• মঙ্গলবার ০৫ মার্চ ২০২৪ ||

  • ফাল্গুন ২১ ১৪৩০

  • || ২৩ শা'বান ১৪৪৫

Find us in facebook
সর্বশেষ:
ভবন নির্মাণে বিল্ডিং কোড অনুসরণ নিশ্চিত করুন: প্রধানমন্ত্রী কোনো অজুহাতেই যৌন নিপীড়ককে ছাড় নয়: শিক্ষামন্ত্রী স্পর্শকাতর মামলার সাজা নিশ্চিত করতে হবে: আইজিপি চলতি মাসেই একাধিক কালবৈশাখীর শঙ্কা সিন্ডিকেটের মাধ্যমে দেশদ্রোহীরা মানুষকে কষ্ট দেয়: নাছিম

চকলেটের যেসব গুণে সম্পর্ক হয়ে ওঠে মধুর

– দৈনিক রংপুর নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ১১ ফেব্রুয়ারি ২০২৪  

Find us in facebook

Find us in facebook

রোজ ডে, প্রপোজ ডে-র পর এসে গেলে চকলেট ডে। ভ্যালেন্টাইন’স সপ্তাহের অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ দিন চকলেট দিন। শুধু উপহার হিসেবে নয়, চকলেটের গুণে সম্পর্ক হয়ে ওঠে মধুর।

জেনে নিন কেন ভালোবাসা বাড়াতে, সুস্থ সম্পর্ক গড়তে উপহার দেবেন চকলেট-


চকলেট হার্ট ভালো রাখতে সাহায্য করে। দুধ, চিনি ও মাখন থাকার জন্য চকলেট খুব ভালো অ্যান্টিঅক্সিড্যান্ট। যা রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে রাখতে সাহায্য করে। এমনকি, আপেলের তুলনায় পাঁচ গুণ ফ্ল্যাভনয়েড রয়েছে চকলেটে।


ভালোবাসার মানুষের স্বাস্থ্য সুন্দর হোক, তাকে দেখতে ভালো লাগুক, এমনটা তো সকলেই চান। আর চেহারা সুন্দর রাখতে দারুণ উপকারী ডার্ক চকলেট। ডার্ক চকলেট খেলে মিষ্টি, নোনতা, ফ্যাটজাতীয় খাবার খাওয়ার প্রবণতা কমে। তাই স্বাস্থ্য সুন্দর রাখতে ডার্ক চকলেটেই জমে উঠুক ভালোবাসা।


গবেষণায় দেখা গেছে, যেসব নারী গর্ভাবস্থায় বেশি চকলেট খান তারা স্ট্রেসমুক্ত থাকেন। তারা বুদ্ধিদীপ্ত, হাসিখুশি সন্তানের জন্ম দেন। তাই প্রেগন্যান্ট স্ত্রীকে যত খুশি চকলেট উপহার দিন। এতে ভালোবাসা বাড়বেই। ডার্ক চকলেটের মধ্যে থাকা ফ্ল্যাভনয়েড রক্তে ইনসুলিনের মাত্রা বাড়াতেও সাহায্য করে। তাই ভালোবাসার মানুষটিকে দীর্ঘদিন সুস্থ রাখতে তাকে চকলেটের আহ্লাদে রাখতেই পারেন।


চকলেট যে স্ট্রেস কমাতে সাহায্য করে তা তো এতক্ষণে জেনেই গেছেন। আর তাই সম্পর্কে খুশি থাকতে চকলেট যেমন সাহায্য করে, তেমনই ব্রেক আপের পর স্ট্রেস কাটাতেও চকলেট কিন্তু দারুণ বন্ধু। চকলেটের ফ্লাভনলের মধ্যে সূর্যরশ্মি থেকে ত্বককে রক্ষা করার ক্ষমতা রয়েছে। টানা তিন মাস চকলেট খেলে ত্বক রোদে পোড়ার হাত থেকে রক্ষা পায়। তাই ভালোবাসার মানুষকে চকলেট উপহার দিন। ভালোবাসার গ্লো চেহারায় ফুটে উঠবে।


সম্পর্ক সুন্দর রাখতে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ সঠিক আচরণ। বুদ্ধি করে পরিস্থিতির মোকাবিলা, প্রতিক্রিয়াই সম্পর্কে পার্থক্য গড়়ে দেয়। রোজ চকলেট ড্রিঙ্ক খেলে বুদ্ধি বাড়ে। ফলে চকলেট উপহার দিলে সম্পর্কে বোঝাপড়া বাড়তে বাধ্য। ভালোবাসার সম্পর্কে চকলেটের মতোই একটা বড় অংশ জুড়ে থাকে আইসক্রিম। আর ভালোবাসা তো রোদ, বৃষ্টি, ঝড়, জল, ঠান্ডা কিছুই মানে না। তাই প্রেম করতে গেলে একটু আধটু সর্দি-কাশিতো হবেই। তবে সেই কাশিই যেন প্রেমের পথে বাধা না হয়ে দাঁড়ায়। তাই বয়ফ্রেন্ড বা গার্লফ্রেন্ডের কাশি হলে চকলেট ড্রিঙ্ক খাওয়ান, চকলেট উপহার দিন।


প্রেম করতে গেলে ঘোরাঘুরি, আড্ডা, খাওয়া দাওয়া তো লেগেই থাকে। হঠাৎ পেটের সমস্যা, ডিহাইড্রেশনেও ভালো কাজ করে চকলেট। তাই ভ্যালেন্টাইন’স ডে তে ডিনার প্ল্যান করলে আগে থেকেই সঙ্গে রাখুন চকলেট।

Place your advertisement here
Place your advertisement here