• শুক্রবার ১২ জুলাই ২০২৪ ||

  • আষাঢ় ২৮ ১৪৩১

  • || ০৪ মুহররম ১৪৪৬

Find us in facebook

সংসার-অফিস সামলেও ফিট থাকতে নারীদের করণীয়

– দৈনিক রংপুর নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ২ জুন ২০২৪  

Find us in facebook

Find us in facebook

সংসার ও অফিসের দায়িত্ব সামলাতে গিয়ে আলাদা করে নিজের খেয়াল রাখার সময় থাকে না নারীদের। এমন পরিস্হিতিতে সবচেয়ে বেশি অনিয়ম হয় খাওয়াদাওয়ায়। এতে করে শরীরে পুষ্টির ঘাটতি হয়, নানা রকম রোগের দেখা দেয়।

দিনের পর দিন এমন রুটিনে চলতে থাকলে প্রতিরোধশক্তির অভাব ঘটে। তাছাড়া আরো অনেক শারীরিক সমস্যা হানা দেয়। তাই হাজার ব্যস্ততার মাঝেও নিজের খাওয়াদাওয়ার দিকে নজর দিতে হবে নারীদের। ঘড়ি ধরে খাবার খাওয়ার পাশাপাশি এমন কিছু খাবার খেতে হবে যেগুলো সংসার ও অফিস সামলেও ফিট থাকতে সাহায্য করবে নারীদের। যেমন-


নানা রকম বাদাম: বিভিন্ন ধরনের বাদাম স্বাস্থ্যকর ফ্যাট এবং প্রোটিন ভালো উৎস। কাঠবাদাম, পেস্তা, আখরোট, কাজু বাদাম, চিনে বাদাম— সবই স্বাস্থ্যকর সকালের নাস্তা হিসেবে খেতে পারেন। কিছু বাদাম রাতে ভিজিয়ে রাখলে সকালে ঘুম থেকে উঠে নাস্তার আগে খেয়ে নিন। অনেক বেশি উপকার পাবেন। এবং সকালের ব্যস্ততায় চটজলদি খাওয়াও হয়ে যাবে। এ ছাড়া চিয়া বীজ, তিসির বীজ, কুমড়োর বীজ বা অন্য কোনও বীজ দিয়ে একসঙ্গে মিশিয়ে রেখে দিন। বিকেলের দিকে খিদে পেলে অল্প একটু খেয়ে নিতে পারেন।


শাকসবজি: মৌসুম অনুযায়ী নানা ধরনের সবুজ শাকসবজি খেতে পারেন। যেমন শাক, লেটুস, ব্রকলির মতো সবুজ শাকসবজি। এতে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি থাকে। বয়সের সঙ্গে সঙ্গে কোলাজেন কমে যায় আমাদের শরীরে। তাই ত্বকে বলিরেখা দেখা দেয়। এতে প্রত্যেক দিন নানা রকম দামি প্রসাধনী ব্যবহার করার বদলে যদি খাওয়াদাওয়ার দিকে নজর দেন, তা হলে বেশি উপকার পাবেন।


ওটস: চটজলদি স্বাস্থ্যকর নাস্তার জন্য ওটসের মতো ভালো জিনিস হয় না। ওজন নিয়ন্ত্রণে সাহায্য করে ওটস। গ্লুটেন যদি সহ্য না হয়, তা হলে ওটস ভালো বন্ধু হয়ে উঠবে। ওটস গুঁড়ো করে তা দিয়ে রুটি, কেক, প্যানকেক— সব রকমই বানাতে পারেন। দুপুরের খাবারেও চলতে পারে ওটসের খিচুড়ি। বিশেষ করে আপনি যদি ওজন কমানোর ডায়েট করেন।

Place your advertisement here
Place your advertisement here