• শুক্রবার   ০২ ডিসেম্বর ২০২২ ||

  • অগ্রাহায়ণ ১৭ ১৪২৯

  • || ০৬ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

Find us in facebook
সর্বশেষ:
গৌরবদীপ্ত বিজয়ের মাস শুরু দেশে করোনার টিকার ৪র্থ ডোজ দেওয়া হবে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী রংপুর সিটি নির্বাচনে ১০ মেয়র প্রার্থীর মনোনয়ন বৈধ নীলফামারীতে ইয়াবাসহ ১৫ মামলার আসামি গ্রেফতার টিসিবির জন্য ২ কোটি ২০ লাখ লিটার সয়াবিন তেল কিনবে সরকার

বৃষ্টির দিনে পেটের সমস্যায় করণীয়

– দৈনিক রংপুর নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ১৯ জুন ২০২২  

Find us in facebook

Find us in facebook

বর্ষাকালে প্রতিদিন যে বৃষ্টি হবে এমনটা ভাবার কোনো কারণ নেই। রোদ-বৃষ্টির খেলাই বর্ষাকালের বৈশিষ্ট্য। এ সময়টাতে খাওয়াদাওয়ায় সচেতন থাকতে হবে। না হলে কোষ্ঠকাঠিন্য, পাতলা পায়খানা, অল্প খেলেই পেট ফুলে ওঠা, মুখে অরুচি, জ্বর জ্বর ভাব ইত্যাদি হতে পারে। 

বৃষ্টির বিকালে বা সন্ধ্যায় অনেকেরই পছন্দ ফুটপাতের তেল-মসলা দেওয়া ভাজা খাবার। তবে এতে জীবাণুর সংক্রমণ ঘটতে পারে। জীবাণুরা তো আর বসে থাকবে না। সুযোগ পেলেই বাধিয়ে দিবে জ্বর, সর্দি ও পেট খারাপের মতো অসুখ-বিসুখ। প্রতিদিন অ্যান্টাসিড, গ্যাস্ট্রিকের ওষুধ, ভিটামিন—এ সব খেয়ে হয়তো সাময়িক সমাধান হতে পারে তবে দীর্ঘমেয়াদি পেটের সমস্যা থাকলে পেটের যক্ষ্মা বা অ্যাবডোমিনাল টিবি হতে পারে। তাই বৃষ্টির দিনে পেটের সমস্যা থেকে মুক্ত থাকতে খাবারদাবারে সচেতন থাকতে হবে। 

যদিও বৃষ্টি হচ্ছে তারপরেও আছে গুমোট গরম। তাই দুপুরে বা রাতে ভারী খাবারের পরিবর্তে বেছে নিন হালকা কোনো খাবার। একসঙ্গে বেশি খাবার না খেয়ে বরং অল্প করে কয়েকবার খাওয়ার চেষ্টা করুন। এতে সঠিক উপায়ে হজম হওয়ার সময় পাওয়া যাবে। 

বর্ষার স্যাঁতসেতে আবহাওয়াতে স্বাভাবিক ভাবেই বেশি ঘাম হয়। ফলে শরীর থেকে প্রচুর পরিমাণে পানি বেরিয়ে যায়। সুস্থ থাকতে আর্দ্র থাকাটা খুব দরকার। এর জন্য প্রচুর পরিমাণে পানি পান করুন। প্রাপ্তবয়স্ক মানুষের সারা দিনে যে পরিমাণ পানি খাওয়া প্রয়োজন সেই পরিমাণ পানি খাওয়ার চেষ্টা করবেন। পানি ছাড়াও ফলের রস, স্মুদির মতো স্বাস্থ্যকর পানীয় খেতে পারেন।

বর্ষার সময় কোমল পানীয় এড়িয়ে চলুন। এই পানীয় শরীরে খনিজের পরিমাণ কমিয়ে দেয়। ফলে এনজাইমগুলো ঠিকভাবে কাজ করতে পারে না। এতে মারাত্মক হজমের সমস্যা তৈরির পাশাপাশি পেটে ইনফেকশানও হতে পারে।

গ্রীষ্ম বা বর্ষা, তেল-মসলা দেওয়া খাবার খাওয়া চলতেই থাকে। এ সময়ে পেট ভালো রাখতে তাই সে সব খাবার থেকে যথাসম্ভব দূরে থাকতে হবে। প্রক্রিয়াজাত এবং ফ্যাটযুক্ত এই ধরনের খাবার খাওয়ার অভ্যাস পেটের সমস্যার অন্যতম কারণ। এ সব খাবার পাকস্থলির উপর অতিরিক্ত চাপ দেয়, ফলে হজমের সমস্যা হয়। তাছাড়া রোদ-বৃষ্টির তাপমাত্রার হেরফেরে পেট ভালো রাখতে এ ধরনের খাবার এড়িয়ে চলাই বুদ্ধিমানের কাজ। মুখরোচক কিছু খেতে ইচ্ছে করলে বাড়িতে বানানো খাবার খেতে পারেন। 

বৃষ্টির দিনগুলোতে আগে থেকে কেটে রাখা ফল খাবেন না। ফুটপাতে এমন কেটে রাখা ফল অনেকেই খেয়ে থাকেন। এটা ঠিক নয়।  কাটা ফল বাইরে থাকলেই বাতাসের সংস্পর্শে তার উপর ক্ষতিকর ব্যাকটেরিয়া জন্মায়। যা খালি চোখে দেখা যায় না। সেজন্য না জেনেই আমরা খেয়ে ফেলি। তরমুজ ও বেদানায় এই সমস্যা বেশি হয়। পাশাপাশি অন্য কাটা ফলও খাবেন না। 

শরীরচর্চার একমাত্র সুফল ওজন হ্রাস নয়। পেট ভালো রাখতেও শরীরচর্চা করা দরকার। প্রতিদিন ব্যায়াম করার অভ্যাস শারীরিক অনেক সমস্যার সমাধান করে। পেটের নানা সমস্যা এড়াতে এবং বিপাক ক্রিয়া উন্নত করতেও নিয়মিত ব্যায়াম, হাঁটাহাঁটি করা প্রয়োজন। 

Place your advertisement here
Place your advertisement here