• শনিবার   ০৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ ||

  • মাঘ ২১ ১৪২৯

  • || ১২ রজব ১৪৪৪

Find us in facebook
সর্বশেষ:
সমতার ভিত্তিতে সমাজ বিনির্মাণের স্বপ্ন দেখিয়েছিলেন নজরুল- প্রধানমন্ত্রী কৃষি উৎপাদন অব্যাহত রাখতে সার, বীজের দাম বাড়ানো হবে না সমতার ভিত্তিতে সমাজ বিনির্মাণের স্বপ্ন দেখিয়েছিলেন নজরুল দুর্বল হয়ে লঘুচাপে পরিণত হয়েছে নিম্নচাপ স্মার্ট নাগরিক গড়তে কাজ করে যাচ্ছি: শিক্ষামন্ত্রী

দেশি নয়, ফার্মের মুরগির ডিমেই পুষ্টি বেশি

– দৈনিক রংপুর নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ১৬ জানুয়ারি ২০২৩  

Find us in facebook

Find us in facebook

ডিম খাওয়ার কথা যখন আসে, তখন প্রথমেই আমাদের মাথায় আসে—ফার্মের নাকি দেশি? অনেক বাবা-মাই তাদের সন্তানদের দেশি মুরগির ডিম ছাড়া খাওয়াতে চান না। ভাবেন যেহেতু দেশি মুরগির ডিমের কুসুম লাল বেশি, সেহেতু পুষ্টিও বেশি। কিন্তু বাস্তবতা ভিন্ন।

ফার্মের মুরগির ডিমের কুসুম কিছুটা হালকা হলুদ হওয়ার কারণ, এই ডিমে সরাসরি ভিটামিন এ-এর উপস্থিতি। ফার্মের মুরগির জন্য বাজারে বিভিন্ন ভিটামিনের সঙ্গে ভিটামিন এ ট্যাবলেট কিনতে পাওয়া যায়। ফলে সরাসরি ভিটামিন খাওয়ার ফলে ডিমে ভিটামিনের পরিমাণ বেশি থাকে।

এছাড়া ক্যালরির বিষয় বিবেচনায়ও ফার্মের মুরগির ডিম এগিয়ে রয়েছে। একটি দেশি মুরগির ডিমে রয়েছে ৫০ মিলিগ্রাম ক্যালরি। অন্যদিকে একটি ফার্মের মুরগির ডিমে রয়েছে ৭০ গ্রাম ক্যালরি। এছাড়াও ভিটামিন ডি’সহ ১১ ধরনের ভিটামিন ও খনিজ থাকার জন্য বলা যেতে পারে দেশি মুরগির চেয়ে ফার্মের ডিম এগিয়ে।

ফার্মের মুরগিকে যেসব খাবার খাওয়ানো হয়, সেগুলা একেবারেই পুষ্টি সমৃদ্ধ। কিন্তু তার চেয়ে বড় কথা হচ্ছে দেশি মুরগি যেসব খাবার খায়, সেগুলো সম্পূর্ণ প্রাকৃতিক খাবার। তাই দেশি মুরগির ডিমের অন্যতম বৈশিষ্ট্য হচ্ছে এটি সম্পূর্ণ প্রাকৃতিক উপায়ে তৈরিকৃত একটি খাবার। তবে পুষ্টিগুণের দিকটা সম্পূর্ণ ভিন্ন বিষয়।

Place your advertisement here
Place your advertisement here