• মঙ্গলবার ০৫ মার্চ ২০২৪ ||

  • ফাল্গুন ২১ ১৪৩০

  • || ২৩ শা'বান ১৪৪৫

Find us in facebook
সর্বশেষ:
ভবন নির্মাণে বিল্ডিং কোড অনুসরণ নিশ্চিত করুন: প্রধানমন্ত্রী কোনো অজুহাতেই যৌন নিপীড়ককে ছাড় নয়: শিক্ষামন্ত্রী স্পর্শকাতর মামলার সাজা নিশ্চিত করতে হবে: আইজিপি চলতি মাসেই একাধিক কালবৈশাখীর শঙ্কা সিন্ডিকেটের মাধ্যমে দেশদ্রোহীরা মানুষকে কষ্ট দেয়: নাছিম

কুড়িগ্রামে বিয়ের দাওয়াত খেতে এসে ভারতীয় নাগরিকের মৃত্যু

– দৈনিক রংপুর নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ১২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪  

Find us in facebook

Find us in facebook

কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ী উপজেলায় শ্যালিকার বিয়ের দাওয়াত খেতে এসে এক ভারতীয় নাগরিকের মৃত্যু হয়েছে। বিকাশ চন্দ্র সরকার নামের ভারতীয় সেই নাগরিক পশ্চিমবঙ্গের কোচবিহার জেলার কুস্তিবাড়ি দক্ষিণ থাপাইটারি গ্রামের মিলন চন্দ্র সরকারের ছেলে। 

রবিবার (১১ ফেব্রুয়ারি) সন্ধায় জেলার ফুলবাড়ী উপজেলার বড়ভিটা ইউনিয়নে বিকাশের শ্বশুরবাড়ীতে এ ঘটনা ঘটে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, শ্যালিকার বিয়ের অনুষ্ঠানে জন্য গত (২১ জানুয়ারি) বৈধভাবে স্ত্রী শেফালী সরকার ও ৩ বছরের ছেলে সন্তানকে নিয়ে বাংলাদেশের কুড়িগ্রাম জেলার ফুলবাড়ী উপজেলার বড়ভিটা ইউনিয়নের শশুর শ্রীকৃষ্ণ রায় মেঘারামের বাড়ীতে আসেন তিনি।

পরে গতকাল শনিবার (১০ ফেব্রুয়ারি) রাতে বিয়ের অনুষ্ঠানে বিকাশের শ্বাসকষ্ট ও বুকে ব্যথা অনুভব করলে শ্বশুড় বাড়ির লোকজন স্থানীয় এক পল্লী চিকিৎসক দিয়ে প্রাথমিক চিকিৎসা দিলে কিছুটা সুস্থ হন তিনি। পরে আবারও রোববার (১১ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে বিকাশের শ্বাসকষ্ট দেখা দিলে ওই দিন সন্ধ্যা সাড়ে ছয়টায় ফুলবাড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসার জন্য নিয়ে আসলে কর্মরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এ ঘটনায় ফুলবাড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভারতীয় ওই মৃত নাগরিককে দেখতে শত শত মানুষের ভিড় জমে।

উপজেলার বড়ভিটা ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান আতাউর রহমান মিন্টু জানান, আমার ইউনিয়নে ওই ভারতীয় নাগরিক গত ২০ দিন আগে  স্ত্রী ও সন্তানকে নিয়ে শ্যালিকার বিয়ে খেতে আসেন। আজ রোববার অসুস্থ হলে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে তার মৃত্যু হয়।

ফুলবাড়ী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল অফিসার নাজমীন আক্ততার জানান, রুগী হাসপাতালে আসার আগেই শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেছেন। ধারণা করা হচ্ছে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে তার মৃত্যু হয়েছে।

ফুলবাড়ী থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) প্রাণ কৃষ্ণ দেবনাথ জানান, যেহেতু অসুস্থতার কারণে ওই ভারতীয় নাগরিকের মৃত্যু হয়েছে। পরিবারের পক্ষ থেকে কোন অভিযোগ না থাকায় মরদেহ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

Place your advertisement here
Place your advertisement here