• শনিবার ২০ এপ্রিল ২০২৪ ||

  • বৈশাখ ৭ ১৪৩১

  • || ১০ শাওয়াল ১৪৪৫

Find us in facebook
সর্বশেষ:
বাংলাদেশের জাতীয় পতাকার অন্যতম নকশাকার বীর মুক্তিযোদ্ধা শিব নারায়ণ দাস, আজ ৭৮ বছর বয়সে মৃত্যুবরণ করেছেন। বন্যায় দুবাই এবং ওমানে বাংলাদেশীসহ ২১ জনের মৃত্যু। আন্তর্জাতিক বাজারে আবারও বাড়ল জ্বালানি তেল ও স্বর্ণের দাম। ইসরায়েলের হামলার পর প্রধান দুটি বিমানবন্দরে ফ্লাইট চলাচল শুরু। ইসরায়েল পাল্টা হামলা চালিয়েছে ইরানে।

সঙ্গীকে ভালো লাগছে না, তবুও কেন একসঙ্গে থাকা?

– দৈনিক রংপুর নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ২৯ মার্চ ২০২৪  

Find us in facebook

Find us in facebook

ভালো লাগা থেকে শুরু হয় ভালোবাসা। আর এ ভালোবাসা থেকে শুরু হয় একসঙ্গে থাকা। তবে একসঙ্গে থাকা শুরু হলেও অনেক সময় সেই মধুর ভালোবাসা ফুরিয়ে যায় একে অন্যের কাছ থেকে!

কিন্তু সেই আগের মতো ভালোবাসার টান না থাকা সত্ত্বেও অনেক নারী-পুরুষ একসঙ্গে থাকাকেই বেছে নেন। অনেকে স্বাদহীন সম্পর্কে ভেতরে ভেতরে হাঁপিয়ে উঠলেও, যৌথ জীবনের ইতি ঘটাতে চান না। কখনো স্বাচ্ছন্দ্য হারানোর ভয়, কখনো নতুনত্বের ভয়ে তারা পুরোনোকেই আঁকড়ে ধরে থাকতে চান।

এ ধরনের যুগল জীবন বয়ে বেড়ানোর পেছনে অবশ্য আরো কিছু কারণ থাকতে পারে। কয়েকটি কারণ এখানে তুলে ধরা হলো।

(১) অভ্যস্ত হয়ে যায়: অনেক সময় ভালোবাসা না থাকলেও অভ্যাসের খাতিরে পুরোনো সম্পর্ক টিকিয়ে রাখতে চায়। এটিকে পুরোনো আরামদায়ক সোয়েটারের সঙ্গে তুলনা করা যেতে পারে, যা সময়ের সঙ্গে আরো বেশি পরিচিত আর স্বাচ্ছন্দ্যময় হয়ে উঠেছে! আরাম আর স্বাচ্ছন্দ্যের বলয় থেকে তখন কোনো নারী-পুরুষই বের হতে চায় না।

(২) সঙ্গী যখন আকর্ষণীয়: শারীরিক আকর্ষণ বেশ শক্তিশালী প্রভাবক। এ ক্ষেত্রে সঙ্গীর জন্য কোনো আবেগ কাজ না করলেও এমন সঙ্গীকে ছাড়তে চায় না, যাকে দেখলেই মাথা ঘুরে যায়! মানসিক সংযোগ না থাকলেও সঙ্গীকে তারা ট্রফির মতো বিবেচনা করে। যখন বিশ্বাস করে, সে কখনই বর্তমান সঙ্গীর মতো শারীরিকভাবে আকর্ষণীয় ও ব্যক্তিত্বসম্পন্ন কাউকে খুঁজে পাবে না, তখন ভালোবাসা তাদের কাছে গুরুত্বহীন হয়ে পড়ে।

(৩) সঙ্গীটির আরো ভালো কাউকে পাওয়ার ভয়: ভয় কখনো কখনো জেদে রূপ নিতে পারে। প্রেমে হাবুডুবু না খেলেও সঙ্গীকে যেতে দিলে সে আরো ভালো কাউকে পাবে—এই ভয় থেকেও অনেকে সঙ্গীকে ছাড়তে চায় না। বিষয়টা কিছুটা এমন—পরের চাকরি আরো খারাপ হতে পারে ভেবে অপছন্দের কোনো চাকরিতে লেগে থাকা!

(৪) পারিবারিক চাপ: পরিবারের চাপে অনেকে সঙ্গীর সঙ্গে থাকতে বাধ্য হয়। আর এমন সময় মন হয়তো বলতে পারে, ‘সে আমার জন্য নয়’, কিন্তু পরিবারের চাপে তারা তা প্রকাশ করতে পারে না। পারিবারিক প্রত্যাশা ও ব্যক্তিগত খুশির মধ্যে কোনটি বেছে নেবে তা নিয়ে দোটানায় ভুগতে থাকে।

(৫) একাকিত্বের ভয়: একা হয়ে যাওয়ার চিন্তা অনেকের জন্য ভয়ানক হয়। সন্ধ্যায় বা ছুটির দিনে একা একা লাগবে—এই ভয়েই তারা সঙ্গীকে ছাড়তে চায় না। তাদের কাছে কেউই না থাকার চেয়ে একজন থাকাকে ভালো মনে হয়।

(৬) নতুনকে ভয়: আবার নতুন করে জানাশোনা আর প্রেম শুরু করা অনেকের কাছেই ঝামেলা মনে হয়। ফের অনিশ্চয়তার মধ্যে তারা আর যেতে চায় না। অজানা ভবিষ্যৎ নারী-পুরুষ উভয়ের জন্য ভীতিকর হতে পারে। তাই সঙ্গী কাঙ্ক্ষিত না হলেও তাকে ছাড়তে চায় না অনেকে।

(৭) আদর্শ সম্পর্কের ভাবমূর্তি ধরে রাখার চেষ্টা: অনেকে সম্পর্কে ভালোবাসার জন্য নয়, বরং সবার নজরে নিখুঁত সম্পর্কের ভাবমূর্তি টিকিয়ে রাখার জন্য বিচ্ছেদের পথে হাঁটতে চায় না। নিজেদের সুখী দম্পতি হিসেবে জাহির করার জন্য তারা যেভাবেই হোক সম্পর্ক টিকিয়ে রাখতে চায়। কারণ, বিচ্ছেদ মানেই হলো, এত দিন যা বলা হয়েছে, দেখানো হয়েছে তার সবই মিথ্যা—মানুষ তো এমনটাই ভাববে!

সূত্র: থটনোভা, রেলরুলস

Place your advertisement here
Place your advertisement here