• বুধবার   ০৫ অক্টোবর ২০২২ ||

  • আশ্বিন ১৯ ১৪২৯

  • || ০৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

Find us in facebook
সর্বশেষ:
সমৃদ্ধ দেশ গড়তে কন্যা শিশুদের যথাযথ শিক্ষা নিশ্চিত করা অপরিহার্য: প্রধানমন্ত্রী বিএনপির মানবাধিকার লঙ্ঘনের ইতিহাস পুরনো: সুলতানা কামাল নির্বাচন সামনে রেখে উসকানিমূলক তৎপরতা চলছে: ওবায়দুল কাদের করতোয়ায় নৌকাডুবি: ৮ কারণ দেখিয়ে প্রতিবেদন দিল তদন্ত কমিটি হাতীবান্ধায় নানার বাড়ি বেড়াতে এসে প্রাণ গেল অপূর্বের

প্রেমের টানে ভারত থেকে রংপুরে তরুণী

– দৈনিক রংপুর নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ২৭ জুন ২০২১  

Find us in facebook

Find us in facebook

কাজের সন্ধানে ভারতের পশ্চিমবঙ্গের হুগলি জেলায় গিয়ে প্রীতি পন্ডিতের সঙ্গে পরিচয় হয় রংপুরের যুবক মিলন ও তার বন্ধু হাবিবুর রহমানের সঙ্গে। মিলন ও হাবিবুর আড়াই বছর আগে রংপুর থেকে অবৈধ পথে ভারতের পশ্চিমবঙ্গে ও হুগলিতে গিয়ে রংমিস্ত্রীর কাজ শুরু করেন। এর পর মিলনের সঙ্গে প্রীতি পন্ডিতের প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। পরে মিলন ও হাবিবুর রংপুরে ফিরে আসেন। কিন্তু থেমে থাকেনি মিলন আর প্রীতি পন্ডিতের প্রেম। 

তাদের প্রেম চিরস্থায়ী করতে বিভিন্ন যোগাযোগ প্রযুক্তির মাধ্যম হোয়াটসআ্যাপ, মোবাইল ফোন, ইমো ও ফেসবুক মেসেঞ্জার, টুইটার ব্যবহার করে হৃদয়ের সম্পর্ক এগিয়ে নিতে থাকে। এভাবে দীর্ঘ দুই বছর সম্পর্ক চলার পর অবশেষে প্রেমের টানে প্রীতি পন্ডিত তার পরিবার ও দুই দেশের সীমান্ত রক্ষীদের ফাঁকি দিয়ে রংপুরে চলে আসেন। কিন্তু অবৈধভাবে বাংলাদেশে অনুপ্রবেশের দায়ে শনিবার রংপুর সদর থানার পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে। 

সঙ্গে প্রেমিক মিলন মিয়া ও তার বন্ধু হাবিবুর রহমানকেও পুলিশ হেফাজতে নেয়া হয়। বিষয়টি নিশ্চিত করে রংপুর সদর কোতোয়ালি থানার ওসি মোস্তাফিজুর রহমান জানান, মিলন, প্রীতি ও হাবিবুরকে সদর কোতোয়ালি আমলি আদালতে হাজির করা হয়েছে। 

ওসি জানান, শনিবার বিকেলে রংপুরের মিঠাপুকুর উপজেলার রানীপুকুর ইউপির নূরপুর বালাপাড়া গ্রাম থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়। প্রীতি পন্ডিত ভারতের পশ্চিমবঙ্গের হুগলি জেলার কোতোয়ালি থানার ভাংত জাংলা গ্রামের মন্টু পন্ডিতের মেয়ে। তিনি গত ২৪ জুন যশোরের বেনাপোল সীমান্ত দিয়ে বাংলাদেশে অনুপ্রবেশ করে প্রেমিক মিলন মিয়ার গ্রামের বাড়ি রংপুর সদর উপজেলার সদ্যপুষ্কুরিণী ইউপির পালিচড়া ফাজিলখাঁ নয়াপুকুওে চলে আসেন। 

বিষয়টি এলাকায় জানাজানি হলে প্রীতিকে নিয়ে মিলন তার বন্ধু হাবিবুরের সহায়তায় পার্শ্ববর্তী রানীপুকুরে কাছে আত্মীয় লতিফুলের বাড়িতে গিয়ে আত্মগোপনে থাকার চেষ্টা করেন। পরে পুলিশ খবর পেয়ে সেখান থেকে তাদের তিনজনকে গ্রেফতার করেন। 

অবৈধভাবে সীমান্ত পাড়ি দিয়ে বাংলাদেশে অনুপ্রবেশ করার দায়ে প্রীতি পন্ডিত পুলিশের হেফাজতে থানায় রাখা হয়েছে জানিয়ে সদর কোতয়ালি থানার উপপরিদর্শক জাহাঙ্গীর আলম জানান, গত ২৪ জুন ভারত থেকে যশোরের বেনাপোল সীমান্ত দিয়ে বাংলাদেশে অবৈধভাবে অনুপ্রবেশ করে রংপুরে আসেন প্রীতি। এরপর সে প্রেমিক মিলনের বাড়িতে বাড়িতে অবস্থান করছিল। 

বিষয়টি জানার পর অভিযানে নামে পুলিশ। পরে তাদের মিঠাপুকুর উপজেলার রানীপুকুর ইউপির নূরপুর বালাপাড়া গ্রামে আত্মীয় লতিফুল ইসলামের বাড়ি থেকে গ্রেফতার করা হয়। প্রীতি বিনা পাসপোর্ট ও অনুমতি ছাড়া সীমান্ত পেরিয়ে বাংলাদেশে অবৈধ অনুপ্রবেশের দায়ে সদর কোতোয়ালি থানায় একটি মামলা করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন। মামলার বাদী এসআই জাহাঙ্গীর আলম ভারতীয় তরুণীকে সেভ হোমে রাখার জন্য আমলি আদালতের বিচারকের কাছে আবেদন করেছেন।

Place your advertisement here
Place your advertisement here