেয়েছেন বলে নিশ্চিত করে উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা নাগমা সিলভিয়া খান সোমবার (১ আগস্ট) দুপুরে জাগো নিউজকে বলেন, চিঠি পাওয়ার পর অভিযুক্ত নাজমা খাতুনের পরিবারের লোকজনের সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়। ২৭ জুলাই নাজমা খাতুনের শ্বশুর আজিজুল ইসলাম অফিসে এসে সেই চিঠি নিয়ে গেছেন।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, ২০১৫ সালের জানুয়ারি মাসে গঙ্গাচড়া উপজেলার মর্ণেয়া ইউনিয়নের লাখেরাজটারী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষক হিসেবে যোগদান করেন নাজমা খাতুন। যোগদানের দেড় বছর পর চিকিৎসার জন্য ২০১৬ সালের ১২ জুলাই দুই মাসের ছুটি নিয়ে তিনি যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী স্বামীর কাছে যান। সেখানে থাকা অবস্থায় তিনি আরও দুমাসের ছুটি বাড়িয়ে নেন। এরপর তার ছুটি শেষ হলেও তিনি বিদ্যালয়ে আসেননি এবং ছুটিও নেননি। দীর্ঘদিন ধরে বিনা ছুটিতে বিদ্যালয়ে অনুপস্থিত থেকেও তিনি চাকরিতে বহাল থাকেন।

এ নিয়ে শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের মাঝে ক্ষোভ দেখা দেয়। তারা চাকরির বিধিমালা অনুযায়ী ওই শিক্ষকের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কাছে দাবি জানান।

এ নিয়ে গত ২২ জুলাই ‘৪ মাসের ছুটি নিয়ে ৬ বছর ধরে যুক্তরাষ্ট্রে প্রধান শিক্ষক’ শিরোনামে প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়। এরপরে ওই প্রধান শিক্ষককে কারণ দর্শানোর নোটিশের বিষয়টি সামনে আসে।

Place your advertisement here
Place your advertisement here