• বৃহস্পতিবার ২০ জুন ২০২৪ ||

  • আষাঢ় ৬ ১৪৩১

  • || ১২ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

Find us in facebook

সাদুল্লাপুরে স্কুলে ঢুকে একে একে ৫ ছাত্রীকে কোপালেন এক নারী

– দৈনিক রংপুর নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ১১ জুন ২০২৪  

Find us in facebook

Find us in facebook

গাইবান্ধার সাদুল্লাপুর উপজেলার জামালপুর বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের ৫ শিক্ষার্থীকে ধারালো ছুরি দিয়ে কুপিয়ে জখম করেছে জান্নাতি আক্তার (২১) নামের এক নারী। মঙ্গলবার (১১ জুন) বেলা ১১টার দিকে অভিযুক্ত ওই নারী হঠাৎই স্কুলে ঢুকে শিক্ষার্থীদের ছুরিকাঘাত করে।

আহতদের মধ্যে তিনজনকে উদ্ধার করে সাদুল্লাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

হাসপাতালে ভর্তি তিন ছাত্রী হলো- সেতু, মিতু ও রাবেয়া। তারা তিনজনেই ওই বিদ্যালয়ের ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রী। ছুরির আঘাতে সেতুর বাম হাত, মিতুর পিঠ ও রাবেয়ার দুই পা ও মাথায় জখম হয়। আহত অপর দুই শিক্ষার্থীকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। 

এ ঘটনার পর স্থানীয়রা অভিযুক্ত ওই নারীকে আটক করে পুলিশে সোর্পদ করেছে। আটককৃত জান্নাতি সাদুল্লাপুর উপজেলার জামালপুর ইউনিয়নের গয়েশপুর গ্রামের আশিক মিয়ার স্ত্রী।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, প্রতিদিনের ন্যায় স্কুলে মেয়েদের ক্লাস চলছিল। ক্লাস চলার ফাঁকে কয়েকজন ছাত্রী স্কুলের বারান্দায় বসে গল্প করছিল। এ সময় হঠাৎ করে এক নারী বিদ্যালয়ে ঢুকে তার হাতে থাকা ধারালো একটি ছুরি দিয়ে ছাত্রীদের আঘাত করে। পরে স্কুলের অন্য ছাত্রীসহ স্থানীয়রা এগিয়ে এসে ওই নারীকে আটক করে। স্থানীয়রা কেউ কেউ ওই নারীকে মানসিক ভারসাম্যহীন বলে দাবি করেছেন।

সাদুল্লাপুর থানার ওসি মো. শফিকুল ইসলাম (শফিক) বলেন, অভিযুক্ত ওই নারীকে আটক করে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে। এ সময় তার কাছে একটি দেশীয় ধারালো একটি ছুরি উদ্ধার করা হয়। তবে কেন ও কী কারণে এমন ঘটনা ঘটিয়েছেন তা জানতে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ চলছে।

Place your advertisement here
Place your advertisement here