• বুধবার ২৪ জুলাই ২০২৪ ||

  • শ্রাবণ ৯ ১৪৩১

  • || ১৬ মুহররম ১৪৪৬

Find us in facebook
সর্বশেষ:
সর্বোচ্চ আদালতের রায়ই আইন হিসেবে গণ্য হবে: জনপ্রশাসনমন্ত্রী। ২৫ জুলাই পর্যন্ত এইচএসসির সব পরীক্ষা স্থগিত।

মিলনের কতদিন পর প্রেগনেন্সি টেস্ট করলে সঠিক ফল আসে?

– দৈনিক রংপুর নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ১৩ মে ২০২৩  

Find us in facebook

Find us in facebook

গর্ভাবস্থা নিয়ে মেয়েদের নানারকম প্রশ্ন থাকে। মিলনের কতদিন পর একজন গর্ভবতী হয় বা কতদিন পর পরীক্ষা করলে সঠিক ফলাফল আসে? এমন নানারকম প্রশ্ন থাকে।

গর্ভাবস্থা প্রত্যেক মেয়ের জীবনেই একটি গুরুত্বপূর্ণ অবস্থা। এই সময় তার জীবনে নানারকম পরিবর্তন আসে। আসে খুশির খবর। তাই এই খবর কীভাবে কখন পাবেন, তাও জানা জরুরি।

বিশেষজ্ঞদের কথায়, মিলনের সঙ্গে সঙ্গেই গর্ভধারণ হয় না। এর জন্য সময় লাগে। সাধারণত, একটি শুক্রাণুর জরায়ুতে পৌঁছাতে দুই থেকে তিন দিন সময় লাগে। এরপর ডিম্বাণুর সঙ্গে মিলিত হলেই ভ্রূণ তৈরি হয়। চিকিৎসকদের কথায়, তিন থেকে চারদিনের মধ্যে গর্ভধারণ হয়ে যায়।

গর্ভে একটি শুক্রাণু পাঁচদিন পর্যন্ত বেঁচে থাকতে পারে। এই সময়ের মধ্যে শুক্রাণু ডিম্বাণুকে নিষিক্ত করলে গর্ভবতী হন একজন মহিলা। অন্যদিকে সময় পেরিয়ে গেলে গর্ভধারণের সম্ভাবনা আর থাকে না।

বিজ্ঞানীদের কথায়, গর্ভবতী হওয়ার কিছুদিনের মধ্যেই শরীরে নানা লক্ষণ ফুটে উঠতে থাকে। তবে পরীক্ষার করানোর আগে কিছু বিষয় মাথায় রাখা উচিত। পিরিয়ডের প্রথম তারিখ মিস হলে তবেই পরীক্ষা করান।

এছাড়াও, অনেকের কথায় পিরিয়ডের ১০ থেকে ১৪ দিন পর পরীক্ষা করলে আরো ভালো ফল পাওয়া যেতে পারে। প্রাথমিকভাবে ঘরোয়া পরীক্ষা ইতিবাচক এলে হাসপাতালে গিয়ে রক্তের পরীক্ষাটি করিয়ে নেয়া যেতে পারে। এরপর চিকিৎসকের পরামর্শ মেনে চলার পালা।

Place your advertisement here
Place your advertisement here