• শুক্রবার   ১২ আগস্ট ২০২২ ||

  • শ্রাবণ ২৮ ১৪২৯

  • || ১৩ মুহররম ১৪৪৪

Find us in facebook
সর্বশেষ:
ছুটির দিনে গ্রামের বাড়ি গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জাতীয় শোক দিবসে নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তা নিশ্চিত করা হবে: আইজিপি বাংলাদেশে প্রয়োজনীয় পরিমাণ গম রফতানির আগ্রহ প্রকাশ করেছে রাশিয়া বিদ্যুৎ সাশ্রয়ের লক্ষ্যে শিল্প-কারখানায় এলাকাভেদে সাপ্তাহিক ছুটি বাংলাদেশে বিনিয়োগে আগ্রহী মার্কিন কোম্পানি: খালিদ মাহমুদ চৌধুরী

বিগবসের দাম ৩৫ লাখ টাকা, সঙ্গে মোটরসাইকেল ফ্রি

– দৈনিক রংপুর নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ২৮ জুন ২০২২  

Find us in facebook

Find us in facebook

ঠাকুরগাঁওয়ের হরিপুর উপজেলার ডাঙ্গীপাড়া ইউনিয়নের তালতলা গ্রামের বাসিন্দা আফিল উদ্দীন।  পাঁচ বছর আগে তিনি একটি গরু ক্রয় করেন। প্রাকৃতিক খাবার ও ফলমূল খাওয়ানোর পর গরুটি এখন বিশাল আকারের হয়েছে। নাম রাখা হয়েছে বিগবস। এটির ওজন ১ হাজার ৫৫০ কেজি। 

আসন্ন কোরবানির ঈদে গরুটি বিক্রির জন্য প্রস্তুত করেছেন আফিল। দাম হাঁকছেন ৩৫ লাখ টাকা। গরুটি ক্রয় করলে উপহার হিসেবে দেওয়া হবে একটি পালসার মোটরসাইকেল।

বিশাল এই গরুটি নিয়ে আলোচনা শুরু হয়েছে এলাকাজুড়ে। প্রতিনিয়ত গরুটি দেখার জন্য আফিল উদ্দীনের বাড়িতে ভিড় করছে উৎসুক জনতা। জেলার বাইরে থেকেও অনেক মানুষ গরুটি এক পলক দেখার জন্য ভিড় জমাচ্ছে তার বাসায়। ঢাকাসহ বিভিন্ন জেলা থেকেও গরুটি কেনার জন্য ছুটে আসছেন অনেকে। তবে দামে না মেলায় কিনতে পারছেন না তারা। 

গরুটি দেখতে আসা রাণীশংকৈল উপজেলার মাহবুব আলম বলেন, আমি কিছুদিন আগে শুনেছি  হাতির মতো দেখতে গরু আছে। তাই আজকে নিজেই দেখতে আসলাম। আসলেই বিশাল আকৃতির এটা। এত বড় গরু আমি এর আগে কখনো দেখিনি। গরুটি রুম থেকে বাইরে নিয়ে আসতে ২০-২৫ জন লোক লাগছে

প্রতিবেশী ইমরান হোসেন বলেন, আফিল গরুটির জন্য অনেক পরিশ্রম করেছেন। আমরা দেখেছি দুই তিনজন মানুষ দিয়ে হতো না। গরুটার পেছনে ওদের পরিবারের সবাই শ্রম দিয়েছে। তার ফল হিসেবে তারা এমন একটি গরু তৈরি করতে পেরেছে। আশা করছি কোরবানির ঈদে ভালো দামে বিক্রি করতে পারবেন। 

গরুটি কিনতে আসা ব্যবসায়ী জাকির আহমেদ বলেন, আমি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে গরুটি সম্পর্কে জানতে পারি। তারপরে এখানে গরুটি ক্রয় করার জন্য আসি। মালিক অনেক বেশি দাম চাওয়ায় আমি নিতে পারিনি। তবে গরুটি অনেক ভালো লেগেছে। নাম যেমন বিগবস, তেমনি দেখতেও।  

গরুর মালিক আফিল উদ্দিন বলেন, আমি কোনো গরু ব্যবসায়ী নই। শখের বসে এলএলসি জাতের গরুটি ক্রয় করেছিলাম এক বছর বয়সে। তারপর এটির পেছনে পাঁচ বছর সময় দিয়েছি। গরুকে মোটাতাজা করার জন্য কোনো প্রকার ওষুধ ব্যবহার করিনি। বিগবসকে খেসারির ডাল, ভুসি, ছোলা, মসুর ডাল ও খুদ খাওয়ানো হয়েছে। আর রাতে আপেল, কলা ও আঙ্গুর খাওয়ানো হয়। এতে গড়ে আমার প্রতিদিন দুই হাজারের বেশি টাকা খরচ হয় তার পেছনে। তার চাল-চলনে নাম রেখেছি বিগবস। প্রতিদিন পাঁচ-সাতশ মানুষ আসেন বিগবসকে দেখতে। এই কোরবানির ঈদে বিগবসকে বিক্রি করব। দাম ৩৫ লাখ টাকা। আর যিনি কিনবেন তার জন্য উপহার হিসেবে দেওয়া হবে একটি পালসার মোটরসাইকেল। এখন পর্যন্ত এটির দাম ২২ লাখ টাকা উঠেছে।  

হরিপুর উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. আবু কায়েস বিন আজিজ বলেন, বিগবস গরুটি আমাদের জেলার মধ্যে সবচেয়ে বড় আকৃতির ও বেশি ওজনের গরু। আমরা আমাদের পক্ষ থেকে প্রায়ই সেটির খোঁজখবর নিই। কোনো কিছুর প্রয়োজন হলে বা পরামর্শ লাগলে গরুর মালিক আমাদের সঙ্গে যোগাযোগ করেন। 

Place your advertisement here
Place your advertisement here