• শুক্রবার   ১৯ আগস্ট ২০২২ ||

  • ভাদ্র ৩ ১৪২৯

  • || ২০ মুহররম ১৪৪৪

Find us in facebook
সর্বশেষ:
আমাদের বিচার চাইতেও বাধা দেওয়া হয়েছে: প্রধানমন্ত্রী ত্রিভুজ প্রেমের কারণে জীবন দিতে হলো সানজিদাকে: পুলিশ জামানতবিহীন গুচ্ছভিত্তিক ঋণ দেওয়ার নির্দেশ একদিনে ৮ কোটি ডলার বিক্রি করল বাংলাদেশ ব্যাংক কমতে পারে জ্বালানি তেলের দাম

বাদল দিনে সুন্দর চুল  

– দৈনিক রংপুর নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ১৬ জুন ২০২২  

Find us in facebook

Find us in facebook

বর্ষায় চুল পড়া একটি সাধারণ সমস্যা। তৈলাক্ত স্ক্যাল্পের কারণে চুল খুব সহজেই তেলতেলে হয়ে যায়। এর থেকে পরিত্রাণ পেতে প্রতিদিন শ্যাম্পু করলে চুল হয়ে পড়ে শুষ্ক, যা স্বাস্থ্যোজ্জ্বল চুলের অন্যতম অন্তরায়। অন্যদিকে অহরহ হিটিং টুলসের ব্যবহার ও নিয়মিত অযত্নে বর্ষায় চুলের দশা হয় শোচনীয়। এমন বৃষ্টির মৌসুমে স্বাস্থ্যোজ্জ্বল সুন্দর চুল পেতে কী করবেন, জেনে নিন।

চুল প্রাণহীন হওয়ার পেছনে মূল কারণ হলো, হেয়ার স্টাইলিং করতে গিয়ে অযথা বিভিন্ন প্রোডাক্ট ও টুলসের ব্যবহার। কালার, ডাই, ব্লিচ কিংবা স্ট্রেটনিং ও ওয়েভিং—এসবের জন্য যে ধরণের প্রোডাক্ট ব্যবহার করা হয়, তাতে প্রচুর পরিমাণে কেমিক্যাল থাকে যা  স্বাস্থ্যোজ্জ্বল চুলের অন্তরায়। এছাড়া স্ট্রেটনার, ড্রায়ার ইত্যাদির অহরহ ব্যবহার তো আছেই।
এ ক্ষেত্রে একভাগ ক্যাস্টর অয়েল এবং দুইভাগ নারকেল তেল মিশিয়ে সামান্য গরম করে চুলের ডগায় লাগাতে পারেন। গরম পানিতে তোয়ালে ডুবিয়ে নিয়ে অতিরিক্ত পানি নিংড়ে তা চুলে জড়িয়ে রাখুন। মিনিট পাঁচেক রেখে আবার গরম পানিতে তোয়ালে ভিজিয়ে নিন। একই পদ্ধতি ৩ থেকে ৪ বার রিপিট করুন।

চুলে যে ধরণের প্রসাধনী ব্যবহার করেন না কেন, খুব জোরে ম্যাসাজ করবেন না। আঙ্গুলের ডগা দিয়ে আলতো করে ম্যাসাজ করুন। এতে চুলের গোড়ায় রক্ত সঞ্চালন ভালো হবে। সারারাত এভাবে রেখে পরদিন মাইল্ড হারবাল শ্যাম্পু ব্যবহার করে চুল ধুয়ে নিন। গরম পানিতে চুল ধোওয়ার অভ্যাস থাকলে তা আজই বদলে ফেলুন।

একটা ডিমের সঙ্গে এক চা-চামচ করে ভিনিগার ও মধু মিশিয়ে স্ক্যাল্পে লাগান। আধঘণ্টা রেখে চুল ধুয়ে ফেলুন। অথবা টক দই এবং ডিম একসঙ্গে ফেটিয়েও চুলে লাগাতে পারেন। এতে চুলে ভলিউম আসবে। জবাফুল এবং মেহেদি একসঙ্গে বেটে চুলে লাগাতে পারেন। এতে চুল ভালো থাকবে।

চুল এবং স্ক্যাল্প উভয়ই যদি তৈলাক্ত প্রকৃতির হয়, সেক্ষেত্রে প্রতিদিন শ্যাম্পু করলেই হবে না, সেই সঙ্গে প্রতিবারই কন্ডিশনারও ব্যবহার করা প্রয়োজন। আপনার চুলের ধরন অনুযায়ী, আপনিও চাইলে প্রতিদিন শ্যাম্পু করতে পারেন। তবে মাইল্ড হারবাল শ্যাম্পু ব্যবহার করলে ভালো। অল্প পরিমাণে শ্যাম্পু নিয়ে তা সামান্য পানিতে মিশিয়ে পাতলা করে চুলে লাগান। চুল ধুয়ে কন্ডিশনার ও হেয়ার সিরাম ব্যবহার করবেন।

Place your advertisement here
Place your advertisement here