• রোববার   ১৬ জানুয়ারি ২০২২ ||

  • মাঘ ৩ ১৪২৮

  • || ১১ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

Find us in facebook
সর্বশেষ:
বাংলাদেশকে আরো ৯৬ লাখ ফাইজার টিকা দিলো যুক্তরাষ্ট্র পীরগঞ্জে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় শিশুসহ তিন জনের মৃত্যু পরিবেশ উন্নয়নে বৃক্ষরোপণ কার্যক্রম অব্যাহত রয়েছে: পরিবেশমন্ত্রী নাসিক নির্বাচন জাতীয় পর্যায়ে উদাহরণ সৃষ্টি করবে: কৃষিমন্ত্রী ভূমি ব্যবস্থাপনাকে এসওপি’র আওতায় আনা হচ্ছে: ভূমি সচিব

মমিনুলরা বিশ্বচ্যাম্পিয়নদেরও অনুপ্রেরণা

– দৈনিক রংপুর নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ১৩ জানুয়ারি ২০২২  

Find us in facebook

Find us in facebook

১৬ জানুয়ারি সেন্ট কিটসের ওয়ার্নার পার্কে ইংল্যান্ড ম্যাচ দিয়ে শুরু হচ্ছে বাংলাদেশের যুব বিশ্বকাপ ধরে রাখার অভিযান। দূর ক্যারিবীয় দ্বীপে সেই অভিযান শুরুর আগে গতকাল ভার্চুয়ালি হওয়া আইসিসির আনুষ্ঠানিক সংবাদ সম্মেলনে এসে অধিনায়ক রাকিবুল হাসান জানালেন, বর্তমান চ্যাম্পিয়নদের বিশ্বাসের পালে বাড়তি হাওয়া দিচ্ছে নিউজিল্যান্ডে জাতীয় দলের সাফল্যও। সেই সঙ্গে বলা আরো অনেক কথার চৌম্বক অংশ এখানে...

প্রশ্ন : এশিয়া কাপ সেমিফাইনালে ভারতের কাছে হার প্রস্তুতিতে কোনো প্রভাব ফেলল কি?

রাকিবুল হাসান : হেরেছি বলে আমাদের প্রস্তুতি খারাপ হয়ে যায়নি। আমরা সব কিছু ভুলেই প্রস্তুতি নিচ্ছি। দুটো প্রস্তুতি ম্যাচও খেলেছি। আগের চেয়ে এখন বেশিই প্রস্তুত আছি।

প্রশ্ন : গ্রুপ পর্বে তো ইংল্যান্ড ছাড়া অন্য দুই প্রতিপক্ষই (কানাডা ও আরব আমিরাত) সহজ। কঠিন কোনো পরীক্ষায় পড়ারও কথা নয় তাই।

রাকিবুল : এতে কোনো সমস্যা দেখছি না। কারণ বিশ্বকাপে আসার আগে আমরা ভারতের সঙ্গে ওদের মাঠে খেলেই জিতে এসেছি। এখন শুধু নিজেদের প্রক্রিয়া ঠিক রাখা নিয়েই ভাবছি। ইংল্যান্ডের সঙ্গে প্রথম ম্যাচে ভালো করার দিকেই এখন যত নজর।

প্রশ্ন : এখন পর্যন্ত একমাত্র পাকিস্তানই টানা দুটো যুব বিশ্বকাপ জিতেছে। আপনারা শিরোপা ধরে রাখার বিষয়ে কতটা আশাবাদী?

রাকিবুল : দেখুন, সব দলই জেতার জন্য আসে। সবারই পরিকল্পনা থাকে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার। গত বিশ্বকাপেও আমাদের একই লক্ষ্য ছিল। প্রস্তুতি, প্রক্রিয়া ও পরিকল্পনা সফল হওয়ায় আমরা চ্যাম্পিয়নও হয়েছিলাম। এবার কভিডের কারণে সেভাবে প্রস্তুতি নিতে পারিনি। অবশ্য প্রস্তুতির ঘাটতি বাকি সব দলেরই আছে। তবু যতটা প্রস্তুতি নিয়েছি, আমি বলব তা সম্ভাব্য সেরাই।

প্রশ্ন : আগেরবার ছিলেন বিশ্বজয়ী দলের অপরিহার্য সদস্য। এবার অধিনায়ক হিসেবে সতীর্থদের কাছে গতবারের সাফল্যের কোন বিশেষ দিকটি তুলে ধরছেন?

