• বুধবার ২৪ জুলাই ২০২৪ ||

  • শ্রাবণ ৯ ১৪৩১

  • || ১৬ মুহররম ১৪৪৬

Find us in facebook
সর্বশেষ:
সর্বোচ্চ আদালতের রায়ই আইন হিসেবে গণ্য হবে: জনপ্রশাসনমন্ত্রী। ২৫ জুলাই পর্যন্ত এইচএসসির সব পরীক্ষা স্থগিত।

চিলমারী নদীবন্দরে চালু হচ্ছে ফেরি

– দৈনিক রংপুর নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২৩  

Find us in facebook

Find us in facebook

সকল জল্পনা কল্পনা অবসান দুর করে দীর্ঘ প্রতিক্ষার পর রমনা চিলমারী-রৌমারী রুটে ফেরি চলাচলের জন্য কুড়িগ্রামে উন্নয়নের একটি নতুন মাত্রা যোগ হয়েছে ফেরি ‘কুঞ্জলতা’ । 

কুঞ্জলতা নামে ফেরি রমনা ঘাটে পৌঁছার পর চিলমারী-রৌমারী বাসীর মধ্যে আনন্দ উল্লাস শুরু হয়েছে। এখন তারা উদ্বোধনের দিন গুনছে। ফেরিটি চালু হলে কুড়িগ্রামের সাথে দুরত্ব কমবে রাজধানী ঢাকা, ময়মনসিংহ, সিলেটসহ অনেকে শহরের, কমবে বঙ্গবন্ধু সেতুর উপর চাপ। ব্যবসার প্রসার সাথে আয় বৃদ্ধি পাবে জেলার মানুষের। উন্নয়নের ছোয়া লাগবে এই অঞ্চলের গায়ে।

শুক্রবার সন্ধ্যায় আরিচা ঘাট থেকে ফেরিটি চিলমারী নদীবন্দরে এসে পৌঁছেছে।নদীবন্দরে রমনা ঘাটে ফেরি কুঞ্জলতা সংযুক্ত করার আগে সংযোগ সড়ক,পল্টুনসহ সব ধরণের প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়। ফেরি ঘাটে আসার সংবাদে খুশিতে রাতেই এলাকার মানুষ এক নজর দেখার জন্য নদীবন্দরে ভিড় জমায়।

আগামী ২০ সেপ্টেম্বর থেকে চিলমারী-রৌমারী  নৌরুটে ফেরি চলাচল শুরু হবে বলে জানিয়েছেন বিআইডবিøউটিএ ’র কতৃপক্ষ।

জানা যায়, রৌমারী –রাজিবপুর উপজেলাবসীর চলাচলের একমাত্র পথ হলো নদীপথ। লাখো মানুষের যাতায়াতে নৌকার ওপর ভরসা করে আসতে হয় জেলা শহরে।প্রাকৃতিক দুর্যোগ ও বর্ষা মৌসুমে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে তারা পারাপার হয়। অন্যদিকে শুস্ক মৌসুমে পানি কমে গেলে চরাঞ্জলে আটকে যায় নৌকা হাটতে হয় কয়েক মাইল চর। ফলে চরম দূর্ভোগে পড়তে হয় নারী -শিশুসহ বয়স্ক মানুষজনকে। তাছাড়াও পারাপারে ছিল সিডিউল বিপর্যয় ও বাড়তি নৌকা ভাড়া। এখন সব কষ্টের অবসান হবে ফেরিটি চালু হলে মনে করেন এ অঞ্চলের মানুষ।

তবে স্থানীয়রা বলছে, বর্ষা মৌসুমে ফেরি চলাচলে কোন অসুবিধা না হলেও গ্রীস্ম মৌসুমে নাব্যতা সংকটের কারণে ফেরি বিঘ্নিত হওয়ার শঙ্কা রয়েছে।

এবিষয়ে বিআইডব্লিউটি এ’র উপপরিচালক মাহফুজ আলম সজল বলেন, আগামী ২০ সেপ্টেম্বর নৌ পরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী এবং প্রাথমিক গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মো.জাকির হোসেন এমপি মহোদয় ফেরিটি উদ্বোধন করবেন। উদ্বোধনের পর আরো একটি ফেরি রৌমারী ঘাটে যুক্ত করা হবে। নিয়মিত ফেরি দুটি ওই রুটে চলাচল করবে। এছাড়াও নাব্যতা সংকট দূর করতে চিলমারী ও রৌমারী ঘাটে দুটি ড্রেজার অবস্থান করবে। ফেরি চলাচলে কোথাও বিঘ্নতা ঘটলে ড্রেজার দুটি সার্বক্ষণিক কাজ করবে। 

Place your advertisement here
Place your advertisement here