ব্রেকিং:
দিনাজপুরে গত ২৪ ঘণ্টায় ৫ জন ব্যক্তি করোনা ভাইরাসে (কোভিড-১৯) আক্রান্ত হয়েছেন। এ নিয়ে জেলায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়ালো ৩৩৭৯ জনে। মঙ্গলবার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন দিনাজপুরের সিভিল সার্জন ডাঃ মোঃ আব্দুল কুদ্দুছ।
  • বুধবার   ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০ ||

  • আশ্বিন ১৪ ১৪২৭

  • || ১২ সফর ১৪৪২

Find us in facebook
সর্বশেষ:
মানুষ যেন ভল থাকে সেই কাজটুকু যেন করতে পারি- প্রধানমন্ত্রী প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিন উপলক্ষে রংপুরে যুবলীগের খাবার বিতরণ দিনাজপুরে নতুন আরো ৫ জন করোনায় আক্রান্ত দেশ ভালোভাবে চলছে তাই বিএনপির এতো গাত্রদাহ- কাদের করোনা মোকাবেলায় মার্কেল জেসিন্ডাকে ছাড়িয়ে শেখ হাসিনা
২১

সামাজিক মর্যাদা নিশ্চিতে ফ্রিল্যান্সারদের পরিচয়পত্র দেবে সরকার   

– দৈনিক রংপুর নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২০  

Find us in facebook

Find us in facebook

সামাজিক মর্যাদা নিশ্চিত করতেই ফ্রিল্যান্সারদের পরিচয়পত্র দিতে চায় সরকার। তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক জানিয়েছেন, শিগগিরই ফ্রিল্যান্সারদের একটি ডাটাবেজ তৈরি করা হবে। তবে আইডি কার্ড দেয়ার ক্ষেত্রে দক্ষ ও যোগ্যদের অগ্রাধিকার দেয়ার দাবি ফ্রিল্যান্সারদের। 

তবে রাষ্ট্রের এ সিদ্ধান্তে নানা ধরনের প্রতিক্রিয়া আছে ফ্রিল্যান্সারদের মাঝে। তারা বলছেন, ক্রেডিবিলিটি ছাড়া আইডি কার্ড ফ্রিল্যান্সারদের খুব একটা কাজে আসবে না।

ফ্রিল্যান্সার ফাহিম, রাকিব ও আরিফ জানান, ‘ফ্রিল্যান্সিংয়ে সহযোগিতার জন্য কিছু প্রতিষ্ঠান আছে, সেগুলোতে গিয়ে যদি এটি কার্যকর না হয় কিংবা সহায়তা না পাওয়া যায়, তাহলে এই কার্ড কোন কাজে আসবে না।’

কেউ যাতে কোন রকম এ্যাকাউন্ট খুলে নিজেদের ফ্রিল্যান্সার বলে দাবি করতে না পারেন সে বিষয়গুলো খেয়াল রাখার দাবি জানান তারা। 

তবে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলছেন, ‘এই কার্ড ব্যবহার করে ব্যাংক লোনসহ অর্থনৈতিক সুযোগ সুবিধা নিতে পারবে ফ্রিল্যান্সাররা। পাশাপাশি সামাজিক মর্যাদা নিশ্চিত করার জন্যই একটি পরিচয় পত্র দেয়ার ব্যবস্থা করছে সরকার।’

আর বেসিসিসের সভাপতি সৈয়দ আলমাস কবির বলেন, ‘এটা আসলে কোন আইন না। এমনকি এ সংক্রান্ত কোন নীতিমালাও করা হচ্ছে না। সরকার থেকে শুধু একটা ডাটাবেশ তৈরি করা হচ্ছে। কেউ যদি পরিচয়পত্র না নিতে চায়, তাহলে জোর করা হবে না।’

অনলাইন বিভিন্ন প্লাটফর্ম ও মার্কেটপ্লেসে কাজ করছেন দেশের প্রায় সাড়ে ছয় লাখ ফ্রিল্যান্সার। যদিও তাদের কোনো ডাটাবেজ নেই। তাই বাস্তবের সঙ্গে এ সংখ্যার হেরফের থাকতে পারে। স্বীকৃতি না থাকায় সামাজিকভাবে হেয় হওয়ার পাশাপাশি ব্যাংক লোনসহ নানা সুবিধা থেকে বঞ্চিত কয়েক লাখ রেমিটেন্স যোদ্ধা।

তাই এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার।

 

Place your advertisement here
Place your advertisement here
জাতীয় বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর