• সোমবার ১৭ জুন ২০২৪ ||

  • আষাঢ় ২ ১৪৩১

  • || ০৯ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

Find us in facebook

যে ৫ ঘরোয়া টোটকায় শুকনো কাশি থেকে আরাম মিলবে

– দৈনিক রংপুর নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ৩১ জুলাই ২০২৩  

Find us in facebook

Find us in facebook

হঠাৎ বৃষ্টি ও ভ্যাপসা গরমে ঠান্ডা জ্বর যেমন বাড়ছে, তেমন পাল্লা দিয়ে বেড়ে চলেছে শুকনো কাশিও। কথা বলতে গেলেই গলা সুড়সুড় করছে। রাতে শোয়ার সময়ে কাশির আরও দাপট বাড়ছে। চিকিৎসকেরা বলছেন, আবহাওয়া পরিবর্তনের সময়ে, বৃষ্টিতে ভিজে ঘরে প্রায় সব বাড়িতেই কাশির প্রকোপ বাড়ছে। কাশির দাপট কমাতে কেউ গরম পানিতে গার্গল করেন, কেউ আবার সিরাপ খান। তাতে কাশি সাময়িক নিয়ন্ত্রণে থাকলেও সারা দিন ঘুমের রেশ থেকে যেতে পারে। যার প্রভাব পড়ে কাজের উপর। তাই ওষুধের পাশাপাশি ভরসা করা যেতে পারে ঘরোয়া কিছু টোটকার উপরে।

মধু
শুকনো কাশিতে মধু উপকারী‌। ছোট থেকে বড় সকলের জন্যই কার্যকর এটি। এক টেবিল চামচ মধু সারা দিনে তিন থেকে চার বার খেতে পারেন। আবার কখনও উষ্ণ গরম পানি কিংবা চায়ের সঙ্গে মিশিয়েও মধু খাওয়া যেতে পারে।

রসুন
রসুনে অ্যালিসিন নামে একটি যৌগ থাকে, যা অ্যান্টিমাইক্রোবিয়াল যৌগ হিসাবে পরিচিত। রসুন চিবিয়ে খেলে অ্যালিসিন সক্রিয় হয়। এগুলি শ্বেত রক্তকণিকার ক্ষমতা বাড়িয়ে দেয়, ফলে সাধারণ সর্দি-কাশি যে ভাইরাসের জন্য হয়, সেগুলির বিরুদ্ধে প্রতিরোধ ক্ষমতা গড়ে ওঠে। তাই প্রতি দিন একটি করে রসুনের কোয়া খেতে পারলে সর্দি-কাশি থেকে রক্ষা পেতে পারেন।

তুলসী পাতা
তুলসী পাতার রস শ্বাসযন্ত্রের যে কোনও সমস্যা মেটাতে ম্যাজিকের মতো কাজ করে। এই পাতার অ্যান্টিমাইক্রোবায়াল যৌগ শুকনো কাশি কমাতে সাহায্য করে। মধুর সঙ্গে কয়েকটি তুলসী পাতা এমনি চিবিয়ে খেতে পারেন। না হলে তুলসী পাতার রস বার করে, তার মধ্যে মধু মিশিয়েও খাওয়া যেতে পারে।

আদা
গলায় খুসখুসে ভাব দূর করতে আদা দারুন কাজ করে। ২ কাপ পানিতে কিছুটা আদা কুচি দিয়ে ফুটিয়ে নিয়ে এর সঙ্গে সামান্য মধু মিশিয়ে খেলেই গলার খুসখুসে ভাব থেকে মুক্তি পাওয়া যায়। আদা-মধুর অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল ও অ্যান্টি ইনফ্ল্যামেটরি উপাদান গলার গ্ল্যান্ড ফুলে যাওয়া কমায় এবং ব্যাকটেরিয়ার সংক্রমণ ঠেকাতে সাহায্য করে। পাশাপাশি, আদা দিয়ে পানি ফুটিয়ে, সেই পানি দিয়ে গার্গল করতে পারলেও উপকার মিলবে। গার্গল করার আধ ঘণ্টা আগে ও পরে কোন খাবার খাবেন না এবং কম কথা বলবেন । তা হলে অবশ্যই উপকার মিলবে।

হলুদ
হলুদের মধ্যে রয়েছে ভিটামিন, খনিজ লবণ, ফসফরাস, ক্যালশিয়াম, লোহা প্রভৃতি যৌগ। তাই হলুদ খেলে শরীরে রোগ প্রতিরোধের ক্ষমতা বৃদ্ধি পায়। শুকনো কাশির জন্য হলুদ খুব কার্যকরী। এক কাপ দুধের মধ্যে ১ চা চামচ হলুদ মিশিয়ে রাতে ঘুমোতে যাওয়ার আগে খেতে পারেন। শুকনো কাশি কমাতে হলে হলুদের রস খেয়ে নিন কয়েক চামচ।

Place your advertisement here
Place your advertisement here