• সোমবার ১৭ জুন ২০২৪ ||

  • আষাঢ় ২ ১৪৩১

  • || ০৯ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

Find us in facebook

‘বহুমুখী পাটপণ্য উৎপাদনের প্রশিক্ষণ কেন্দ্র হবে ফরিদপুর’

– দৈনিক রংপুর নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ৪ জুন ২০২৩  

Find us in facebook

Find us in facebook

আধুনিক ও স্মার্ট বহুমুখী পাটপণ্য উৎপাদন করতে এখাতের সাথে জড়িত উদ্যোক্তাদের প্রশিক্ষণের লক্ষ্যে পাটসমৃদ্ধ জেলা ফরিদপুরে প্রশিক্ষণ কেন্দ্র প্রতিষ্ঠা করার নির্দেশ দিয়েছেন বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী। 

বহুমুখী পাটপণ্যের প্রসার বাড়াতে আরো বেশি হারে দেশে ও বিদেশে পাটপণ্যের প্রদর্শনী করার নির্দেশ দিয়ে তিনি বলেন, ‘সে দিন আর বেশি দূরে নয় সরকারের সফল উদ্যোগের ফলে বহুমুখী পাটপণ্য সবার হাতে হাতে পৌঁছে যাবে।’

আজ রবিবার ফরিদপুরের অম্বিকা মেমোরিয়াল হলে বহুমুখী পাটপণ্য বিক্রয় ও প্রদর্শনী উদ্বোধন অনুষ্ঠানে মন্ত্রী এসব কথা বলেন। 
মন্ত্রী বলেন, পাটের সাথে দেশের প্রায় ৪ কোটি মানুষ জড়িত। তাই পাটপণ্যের রপ্তানির পাশাপাশি পাটের অভ্যন্তরীণ ব্যবহার বৃদ্ধি করতে ‘পণ্যে পাটজাত মোড়কের বাধ্যতামূলক ব্যবহার আইন, ২০১০’ অনুযায়ী ১৯টি পণ্যে পাটের বস্তার সঠিক ব্যবহার, পাটের বস্তার যোগান ও দেশব্যাপী পরিচালিত অভিযান আরো জোরদার করতে পাট অধিদপ্তর ও জেলা প্রশাসনকে আন্তরিক হতে হবে। পাট মৌসুমে কাঁচাপাট পচাতে স্বচ্ছ পানির সমস্যার কথা অনুধাবন করে তিনি বলেন, দরকার হলে সরকারি জলাধার লিজ নিয়ে পাট পচাতে কৃষকদের সহযোগিতা করা হবে। 

তিনি আরো বলেন, বঙ্গবন্ধুকন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পাটজাত পণ্যকে বর্ষপণ্য-২০২৩ এবং সোনালি আঁশ পাটকে কৃষিপণ্য হিসেবে ঘোষণা করেছেন। ইতোমধ্যে কৃষি মন্ত্রণালয় প্রজ্ঞাপন জারি করেছে। প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা বাস্তবায়ন করতে পাটপণ্যকে সারাবিশ্বে ছড়িয়ে দিতে বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয় নানামুখী কর্মপরিকল্পনা প্রণয়ন ও বাস্তবায়ন কার্যক্রম শুরু করেছে। সে লক্ষ্যে পাটখাতের অংশীজনসহ বছরব্যাপী জাতীয় ও আন্তর্জাতিক পর্যায়ে বিভিন্ন প্রদর্শনী, সেমিনার, সভা ও প্রচারণামূলক কার্যক্রম গ্রহণ করা হয়েছে। দেশের প্রত্যেকটি জেলা ও বিভাগীয় শহরে পাট ও পাটজাতপণ্য প্রদর্শনী ও মেলার আয়োজন করা হচ্ছে।

পাট অধিদপ্তর ও ফরিদপুর জেলা প্রশাসনের আয়োজনে উদ্বোধন অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য দেন বস্ত্র ও পাট সচিব মো. আব্দুর রউফ, জেডিপিসির নির্বাহী পরিচালক মো. মাহমুদ হোসেন ও পাট অধিদপ্তরের মহাপরিচালক ড. সেলিনা আক্তার।

উল্লেখ্য, ৪ থেকে ৮ জুন প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত এই প্রদর্শনী চলবে। এবার মেলায় ২২টি উদ্যেক্তা প্রতিষ্ঠান অংশ নিয়েছে। তারা বহুমুখী পাটপণ্যের পসরা সাজিয়েছেন। বহুমুখী পাটপণ্যের উদ্যোক্তাগণ ২৮২ প্রকার দৃষ্টিনন্দন পাটপণ্য উৎপাদন করছেন। প্রদর্শণীতে পাটের প্রায় সব পণ্য রয়েছে।

Place your advertisement here
Place your advertisement here