• শুক্রবার   ০২ ডিসেম্বর ২০২২ ||

  • অগ্রাহায়ণ ১৭ ১৪২৯

  • || ০৬ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

Find us in facebook
সর্বশেষ:
গৌরবদীপ্ত বিজয়ের মাস শুরু দেশে করোনার টিকার ৪র্থ ডোজ দেওয়া হবে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী রংপুর সিটি নির্বাচনে ১০ মেয়র প্রার্থীর মনোনয়ন বৈধ নীলফামারীতে ইয়াবাসহ ১৫ মামলার আসামি গ্রেফতার টিসিবির জন্য ২ কোটি ২০ লাখ লিটার সয়াবিন তেল কিনবে সরকার

রক্তদানের আগে যে বিষয়গুলো না জানলেই বিপদ

– দৈনিক রংপুর নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ১৪ জুন ২০২২  

Find us in facebook

Find us in facebook

রক্ত অন্যের প্রাণ বাঁচায়। তাই সেচ্ছায় রক্তদান করে থাকেন অনেকেই। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার নিয়ম অনুযায়ী, সুস্বাস্থ্যের অধিকারী সব মানুষই স্বেচ্ছায় রক্তদান করতে পারবেন। তবে কিছু শর্ত রয়েছে, যার ফলে রক্তদান নিয়ে বিভ্রান্তি তৈরি হতে পারে। তাই রক্তদানের আগে নিয়ম কানুন জেনে নেওয়া জরুরি।

রক্তে থাকে রক্তকণিকা, প্লেটলেট ও প্লাজমা। চিকিৎসকরা জানাচ্ছেন, এক ইউনিট রক্ত থেকে এই তিনটি জিনিসই ব্যবহার করা যায়। অর্থাৎ বলা যায়, এক ইউনিট রক্ত কম করে তিনজন মানুষের জীবন রক্ষা করতে পারে।

কোনো রক্তদাতা চাইলে, সমগ্র রক্ত বা হোল ব্লাডও দিতে পারেন, অথবা রক্তের বিশেষ উপাদান যথা প্লেটলেটও দান করতে পারেন।

মানবদেহের মোট ওজনের শতকরা সাত ভাগ রক্ত থাকে। সাধারণত, একজনের দেহ থেকে একবারে এক ইউনিট রক্ত নেয়া হয়। এই রক্ত দাতার দেহে কয়েক সপ্তাহের মধ্যে পুনরায় তৈরি হয়ে যায়। শুধু তাই নয়, এর ফলে দাতার কোনো ক্ষতিও হয় না।

তবে ইচ্ছা থাকলেও যে কেউ রক্ত দিতে পারবেন না। এছাড়া রক্তের গ্রুপ যদি ভুল হয়, তবে গুরুতর শারীরিক সমস্যা থেকে শুরু করে মৃত্যু পর্যন্ত হতে পারে। রক্ত দেওয়ার বেশ কিছু নিয়ম কানুন রয়েছে। চলুন জেনে নেয়া যাক সেগুলো সম্পর্কে-

>> দাতার কোনো ছোঁয়াচে বা রক্ত দ্বারা বাহিত হতে পারে এমন অসুখ থাকলে, তিনি রক্ত দিতে পারবেন না।

>> এইডস, হার্টের রোগ, হাইপারটেনশন, ক্যান্সার, এপিলেপ্সি, কিডনির অসুখ ও ডায়াবেটিস থাকলে রক্ত দেওয়া নিষেধ। যাদের অ্যানিমিয়া রয়েছে, রক্ত দেওয়ায় নিষেধ রয়েছে তাদেরও। হিমোগ্লোবিন যদি ১২ দশমিক ৫-এর নিচে হয়, তাহলে রক্ত দেওয়া যাবে না। পালস রেট যদি ৫০-এর কম ও ১০০-এর বেশি হয়, তাহলেও রক্ত নেওয়া হয় না। এছাড়া হাঁপানি, টিবি বা কোনো ধরনের অ্যালার্জি থাকলেও রক্ত নেয়া হয় না।

>> দাতার বয়স হতে হবে ১৮ থেকে ৬৫ বছরের মধ্যে হতে হবে। কমপক্ষে ৫০ কেজি ওজন না হলে রক্ত দেওয়া বারণ। রক্ত দেওয়ার সময় দৈহিক তাপমাত্রা থাকতে হবে ৩৭ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস। রক্তচাপের সিস্টোলিক থাকতে হবে ১০০-১৮০, ডায়াস্টোলিক ৫০-১০০।

>> রক্তদানের আগের ছ’মাসের মধ্যে যদি ট্যাটু বা পিয়ার্সিং করানো হয়, তাহলেও রক্ত দেওয়া যাবে না।

>> রেবিজ, হেপাটাইটিস বি টিকা নেয়ার পর কম করে ছ’মাস পরে রক্তদান করা উচিত। তবে কোভিডের টিকা নেয়ার দু’ থেকে তিন সপ্তাহ পর রক্ত দান করা যেতে পারে বলে কোনো কোনো ডাক্তারের মত।

>> রক্তদান করার আগের ২৪ ঘণ্টায় মদ্যপান করা যাবে না।

>> গর্ভবতী বা সদ্য মা হয়েছেন এমন নারী রক্তদান করতে পারেন না। এছাড়া মিসক্যারেজ হওয়ার ছ’মাসের মধ্যে রক্তদান নিষিদ্ধ।

Place your advertisement here
Place your advertisement here