• শুক্রবার   ০২ ডিসেম্বর ২০২২ ||

  • অগ্রাহায়ণ ১৭ ১৪২৯

  • || ০৬ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

Find us in facebook
সর্বশেষ:
গৌরবদীপ্ত বিজয়ের মাস শুরু দেশে করোনার টিকার ৪র্থ ডোজ দেওয়া হবে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী রংপুর সিটি নির্বাচনে ১০ মেয়র প্রার্থীর মনোনয়ন বৈধ নীলফামারীতে ইয়াবাসহ ১৫ মামলার আসামি গ্রেফতার টিসিবির জন্য ২ কোটি ২০ লাখ লিটার সয়াবিন তেল কিনবে সরকার

গঙ্গাচড়ায় করোনার ঝুঁকি নিয়ে অসহায়দের পাশে রাঁঙ্গা কন্যা জুঁই

– দৈনিক রংপুর নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ৭ মে ২০২০  

Find us in facebook

Find us in facebook

করোনা ভাইরাস আতঙ্কে কাঁপছে সারা দুনিয়া। লকডাউন হয়েছে অনেক দেশ ও ব্যস্ত শহর। স্থবির হয়ে গেছে বাংলাদেশও। বন্ধ হয়েছে সরকারি-বেসরকারি অফিস ও গণপরিবহন। এমনি অবস্থায় জীবন ও জীবিকা নিয়ে অসহায় দিন পার করছেন খেটে খাওয়া দিন মজুর, শ্রমিকরা ও নিম্ন আয়ের মানুষ। সমাজের প্রতিষ্ঠিত মানুষেরা তাদের দায়িত্ব নিচ্ছন যার যার জায়গা থেকে। এমন পরিস্থিতিতে রংপুর-১ (গঙ্গাচড়া ও সিটি কর্পোরেশন আংশিক) আসনের এসব অসহায় দুস্থ ও কর্মহীন মানুষের পাশে দাড়িয়েছেন জাতীয় পার্টির মহাসচিব, বিরোধী দলীয় চীফ হুইপ ও রংপুর-১ গঙ্গাচড়া আসনের এমপি মশিউর রহমান রাঁঙ্গা। 

করোনা শুরু থেকে তার পক্ষে গঙ্গাচড়া উপজেলার ৯টি ইউনিয়ন ও সিটি কর্পোরেশনের ১ থেকে ৮ নং ওয়ার্ডে তালিকা করে আসহায় দুস্থ, দিনমজুর, শ্রমিক ও ইমাম, মুয়াজ্জিন, পুরোহিত, পুজারিসহ নিম্ন আয়ের লোকজনকে চাল, ডাল, তেল, আলু, আটাসহ খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেন রাঁঙ্গা কন্যা মালিহা তাসনিম জুঁই। ইতিমধ্যেই জুঁই তার পিতা রাঙ্গার ব্যক্তিগত তহবিল থেকে ১১০ মেট্রেকটন চাল ও নগদ ৫ লক্ষ টাকা বিতরণ করেছেন।

এদিকে করোনা ভাইরাসের ঝুঁকি নিয়ে অসহায় দুস্থ ও কর্মহীনদের দ্বারে দ্বারে খাদ্য সামগ্রী পৌছে দিয়ে গঙ্গাচড়া জুড়ে আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে এখন এমপি রাঁঙ্গা কন্যা মালিহা তাসনিম জুঁই। উপজেলাবাসী তাঁর এমন মানবিক কর্মকান্ড দেখে প্রশংসা করেছেন। অনেকে দোয়া করছেন যেন পিতার মতো সেও গঙ্গাচড়াবাসীর সেবায় নিয়োজিত হতে পারে।

গঙ্গাচড়া উপজেলার মর্ণেয়ার চরের নুর আলম জানান, আমাদের এমপি রাঙ্গা সব সময় আমাদের পাশে ছিলেন। ঠিক তেমনি তাঁর কন্যা জুঁই পিতার মতো আমাদের সেবায় নেমেছেন। অন্যদিকে বড়বিল মন্থনার আবুল হোসেন বলেন, এমপির মেয়ে যেভাবে করোনা ভাইরাসের ঝুঁকি নিয়ে অসহায় দুস্থ ও কর্মহীনদের পাশে দাড়িয়েছে তা সত্যিই প্রশংসিত।

এমপি কন্যা মালিহা তাসনিম জুঁই বলেন, আপনাদের এমপি মশিউর রহমান রাঙ্গা আপনাদের পাশে সুখে-দুখে সব সময় ছিল। এখনও রয়েছে। তাঁর নিজস্ব তহবিল হতে যতটুকু সম্ভব আপনাদের উপহার হিসেবে খাদ্য সামগ্রী দিয়ে যাচ্ছেন। এজন্য আপনারা দেশের মানুষের জন্য, গঙ্গাচড়াবাসীর জন্য ও আমার বাবা রাঙ্গার জন্য দোয়া করবেন। পাশাপাশি আপনারা নিরাপদে বাড়িতে থাকুন। এমপির উপহার আপনাদের মাঝে পৌছে যাবে ইনশাল্লাহ।

তিনি আরও বলেন, মরণঘ্যাতি করোনাভাইরাসের প্রার্দুভাবে সারাবিশ্বসহ পুরো দেশ আজ থমকে গেছে। তারপরেও বাংলাদেশের মানুষজনকে সচেতন হতে হবে। আরো বেশী সর্তক থাকতে হবে। খুব জরুরী প্রয়োজন ছাড়া বাড়ির বাহিরে বের হওয়া যাবে না। তাছাড়াও কিছু সাবধানতা অবলম্বন না করলে আমাদের ক্ষতির মুখে পরতে হবে। আমি রাঙ্গা এমপি মেয়ে হয়ে আপনাদের পাশে দাড়িয়েছি। তাই গঙ্গাচড়াবাসীকে বলবো আপনারা সকলে সাবধানতা অবলম্বন করে চলবেন। এতে করে আপনি নিরাপদ থাকবেন, আপনার পরিবার নিরাপদ থাকবে।

এদিকে খাদ্য সামগ্রী বিতরণে তার পাশে ছিলেন গঙ্গাচড়া উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান সাজু আহমেদ লাল, গঙ্গাচড়া উপজেলা জাতীয় পার্টির আহবায়ক নুরুল আমিন, সদস্য সচিব আবুল কালাম আজাদ, রংপুর মহানগর জাতীয় যুবসংহতির সভাপতি ও এমপির পিএস শাহিন হোসেন জাকির, গঙ্গাচড়া উপজেলা ছাত্রসমাজের সভাপতি নুুরুল হুদা নাহিদসহ উপজেলা ও বিভিন্ন ইউনিয়ন জাতীয় পার্টি, অঙ্গ ও সংগঠনের নেতাকর্মীরা।

উল্লেখ্য, এরই মধ্য দিয়ে রংপুর-১ আসনের গঙ্গাচড়া উপজেলার লক্ষীটারি, নোহালী, গজঘন্টা, আলমবিদিতর, বেতগাড়ি, গঙ্গাচড়া সদর, বড়বিল, কোলকোন্দ, বেতগাড়ি, মর্ণেয়া ইউনিয়ন ও রংপুর সিটি কর্পোরেশনের ১ থেকে ৮ নং ওয়ার্ডের সাড়ে ৫ হাজার ইমাম-মুয়াজ্জিন, পুরোহিত ও পুজারিদের মাঝে রাঙ্গার উপহার হিসাবে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ কার্যক্রম শেষ করেছেন।

Place your advertisement here
Place your advertisement here