• সোমবার ১৭ জুন ২০২৪ ||

  • আষাঢ় ২ ১৪৩১

  • || ০৯ জ্বিলহজ্জ ১৪৪৫

Find us in facebook

হাঁসফাঁস গরম কি সাগরে ঘূর্ণিঝড় সৃষ্টির বার্তা দিচ্ছে

– দৈনিক রংপুর নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ৪ জুন ২০২৩  

Find us in facebook

Find us in facebook

 
তীব্র তাপদাহে পুড়ছে দেশ। গরমে নাভিশ্বাস উঠছে প্রাণিজগতে। মানুষের হাঁসফাঁস অবস্থা। এ অবস্থা আরো পাঁচদিন অব্যাহত থাকতে পারে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদফতর। এমন পরিস্থিতির মধ্যেই বঙ্গোপসাগরে একটি ঘূর্ণিঝড় সৃষ্টির আশঙ্কা করছেন আবহাওয়াবিদরা। বিভিন্ন গাণিতিক মডেল, আবহাওয়ার অবস্থা ও সমুদ্রপৃষ্ঠের তাপমাত্রা বিশ্লেষণ করে শনিবার এ তথ্য জানিয়েছে বাংলাদেশ ও ভারতের কেন্দ্রীয় আবহাওয়া দফতর। তবে এখনই ঘূর্ণিঝড় নিয়ে সুস্পষ্ট বক্তব্য দিতে নারাজ তারা।

ভারতের কেন্দ্রীয় আবহাওয়া দফতর বলছে, আগামী ৫ জুন সাগরে ঘূর্ণাবর্ত তৈরির শঙ্কা রয়েছে। যা পরবর্তীতে নিম্নচাপ থেকে ঘূর্ণিঝড়ের রূপ নিতে পারে।

অন্যদিকে আবহাওয়াবিদ হাফিজুর রহমান বলেন, সাগরের সি সার্ফেস তাপমাত্রা ২৬ দশমিক ৫ এর ওপরে থাকা ঘূর্ণিঝড়ের জন্য উপযুক্ত পরিবেশ। যা বর্তমানে ২৭ থেকে ২৮ ডিগ্রিতে রয়েছে। এর ফলে একটি ঘূর্ণিঝড় তৈরি হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। তবে আগামী ৭ থেকে ৮ জুন নিম্নচাপ তৈরি হলে বিস্তারিত জানা যাবে।

কিছুদিন আগেই বাংলাদেশের উপকূলবর্তী এলাকায় প্রভাব ফেলেছিল ঘূর্ণিঝড় ‘মোখা’। কক্সবাজারসহ একাধিক এলাকায় এর প্রভাব পড়ে। মোখা বিধ্বংসী রূপ নিতে পারে বাংলাদেশে, এমনটাই আশঙ্কা করা হচ্ছিল। যদিও তার শক্তি অনেকাংশে কমে যায়। মোখার ক্ষত এখনো তাজা। প্রশ্ন উঠছে, তবে কি নতুন করে আঘাত হানতে পারে আরো একটি ঘূর্ণিঝড়!

Place your advertisement here
Place your advertisement here