ব্রেকিং:
আজ ৬ জুন রংপুর মেডিকেলে ১৮৮ নমুনা পরীক্ষা করে ১৩ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন রংপুর মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ ডা. নুরুন্নবী লাইজু। রংপুর ডেডিকেটেড করোনা আইসোলেশন হাসপাতালে করোনায় আক্রান্ত সুলতানা পারভিন (৬৭) নামে আরও এক রোগীর মৃত্যু কুড়িগ্রাম সদর উপজেলার যাত্রাপুর ইউনিয়নে ব্রহ্মপূত্র নদে পড়ে গিয়ে খাদিমুল ইসলাম নামে তিন বছরের এক শিশুর সলিল সমাধি হয়েছে।
  • রোববার   ০৭ জুন ২০২০ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ২৩ ১৪২৭

  • || ১৫ শাওয়াল ১৪৪১

Find us in facebook
সর্বশেষ:
বাংলাদেশি সেনাদের নিয়ে গর্ব করা উচিত: জাতিসংঘ মহাসচিব পরীক্ষামূলকভাবে ‘করোনা ট্রেসার বিডি’ অ্যাপ চালু বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ ও রেমিট্যান্সে নতুন রেকর্ড ছুঁয়েছে আরও একটি নিম্নচাপ তৈরি হতে চলেছে বঙ্গোপসাগরে শিগগিরই তিন হাজার মেডিকেল টেকনোলজিস্ট নিয়োগ
৩৬৭

হাবিপ্রবিতে দেশের প্রথম ভ্রাম্যমাণ ভেটেরিনারি ক্লিনিকের উদ্বোধন

– দৈনিক রংপুর নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ১২ ফেব্রুয়ারি ২০২০  

Find us in facebook

Find us in facebook

দিনাজপুরের হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (হাবিপ্রবি) উদ্বোধন করা হয়েছে ভ্রাম্যমাণ ভেটেরিনারি ক্লিনিক এর। বুধবার সকাল ১১ টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভেটেরিনারি হাসপাতালের সামনে এই ভ্রাম্যমাণ ক্লিনিক এর উদ্বোধন করেন হাবিপ্রবির ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মু. আবুল কাসেম।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রেজারার প্রফেসর ড. বিধান চন্দ্র হালদার, রেজিস্ট্রার প্রফেসর ডা. মো. ফজলুল হক (বীর মুক্তিযোদ্ধা), এগ্রিকালচার অনুষদের ডীন প্রফেসর ড. ভবেন্দ্র কুমার বিশ্বাস, পরিকল্পনা ও উন্নয়ন শাখার পরিচালক প্রফেসর ড. মো. মোস্তাফিজার রহমান, জনসংযোগ ও প্রকাশনা শাখার পরিচালক প্রফেসর ড. শ্রীপতি সিকদার, ভেটেরিনারি অনুষদের দায়িত্বপ্রাপ্ত ডীন প্রফেসর ড. তাহেরা ইয়াসমিন, হিসাব শাখার পরিচালক প্রফেসর ড. মো. শাহাদাৎ হোসেন খান, প্রক্টর প্রফেসর ড. মো খালেদ হোসেন, ছাত্র পরামর্শ ও নির্দেশনা বিভাগের পরিচালক প্রফেসর ড. ইমরান পারভেজ, পরিবহন শাখার পরিচালক প্রফেসর ড. মফিজ উল ইসলাম, দিনাজপুর জেলার প্রাণীসম্পদ কর্মকর্তা ডা. মো. শাহিনুর আলমসহ অন্যান্যরা।

এরপর এর কার্যক্রমের অংশ হিসেবে ভেটেরিনারি ক্লিনিক নিয়ে দিনাজপুরের রামডুবির বীরগা গ্রামের ফুলবন সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে যাওয়া হয়। সেখানে কৃষক আনিছুর রহমান এর একটি গরুর ঝংকা (আপওয়ার্ড প্যাটেলার ফিক্সেশন) রোগের অপারেশন করাসহ মোট ৩টি গুরুর বিভিন্ন রোগের অপারেশন করা হয়।

এ সময় সেখানে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস-চ্যান্সেলর, রেজিস্ট্রার প্রফেসর ডা. মো. ফজলুল হক এর নেতৃত্বে ভেটেরিনারি সার্জনদের একটি দক্ষ দল, স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান অশোক কুমার রায়, শিক্ষার্থী ও সাংবাদিকবৃন্দসহ উৎসুক অনেকেই উপস্থিত ছিলেন।

কৃষক আনিছুর রহমান বলেন, এটি একটি মহৎ উদ্যোগ, আমি অবিভূত। এ ধরণের কিছু হবে বা এটা যে সম্ভব তা কখনো ভাবিনি। এধরনের রোগের ক্ষেত্রে সাধারণত আমরা রোগাক্রান্ত গরুকে অত্যন্ত কম মূল্যে গরু কসাইদের কাছে বিক্রি করে দেই। কৃষক ও খামারিরা হাজী দানেশ বিশ্ববিদ্যালয় ও মাননীয় ভিসি স্যার এর প্রতি কৃতজ্ঞ। মানুষের কথা তো সবাই ভাবে কিন্তু পশু পাখির কথা কয়জন ভাবে। এ ধরণের সেবা সারা দেশে ছড়িয়ে দেয়া উচিৎ। একই ধরনের অনুভুতি প্রকাশ করেন আরো কয়েকজন দরিদ্র কৃষক। তারা বলেন আমাদের বাড়ি এসে বিনা মূল্যে এ ধরনের চিকিৎসা সেবা প্রদান করা হবে তা কল্পনা করিনি।

এ ব্যাপারে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মু. আবুল কাসেম বলেন, মুজিববর্ষ উপলক্ষে আমি বেশ কিছু উদ্যোগ হাতে নিয়েছিলাম এটি তার মধ্যে অন্যতম সেরা অবদান। ভ্রাম্যমান ভেটেরিনারি ক্লিনিক (বিশেষায়িত অ্যাম্বুলেন্স) একটি নতুন ধারণা, মানুষ অসুস্থ হলে অ্যাম্বুলেন্সের ব্যবস্থা আছে, কিন্তু পশু পাখির জন্য এ ধরনের কোন ব্যবস্থা নেই। সেই চিন্তা থেকেই এ ভ্রাম্যমান ক্লিনিকের উদ্যেগ নেয়া।

এছাড়াও বিশ্ববিদ্যালয়ে কৃষক সেবা কেন্দ্র, মৎস্য হ্যাচারী, ডেইরি ও পোল্ট্রি ফার্ম এর উদ্বোধন করা হয়েছে মুজিব বর্ষের শুরুতেই। কৃষক সেবা কেন্দ্র এ অঞ্চলের কৃষকদের জন্য প্রশিক্ষণসহ তাদের বিভিন্ন সমস্যা সমাধানে ইতোমধ্যে কাজ শুরু করে দিয়েছে। আমি নিজেও কয়েকজন ক্ষতিগ্রস্থ কৃষকের ফসলিজমি পরিদর্শন করেছি বলে জানান।

Place your advertisement here
Place your advertisement here
রংপুর বিভাগ বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর