• বুধবার ২৪ জুলাই ২০২৪ ||

  • শ্রাবণ ৯ ১৪৩১

  • || ১৬ মুহররম ১৪৪৬

Find us in facebook
সর্বশেষ:
সর্বোচ্চ আদালতের রায়ই আইন হিসেবে গণ্য হবে: জনপ্রশাসনমন্ত্রী। ২৫ জুলাই পর্যন্ত এইচএসসির সব পরীক্ষা স্থগিত।

পাকিস্তানের পরবর্তী প্রধানমন্ত্রী কে হবেন তা ঠিক করবেন ইমরান খান!

– দৈনিক রংপুর নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ১১ ফেব্রুয়ারি ২০২৪  

Find us in facebook

Find us in facebook

পাকিস্তানের আলোচিত নির্বাচনে সরকার গঠন নিয়ে এখনো চলছে নানা সমীকরণ। ক্ষমতায় কারা আসছে আর কে হবেন প্রধানমন্ত্রী তা নিয়ে শুরু হয়েছে আরেক চ্যালেঞ্জ। এর মধ্যে ফলে এগিয়ে থাকা পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফের (পিটিআই) প্রধান ব্যারিস্টার গহর প্রধানমন্ত্রী কে হবেন তা নিয়ে মুখ খুলেছেন।

শনিবার (১০ ফেব্রুয়ারি) এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে সংবাদমাধ্যম দ্য সিয়াসাত ডেইলি।


পিটিআইয়ের এ নেতা বলেন, ইমরান খানই পাকিস্তানের পরবর্তী প্রধানমন্ত্রী কে হবেন তা ঠিক করবেন। তিনি সবসময় নেতা, তাতে তিনি জেলে থাকেন অথবা বাইরেই থাকেন।


সংবাদমাধ্যম এক্সপ্রেস ট্রিবিউনের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, পিটিআই নির্বাচনে ১৭০ আসনে জয়ী হওয়ার দাবি করেছে। এছাড়া ২২টি আসনে তারা নির্বাচিত হলেও তাদের পরাজিত করে দেওয়া হয়েছে। যদিও নির্বাচন কমিশনের তথ্যমতে, পিটিআই ৯৪ আসনে বিজয়ী হয়েছে।


নির্বাচনে সংখ্যাগরিষ্ঠ আসন লাভের এমন দাবির পর দ্রুত জোট গঠনের ঘোষণা দিয়েছে পিটিআই।


সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের ঘনিষ্ঠ ও মিডিয়া উপদেষ্টা জুলফি বুখারি জানিয়েছেন, পিটিআই খুব দ্রুতই দলীয় ব্যানারের নাম ঘোষণা করবে। এরপরই স্বতন্ত্র প্রার্থীদের এ জোটে যোগ দিতে বলা হবে।


শনিবার (১০ ফেব্রুয়ারি) সংবাদমাধ্যম আল-জাজিরার এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, পাকিস্তানে স্বতন্ত্র প্রার্থীরা নিজেরা সরকার গঠন করতে পারে না। এজন্য তাদের কোনো দলের সঙ্গে জোট করতে হয়। সরকার গঠনের জন্য বিজয়ী হওয়ার ৭২ ঘণ্টার মধ্যে তাদের কোনো দলের মনোনয়ন নিতে হবে।


জুলফি বুখারি বলেন, আমাদের স্বতন্ত্র প্রার্থীদের কোথাও যাওয়ার ভয় নেই। কেননা এসব প্রার্থীরা গত ১৮ মাস ধরে সংগ্রাম করে আসছে। তারা সব ধরনের অত্যাচার ও নির্যাতন সহ্য করে এসেছে।


উল্লেখ্য, গত ৮ ফেব্রুয়ারি পাকিস্তানের নির্বাচনের ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়েছে। এ নির্বাচনে এখন পর্যন্ত সংবাদমাধ্যম জিও নিউজের প্রতিবেদন অনুযায়ী, ২৬৫টি আসনের ফল ঘোষণা করেছে ইসিপি। এতে সর্বোচ্চ ১০৪টি আসন পেয়েছে স্বতন্ত্র প্রার্থীরা। তাদের মধ্যে ইমরান সমর্থিত স্বতন্ত্র প্রার্থীরা পেয়েছেন ৯৪টি। নওয়াজ শরিফের পিএমএমএল-এন ৭৪টি আসন নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে। আর তৃতীয় স্থানে রয়েছে বিলাওয়াল ভুট্টোর দল পিপিপি। তারা পেয়েছে ৫৪টি আসন। বাকি আসনগুলো অন্যরা পেয়েছেন। এ ছাড়া একটি আসনের প্রার্থী গুলিবিদ্ধ হয়ে নিহত হওয়ায় ওই আসনে ভোট স্থগিত করে নির্বাচন কমিশন।

Place your advertisement here
Place your advertisement here