• বুধবার ২৪ জুলাই ২০২৪ ||

  • শ্রাবণ ৯ ১৪৩১

  • || ১৬ মুহররম ১৪৪৬

Find us in facebook
সর্বশেষ:
সর্বোচ্চ আদালতের রায়ই আইন হিসেবে গণ্য হবে: জনপ্রশাসনমন্ত্রী। ২৫ জুলাই পর্যন্ত এইচএসসির সব পরীক্ষা স্থগিত।

রাগ নিয়ন্ত্রণের সেরা উপায়

– দৈনিক রংপুর নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ১৩ আগস্ট ২০২৩  

Find us in facebook

Find us in facebook

ভয়ংকর এক খারাপ স্বভাব হলো রাগ। অনেক সময় বেশি রাগ ওঠলে সব কিছু ভেঙ্গে ফেলতে ইচ্ছা করে। চিৎকার করতে মন চায়। কেউ কেউ তো রাখের মাথায় গায়ে হাতও তুলে বসে। রাগের ধরন চরম হয়ে গেলে পরিস্থিতি আরো খারাপের দিকে চলে যায়। এতে সম্পর্ক ভেঙ্গেও যেতে পারে। পরে ঠিকই এর জন্য আফসোস হয়!

তাই সম্পর্ক টিকিয়ে রাখতে রাগ নিয়ন্ত্রণে রাখা উচিত। আর তখনই সুন্দর এবং সমৃদ্ধ সম্পর্ক বজায় রাখা যায়।

চলুন তবে সম্পর্ক টিকিয়ে রাখতে রাগ নিয়ন্ত্রণের সেরা উপায়গুলো জেনে নিই-

সম্পর্ক বাঁচানো: অনিয়ন্ত্রিত রাগ তীব্র দ্বন্দ্বের কারণ হতে পারে। যা  সম্পর্ক বজায় রাখার ক্ষেত্রে অন্যতম চ্যালেঞ্জ। রাগের কারণে মুহুর্তের মধ্যে দম্পতিরা সম্পর্ক ভেঙে আলাদা হওয়ার সিদ্ধান্ত নেয়। রাগ, পরিস্থিতি আরো খারাপ করতে পারে। সম্পর্ককে ধ্বংস করতে পারে। তাই মাথা গরম হয়ে গেলে নিয়ন্ত্রণ করুন। শান্তভাবে প্রতিক্রিয়া দেখান। এতে সম্পর্ক স্থিতিশীল এবং দীর্ঘস্থায়ী হবে।

আবেগপ্রবণ সিদ্ধান্ত এড়ানো: রেগে না গিয়ে নিজেকে শান্ত রাখুন। রাগ নিয়ন্ত্রণ করুন।  রাগের মাথার তাড়াহুড়া করে সিদ্ধান্ত নিতে যাবেন না। এটি আপনাকে  দুঃখজনক পথে নিয়ে যাবে। তাই ঠাণ্ডা মাথায় সর্বোত্তম সিদ্ধান্তটি নেওয়ার চেষ্টা করুন।

মানসিক ও শারীরিক সুস্থতা: রাগ মানসিক এবং শারীরিক সুস্থতার ওপর প্রভাব ফেলতে পারে। অমীমাংসিত দ্বন্দ্ব থেকে স্ট্রেস বেড়ে যায়। উত্তেজনা মানসিক ক্লান্তির কারণ হতে পারে। সামগ্রিক স্বাস্থ্যের ওপর প্রভাব ফেলতে পারে। রাগ নিয়ন্ত্রণ করলে আপনার মানসিক শক্তি বাড়বে। শারীরিক সুস্থতা বজায় থাকবে।

ঝগড়া দীর্ঘস্থায়ী হবে না: রাগ নিয়ন্ত্রণ করলে ভুল বোঝাবুঝি শীঘ্রই শেষ হবে। এতে করে আপনি আপনার সঙ্গীর প্রতি ক্ষতিকারক আচরণ করবেন না। দুইজনই অনুভূতি প্রকাশ করতে সক্ষম হবেন। মাথা ঠাণ্ডা করে সমস্যাগুলো মোকাবিলা করুন। একসঙ্গে সমাধান খুঁজুন।

সম্মান দেখানো: যেকোনো পরিস্থিতিতে শান্ত থাকলে সঙ্গীর প্রতি সম্মান দেখানো বোঝায়। এতে দুইজনের মাঝে সহানুভূতি দেখানো হয়। আপনি সঙ্গীর দৃষ্টিভঙ্গি বুঝতে পারবেন। এটি একটি গভীর সম্পর্কের ইঙ্গিত দেয়।

Place your advertisement here
Place your advertisement here