• শুক্রবার   ১২ আগস্ট ২০২২ ||

  • শ্রাবণ ২৮ ১৪২৯

  • || ১৩ মুহররম ১৪৪৪

Find us in facebook
সর্বশেষ:
ছুটির দিনে গ্রামের বাড়ি গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জাতীয় শোক দিবসে নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তা নিশ্চিত করা হবে: আইজিপি বাংলাদেশে প্রয়োজনীয় পরিমাণ গম রফতানির আগ্রহ প্রকাশ করেছে রাশিয়া বিদ্যুৎ সাশ্রয়ের লক্ষ্যে শিল্প-কারখানায় এলাকাভেদে সাপ্তাহিক ছুটি বাংলাদেশে বিনিয়োগে আগ্রহী মার্কিন কোম্পানি: খালিদ মাহমুদ চৌধুরী

কুড়িগ্রামে বৃষ্টিতে ডুবে গেছে স্কুল মাঠ, ভোগান্তিতে ছাত্রছাত্রীরা

– দৈনিক রংপুর নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ৬ জুন ২০২২  

Find us in facebook

Find us in facebook

কুড়িগ্রামে গত দুদিন ধরে থেমে থেমে চলছে বৃষ্টিপাত। রবিবার (৫ জুন) ও সোমবার (৬ জুন) গত ৭২ ঘণ্টায় জেলায় মোট ১৪৫ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হলেও সোমবার ২৪ ঘণ্টায় রেকর্ড করা হয়েছে ১২০ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত। যাকে অতিভারী বৃষ্টিপাত বলা হয় বলে জানিয়েছেন রাজারহাট আবহাওয়া পর্যবেক্ষণাগার অফিস।

এদিকে জেলা জুড়ে টানা দুদিন বৃষ্টিপাতের ফলে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের মাঠ, কাচা, পাকা সড়ক ও নিম্নাঞ্চলগুলিতে তৈরী হয়েছে জলাবদ্ধতা। ফলে ছাত্র-ছাত্রীসহ মানুষজনদের ভোগান্তি নিয়ে চলতে দেখা গেছে।

জেলার রৌমারী উপজেলার চরশৌলমারী বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী আলামিন, ফাতেমা ও সালমা জানান, টানা দুদিনের বৃষ্টিপাতে আমাদের স্কুলের মাঠ ডুবে গেছে। ফলে আমাদের বাধ্য হয়ে হাঁটু পানিতে নেমে ক্লাশে যেতে হচ্ছে। মাঠ ডুবে যাওয়ায় আমাদের খেলাধুলাও বন্ধ হয়ে গেছে।

চরশৌলমারী এলাকার বাসিন্দা রিপন জানান, চরশৌলমারী বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের মাঠটি প্রতিবছরের বর্ষা মৌসুমে ডুবে যায়। এতে করে শিক্ষার্থীর নানা দুর্ভোগের শিকার হোন।

একই পরিস্থিতি চর রাজিবপুর উপজেলার বাজার সংলগ্ন অবস্থিত রাজীবপুর সরকারি পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়েরও। এ বিদ্যালয়টির মাঠও বৃষ্টির পানিতে ডুবে যাওয়ায় এখানকার শিক্ষার্থীরাও ভোগান্তি শ্রেণিকক্ষে যাচ্ছে।

স্থানীয় সুজন মাহমুদ জানান, রাজীবপুর সরকারি পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়টি উপজেলার প্রাণকেন্দ্রে অবস্থিত হওয়ায় স্কুলটি শিক্ষার্থীদের কাছে প্রিয়। কিন্তু স্কুলটির মাঠ নীচু হওয়ায় প্রতিবছর বর্ষা মৌসুমে অাশপাশের পানি গড়িয়ে এসে স্কুলটির মাঠ ডুবে যায়। এর ফলে শিক্ষার্থীদের নানা দূর্ভোগের শিকার হতে হয়।

রাজারহাট আবহাওয়া পর্যবেক্ষণাগারের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সবুর হোসেন বলেন, আগামী ২৪ ঘণ্টায় রংপুর বিভাগের কিছু কিছু স্থানে মাঝারি থেকে ভারী বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে। এতে করে জেলার চরাঞ্চল ও নিম্নাঞ্চলগুলো বৃষ্টির পানি দ্বারা প্লাবিত হতে পারে।

Place your advertisement here
Place your advertisement here