রাকিবুল : গতবারের দলের আমিসহ কয়েকজনই আছি। আমরা বাকিদের কাছে দলগত সাফল্যের দিকটিই তুলে ধরছি। আমরা ওদের বোঝাচ্ছি, দল হয়ে খেললে যেকোনো ম্যাচে ফল আসবেই। একেক ম্যাচে যেন প্রয়োজনে একেকজন দাঁড়িয়ে যায়। যার দাঁড়ানোর দরকার, সে যেন দলের জন্য তাঁর দায়িত্বটি পালন করে।

প্রশ্ন : অধিনায়ক হিসেবে এবার বাড়তি কোনো চাপ অনুভব করছেন কি?

রাকিবুল : চাপ তো থাকেই। এটি নিয়ে ভাবলে চাপ আরো বাড়বেই। তাই প্রথম ম্যাচটি কিভাবে জিতব, তা নিয়েই ভাবছি বেশি। হাতে তিন দিনের মতো সময়ও আছে। অবশ্যই আমরা বর্তমান চ্যাম্পিয়ন। তাই বলে এখনই গ্রুপ পর্বের বাইরে কিছু ভাবছি না। গ্রুপ পর্ব পেরিয়ে কিভাবে পরের রাউন্ডে যেতে পারি, তা নিয়েই যত চিন্তা। 

প্রশ্ন : জাতীয় দলের নিউজিল্যান্ডে টেস্ট জেতার সাফল্য নিশ্চয়ই আপনাদেরও অনুপ্রাণিত করছে?

রাকিবুল : সিনিয়র দলের নিউজিল্যান্ডে ভালো করাটা অবশ্যই আমাদের এই আসরে ভালো করার অনুপ্রেরণা জোগাবে। আশা করি, আমরাও তাঁদের মতো ভালো কিছুই করব। এই জয়টি আমরা সেলিব্রেটও করেছি এখানে। সিনিয়ররা যখন নিউজিল্যান্ডের মতো জায়গায় গিয়ে জিততে পেরেছে, তখন আমাদেরও কঠিন কন্ডিশনে ভালো করা উচিত বলে মনে করছি আমরা।

প্রশ্ন : এবারের আসর আপনার জন্য কঠিন নাকি আগেরবার বিশ্বকাপ জেতার অভিজ্ঞতার কারণে সহজ?

রাকিবুল : গতবার ছিলাম শুধুই খেলোয়াড়। এবার আমি অভিজ্ঞ এবং নেতৃত্বও পেয়েছি। নেতৃত্ব উপভোগও করছি তবে বাড়তি দায়িত্বও আছে, চ্যালেঞ্জও আছে। তবে আমি সব সময়ই চ্যালেঞ্জ নিতে ভালোবাসি।

প্রশ্ন : গতবারের সঙ্গে এই দলের পার্থক্য কোথায়?

রাকিবুল : এবার দলে বেশ কয়েকজন অলরাউন্ডার আছে। গতবার এই জায়গাতেই কিছুটা ঘাটতি ছিল আমাদের। তবু আমরা চ্যাম্পিয়ন হয়েছিলাম। এবার তুলনায় ভালো এবং ভারসাম্যপূর্ণ একটি দল আমাদের।

প্রশ্ন : সেন্ট কিটসের উইকেট ও কন্ডিশন কেমন?

রাকিবুল : দক্ষিণ আফ্রিকার মতো এখানেও স্পোর্টিং উইকেটই। যেটা আমাদের জন্য ভালো, সেরকমই।

প্রশ্ন : ধাপে ধাপে এগোনোর কথা বলেছেন যদিও। তবু জানতে চাই বর্তমান চ্যাম্পিয়ন হিসেবে সত্যিই কি দূরের কোনো লক্ষ্য স্থির করেননি?

রাকিবুল : আমাদের লক্ষ্য আগে সেমিফাইনাল পর্যন্ত যাওয়ার। এর আগে ম্যাচ ধরে ধরে এগোতে চাই।

Place your advertisement here
Place your advertisement here