• শুক্রবার   ১৯ আগস্ট ২০২২ ||

  • ভাদ্র ৩ ১৪২৯

  • || ২০ মুহররম ১৪৪৪

Find us in facebook
সর্বশেষ:
আমাদের বিচার চাইতেও বাধা দেওয়া হয়েছে: প্রধানমন্ত্রী ত্রিভুজ প্রেমের কারণে জীবন দিতে হলো সানজিদাকে: পুলিশ জামানতবিহীন গুচ্ছভিত্তিক ঋণ দেওয়ার নির্দেশ একদিনে ৮ কোটি ডলার বিক্রি করল বাংলাদেশ ব্যাংক কমতে পারে জ্বালানি তেলের দাম

বঙ্গবন্ধু টানেলে বেড়িবাঁধ নির্মাণের প্রস্তাব মন্ত্রণালয়ে

– দৈনিক রংপুর নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ৫ মে ২০২২  

Find us in facebook

Find us in facebook

চট্টগ্রামের কর্ণফুলি নদীর তলদেশ দিয়ে বঙ্গবন্ধু টানেল নির্মাণের কাজ আশি শতাংশের বেশি শেষ হয়েছে। নির্মাণকাজের এ পর্যায়ে জলোচ্ছ্বাস ও বন্যায় এ টানেলের নিরাপত্তার জন্য পতেঙ্গা প্রান্তে ১১০০ মিটার বেড়িবাঁধ নির্মাণের প্রস্তাব মন্ত্রণালয়ে পাঠিয়েছে চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ। তবে ঝুঁকি বিবেচনায় টানেলের দুই প্রান্তেই বাঁধ নির্মাণের পরামর্শ দিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা।

কর্ণফুলী নদীর তলদেশে বঙ্গবন্ধু টানেলের কাজ ইতিমধ্যে শেষ হয়েছে ৮৪ শতাংশ। টিউব খননের পর এখন চলছে রোডস্ল্যাব ও আন্ত:সংযোগের কাজ।

নির্মাণকাজের এই অগ্রগতির মধ্যেই সামনে এসেছে বড় ধরনের জলোচ্ছ্বাস হলে টানেলের দুই প্রান্তের প্রবেশমুখ প্লাবিত হওয়ার আশঙ্কার বিষয়টি। এর মধ্যে এ ঝুঁকি মোকাবিলায় পতেঙ্গা প্রান্তে এক হাজার একশ মিটার এলাকায় বেড়িবাঁধ নির্মাণ সংক্রান্ত একটি ডিপিপি মন্ত্রণালয়ে পাঠিয়েছে চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ।

তবে বিশেষজ্ঞরা বলছেন, শুধু একটি বাঁধ দিয়ে এত গুরুত্বপূর্ণ একটি প্রকল্পের দুর্যোগকালীন প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা বিবেচনা করা সঠিক হবে না। এ জন্য সাগরপাড়ে বাঁধের বাইরেও টানেলের মুখে দ্বিতীয় পর্যায়ের প্রতিরক্ষা বাঁধ রাখতে হবে। তবে টানেল কর্তৃপক্ষ বলছে, এই ধরনের বিপদ বিবেচনায় ইতিমধ্যে টানেলের মুখে ফ্লাডগেইট বসানো হয়েছে। বিপদের আঁচ পেলেই এসব দরজা বন্ধ করে টানেলের টিউবে পানি প্রবেশ বন্ধ করা যাবে।

উল্লেখ্য, ১৯৭০ ও ১৯৯১ সালে দুইটি বড় ঘূর্ণিঝড়ের সময় বর্তমান টানেল এলাকা ১০ থেকে ৩০ ফুট উচ্চতার জলোচ্ছ্বাসে প্লাবিত হয়েছিল।

Place your advertisement here
Place your advertisement here