• বুধবার   ১৯ জানুয়ারি ২০২২ ||

  • মাঘ ৬ ১৪২৮

  • || ১৪ জমাদিউস সানি ১৪৪৩

Find us in facebook
সর্বশেষ:
সেবা নিতে এসে কোনো মানুষ যেন হয়রানির শিকার না হন- ডিসি সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রী ‘শীতার্ত মানুষের কষ্ট লাঘবে পদক্ষেপ নিয়েছে সরকার’ দিনাজপুরে বইছে শৈত্যপ্রবাহ ডিমলায় পঞ্চম শ্রেণির ছাত্রীকে ধর্ষণ, যুবক আটক বিরলে ট্রাক্টরের ধাক্কায় পল্লি চিকিৎসক নিহত

অপরাধমূলক কর্মকাণ্ডে জড়াচ্ছে রোহিঙ্গারা

– দৈনিক রংপুর নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ২৫ আগস্ট ২০২১  

Find us in facebook

Find us in facebook

কক্সবাজারের রোহিঙ্গা ক্যাম্পগুলোতে প্রতিদিন কোনো না কোনো অপরাধ সংঘটিত হচ্ছে। স্থানীয়দের অভিযোগ, যতই দিন যাচ্ছে আশ্রিত রোহিঙ্গারা ভয়ঙ্কর সব অপরাধে জড়িয়ে পড়ছে।

কক্সবাজারের উখিয়া উপজেলার কুতুপালংয়ের ১ নম্বর (ইস্ট) রোহিঙ্গা ক্যাম্পের জি ব্লকের বখতিয়ার মেম্বারের আমবাগান মার্কেটে রোহিঙ্গা গণহত্যা দিবস উপলক্ষে ৪০০ থেকে ৫০০ রোহিঙ্গা শিশু জমায়েত হয়। পরবর্তীতে এপিবিএন কর্তৃক উক্ত শিশুদের ছত্রভঙ্গ করে দেওয়া হয়।

একইদিন রোহিঙ্গা গণহত্যা দিবস উপলক্ষে বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার কোনারপাড়া রোহিঙ্গা শিবিরের অভ্যন্তরে রোহিঙ্গা শিশুরা প্লেকার্ড (মিয়ানমার সেনাবাহিনী ও জান্তা সরকারের বিরুদ্ধে ন্যায় বিচারের দাবি) নিয়ে জড়ো হয় এবং স্লোগান দেয়।

এর আগে ২৪ আগস্ট (মঙ্গলবার) উখিয়া উপজেলাস্থ ১২ নম্বর রোহিঙ্গা ক্যাম্পের জি/৪ ব্লকে রোহিঙ্গা গণহত্যা দিবস উপলক্ষে অবৈধ কর্মসূচি পালনের জন্য টি-শার্ট বিতরণের সময় ভয়েস অব রোহিঙ্গা নামক সংগঠনের দুইজনকে আটক করেছে এপিবিএন পুলিশ। আটককৃতরা হচ্ছে- ১২ নম্বর রোহিঙ্গা ক্যাম্পের জি/৭ ব্লকের মো. ইউনুসের ছেলে মো. ইয়াছের (২৪), একই ক্যাম্পের জি/৪ ব্লকের মো. আইয়ুবের ছেলে নাজিমুদ্দিন (৩০)।

গত ২৪ আগস্ট জেল থেকে জামিন পেয়ে নিজ ক্যাম্পে ফেরত এসেছেন রোহিঙ্গা নারী গুল বাহার (৪৯)। গুল বাহার ২২ নম্বর রোহিঙ্গা ক্যাম্পের সি/১ ব্লকের মৃত রহিম উল্লাহের স্ত্রী। জানা যায়, গত ১২ মার্চ এক হাজার পিস ইয়াবাসহ গুল বাহারকে আটক করেছিল এপিবিএন পুলিশ। জামিনপ্রাপ্ত রোহিঙ্গা এ নারীকে ক্যাম্পের মাঝির উপস্থিতিতে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

গত ২৩ আগস্ট (সোমবার) কক্সবাজারের টেকনাফে অভিযান পরিচালনা করে একনলা বন্দুকসহ আরসা বাহিনীর সদস্য আবদুস চবিকে (২২) আটক করেছে এপিবিএন পুলিশ। উপজেলার ২১ নম্বর রোহিঙ্গা ক্যাম্প থেকে তাকে আটক করা হয়। আটক আবদুস চবি ২১ নম্বর রোহিঙ্গা ক্যাম্পের বি/১ ব্লকের আবু জলিলের ছেলে। তার বিরুদ্ধে অস্ত্র আইনে টেকনাফ থানায় এপিবিএন পুলিশ কর্তৃক মামলা দায়ের করা হয়েছে।

Place your advertisement here
Place your advertisement here