• শুক্রবার   ১৯ আগস্ট ২০২২ ||

  • ভাদ্র ৩ ১৪২৯

  • || ২০ মুহররম ১৪৪৪

Find us in facebook
সর্বশেষ:
আমাদের বিচার চাইতেও বাধা দেওয়া হয়েছে: প্রধানমন্ত্রী ত্রিভুজ প্রেমের কারণে জীবন দিতে হলো সানজিদাকে: পুলিশ জামানতবিহীন গুচ্ছভিত্তিক ঋণ দেওয়ার নির্দেশ একদিনে ৮ কোটি ডলার বিক্রি করল বাংলাদেশ ব্যাংক কমতে পারে জ্বালানি তেলের দাম

গঙ্গাচড়ায় পরিত্যাক্ত ভবন থেকে নারীর মরদেহ উদ্ধার 

– দৈনিক রংপুর নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ২০ ফেব্রুয়ারি ২০২২  

Find us in facebook

Find us in facebook

রংপুরের গঙ্গাচড়ায় পরিত্যাক্ত একটি ভবন থেকে নিখোঁজের পাঁচ দিন পর আহেলা বেগম (৩২) নামে এক নারীর ক্ষত বিক্ষত মরদেহ উদ্ধার করেছে স্থানীয় শ্রমিকরা। আহেলা বেগম রংপুর নগরীর ৬নং ওয়ার্ডের মৃত আহাদ আলীর স্ত্রী।

রোববার (২০ ফেব্রুয়ারি) সকাল ৭টার দিকে বুড়িরহাট কৃষি গবেষণা কেন্দ্রের পরিত্যাক্ত ভবন থেকে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়। তিন ব্যাংক থেকে ডিপিএস এর টাকা উত্তোলনের পর থেকে তিনি নিখোঁজ ছিলেন বলে জানা গেছে।

প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশ জানায়, আহেলা বেগম স্থানীয় জুট মিলে চাকরী করার সুবাদে কৃষি গবেষনা কেন্দ্রের পাশেই চ্যাংমারী এলাকার আবাসনে বসবাস করতো।

তার স্বামী মারা যাওয়ার পর থেকে ওখানে ছিলেন তিনি। তার একমাত্র সন্তান রায়হান (১৭) ঢাকায় চাকরি করে।

আহেলা বেগম পুবালী ব্যাংক জাহাজ কোম্পানী মোড় শাখায় মাসিক ১০ হাজার টাকায় একটি ডিপিএস খোলেন। এদিকে কৃষি গবেষনা কেন্দ্রের কৃষি ফার্ম শ্রমিক সমিতির সভাপতি শহিদুল ইসলাম সাইদুলের সাথে পরিচয়ের সুবাদে তার মাধ্যমেও ব্যাংকে টাকা পাঠাতেন এবং ব্যাংকের সকল কাগজপত্রাদি তার কাছে জমা রাখতেন। জমি কেনার কথা বলে গত বুধবার ব্যাংকের সকল টাকা উত্তোলনের জন্য কর্মস্থল থেকে ছুটি নিয়ে আবাসনের বাড়ি থেকে বের হয়ে আসেন আহেলা। তারপর থেকে আর খোঁজ মেলেনি। রোববার দুপুরে খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ মরদেহটি উদ্ধার করেন।

এ ঘটনার আহেলার বড় ভাই বড় গতকাল শনিবার গঙ্গাচড়া থানায় সাধারণ ডায়েরি(জিডি) করেন।

গঙ্গাচড়া মডেল থানার ওসি সুশান্ত কুমার সরকার জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে থেকে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়েছে।

Place your advertisement here
Place your advertisement here