ব্রেকিং:
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশ অনুসরণ করে করোনা রোগীদের জন্য প্রয়োজনীয় চিকিৎসা সামগ্রী হিসেবে বাংলাদেশ যুক্তরাষ্ট্রের তৈরি ২৫০টি ভেন্টিলেটর সংগ্রহ করেছে
  • সোমবার   ২৬ জুলাই ২০২১ ||

  • শ্রাবণ ১০ ১৪২৮

  • || ১৪ জ্বিলহজ্জ ১৪৪২

Find us in facebook
সর্বশেষ:
জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি আবেদন শুরু ২৮ জুলাই ফেসবুক ও হোয়াটসঅ্যাপের বিকল্প আসছে বাংলাদেশে সরকারি চাকুরেদের সম্পদের হিসাব দিতে হবে, বিধিমালা কার্যকরে উদ্যোগ দেশের মানুষের পুষ্টি নিরাপত্তায় হচ্ছে পুষ্টি বাগান পশুর নাড়ি-ভুঁড়ি রফতানি করে বছরে আয় ৩২০ কোটি টাকা

হাওরের ধান কাটবেন রংপুরের কৃষি শ্রমিকরা

– দৈনিক রংপুর নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ২০ এপ্রিল ২০২০  

Find us in facebook

Find us in facebook

হাওরাঞ্চলে ধান কাটতে যেতে চান রংপুর অঞ্চলের কৃষি শ্রমিকেরা। কিন্তু রংপুর বিভাগের ৮টি জেলা লকডাউন ঘোষণা করায় তারা যেতে পারছেন না। জীবন-জীবিকার কথা মাথায় রেখে তাদের সহায়তার আশ্বাস দিচ্ছে স্থানীয় প্রশাসন।

শ্রমিক সর্দার আইয়ুব হোসেন জানান, ধান কাটার জন্য হাওরাঞ্চলে জোতদারেরা প্রতিনিয়ত তাদের সঙ্গে ফোনে যোগাযোগ করছে। কিন্ত করোনা প্ররিস্থিতির কারণে তারা জেতে পারছে না। সরকারের সহযোগীতা পেলে সেখানে গিয়ে কাজে যোগদান করা সম্ভব হবে।

তিনি জানান, রংপুর-দিনাজপুর অঞ্চলের অনেক আগে ধান পাকে হাওরাঞ্চলের জেলাগুলোতে। অকাল বন্যার হাত থেকে ফসল রক্ষায় তোড়জোড় শুরু হয় হাওরে। এ সময় রংপুর বিভাগের শত শত কৃষি শ্রমিক পাড়ি জমান হাওরাঞ্চলের জেলাগুলোতে। 

হাওরে ৭০ ভাগ কৃষি শ্রমিকের চাহিদা মেটায় রংপুর বিভাগের ৮ জেলার কৃষি শ্রমিকেরা। কিন্তু এবার করোনার কারণে তারা গৃহবন্দী হয়ে পড়েছে। জেলায় জেলায় লকডাউন থাকায় গন্তব্যে যেতে পারছেন না তারা ।

কৃষি শ্রমিকেরা জানান, করনার কারণে লকডাউন, গাড়ি চলছে না। যেতে পারছি না। এবার কাজে যেতে না পারলে বছর জুড়ে তাদের কষ্টে জীবন যাপন করতে হবে। কৃষি, কৃষক ও খেতমজুরদের বাঁচাতে সুরক্ষা ও সামাজিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করে এ অঞ্চলের কৃষি শ্রমিকদের হাওরে নেয়ার ও কাজ শেষে আবার ফিরিয়ে আনার দায়িত্ব নিতে হবে সরকারকেই।

জাতীয় কৃষক সমিতির সভাপতি নজরুল ইসলাম হক্কানী বলেন, হাওর অঞ্চলের ধান কাটা না হলে ওই অঞ্চলের কৃষকরা ক্ষতিগ্রস্থ হবে। সেই সঙ্গে দেশে অর্থনৈতিক 
বিপর্যয় নেমে আসবে। 

রংপুরের প্রশাসক আসিব আহসান জানান, প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনায় কৃষি শ্রমিকদের হাওরাঞ্চলে পাঠানোর কাজ শুরু হচ্ছে। তালিকা নিশ্চিত হয়ে গেলে জেলা পুলিশের মাধ্যমে সামাজিক দূরত্বের ব্যবস্থা করে তাদের পাঠানোর ব্যবস্থা করব।

Place your advertisement here
Place your advertisement here