• রোববার   ০৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ ||

  • মাঘ ২৩ ১৪২৯

  • || ১৩ রজব ১৪৪৪

Find us in facebook
সর্বশেষ:
অভ্যন্তরীণ খাত থেকে রাজস্ব আদায়ে আরও উদ্যমী হোন: প্রধানমন্ত্রী জনপ্রিয়তা থাকলে নির্বাচনে আসুন: বিএনপিকে মির্জা আজম সবাইকে আইন অনুযায়ী রাজস্ব দেওয়ার আহ্বান রাষ্ট্রপতির মতিঝিল-কমলাপুর মেট্রোরেল লাইন নির্মাণ প্রক্রিয়া শুরু ঢাকা-ওয়াশিংটন সম্পর্ক জোরদারে সমর্থনের আশ্বাস মার্কিন সিনেটরের

বাংলাদেশি শিক্ষার্থীদের ব্যাপারে ভারত সরকার আন্তরিক: প্রণয় ভার্মা

– দৈনিক রংপুর নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ২৬ নভেম্বর ২০২২  

Find us in facebook

Find us in facebook

বাংলাদেশে নিযুক্ত ভারতের রাষ্ট্রদূত প্রণয় ভার্মা বলেছেন, ভারতে বাংলাদশের অসংখ্য শিক্ষার্থী উচ্চশিক্ষা গ্রহণ করছে। তাদের ভিসা প্রাপ্তিসহ সকল প্রয়োজন গুরুত্ব সহকারে দেখি। ভারত সরকার বাংলাদেশের শিক্ষার্থীদের বিষয়ে আন্তরিক।

গতকাল গুলশানের ওল্ড ইন্ডিয়া হাউজে ভারতে উচ্চশিক্ষা গ্রহণকারী প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের পুনর্মিলনী অনুষ্ঠানে তিনি এসব মন্তব্য করেন।

ভারতীয় হাই কমিশনের সহযোগিতায় অনুষ্ঠানটি আয়োজন করে ভারতে উচ্চশিক্ষা গ্রহণকারী প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের সংগঠন মৈত্রী।
অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রণয় ভার্মা বলেন, 'মহামারির বিরতির পর আবারও বাংলাদেশের শিক্ষার্থীরা উচ্চশিক্ষার জন্য ভারতে যাচ্ছে। তারা ভারত ও বাংলাদেশের সম্পর্কে নতুন সেতু যুক্ত করেছে। তাদের মাধ্যমে বাংলাদেশের উন্নতি ও সম্ভাবনার বিষয়গুলো সম্পর্কে ভারতীয়রা অবগত হচ্ছেন। '

তিনি আরো বলেন, 'ভারত-বাংলাদেশের সম্পর্ক দ্বিপাক্ষিক কূটনীতিকে ছাপিয়ে দুইদেশের জনগণের সম্পর্কে পরিণত হয়েছে। দুই দেশের হৃদ্যতার সম্পর্ক উন্নত করার লক্ষে ভারত সরকার পর্যটনসহ নানা খাতে নতুন উদ্যোগ গ্রহণ করেছে। '

৬ ডিসেম্বর পালিত মৈত্রী দিবস দুই দেশের সহযোগিতাকে আরো দৃঢ় করেছে বলে মন্তব্য করেন বাংলাদেশে নিযুক্ত ভারতের রাষ্ট্রদূত। তিনি বলেন, 'আমরা ৬ ডিসেম্বর মৈত্রী দিবস পালন করি। এটি আমাদের প্রতিজ্ঞা ও প্রতিশ্রুতিকে আরো দৃঢ় করবে। বাংলাদেশ ও ভারতের সম্পর্কের শেকড় মুক্তিযুদ্ধ। '

মৈত্রীর উপদেষ্টা ব্যরিস্টার তুরিন আফরোজ বলেন, ভারত আমাদের পরম বন্ধু, মুক্তিযুদ্ধে ভারতীয় যোদ্ধাদের আত্মত্যাগ অবিস্মরণীয়। আন্তর্জাতিক রীতিনীতি অনুযায়ী আমাদের স্বাধীনতার জন্য কোনো দেশের সমর্থন প্রয়োজন ছিল, ভারত সর্বপ্রথম দেশ হিসেবে আমাদের স্বাধীনতার প্রতি সমর্থন জ্ঞাপন করে।

পুর্নমিলনী অনুষ্ঠানে আলোচনা পর্ব শেষে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক পরিবেশনা অনুষ্ঠিত হয়।

২০১৭ সালের ৩০ নভেম্বর ভারতে উচ্চশিক্ষা গ্রহণ করা বাংলাদেশি শিক্ষার্থীরা মৈত্রী সংগঠন গঠন করেন। বাংলাদেশে নিযুক্ত তৎকালীন ভারতীয় রাষ্ট্রদূত সংগঠনটির উদ্ধোধন ঘোষণা করে। দুই দেশে সংস্কৃতি, জ্ঞান ও সহযোগিতা আদান-প্রদানের পাশাপাশি সংগঠনটি নানা অনুষ্ঠানের আয়োজন করে থাকে। এরমধ্যে ইন্দো-বাংলা ফিল্ম ফেস্টিভ্যাল, নারীবিষয়ক চলচিত্র প্রদর্শনী উইমেন মুভি মার্চ উল্লেখযোগ্য।  

Place your advertisement here
Place your advertisement here