ব্রেকিং:
রংপুর স্টেশন থেকে কোনো ট্রেন চলবে না। রোববার বিকেলে এ তথ্য নিশ্চিত করেন রংপুর রেলওয়ে স্টেশনের মাস্টার আলমগীর হোসেন। রংপুরের ডেডিকেটেড করোনা আইসোলেশন হাসপাতাল থেকে সুস্থ হয়ে আরও তিনজন বাড়ি ফিরলেন। রোববার (৩১ মে) দুপুরে করোনামুক্ত হওয়ায় ওই তিনজনকে ছাড়পত্র দেয়া হয়। রংপুর-ঢাকা মহাসড়কে ১ জুন (সোমবার) থেকে দূরপাল্লার বাস চলাচল শুরু হবে। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত আরো দুই হাজার ৫৪৫ জনকে শনাক্ত করা হয়েছে। এ নিয়ে শনাক্ত রোগীর সংখ্যা বেড়ে ৪৭ হাজার ১৫৩ জনে দাঁড়িয়েছে। একই সময়ে মারা গেছেন আরো ৪০ জন। এখন পর্যন্ত মারা গেছেন ৬৫০ জন। একদিনের আক্রান্ত ও মৃত্যুর পরিসংখ্যানে এটিই সর্বোচ্চ। ট্রেনের টিকিট শুধু অনলাইনেই বিক্রি হবে বলে জানিয়েছেন রেলমন্ত্রী নূরুল ইসলাম সুজন। বসলো পদ্মাসেতুর ৩০তম স্প্যান: দৃশ্যমান সাড়ে ৪ কিলোমিটার গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলায় ছয়জন নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। এর মধ্যে দুইজন স্বাস্থ্যকর্মী, তিনজন গার্মেন্টসকর্মী ও একজন মাওলানা।
  • রোববার   ৩১ মে ২০২০ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ১৭ ১৪২৭

  • || ০৮ শাওয়াল ১৪৪১

Find us in facebook
সর্বশেষ:
করোনা রোধে জনপ্রতিনিধিদের আরো সম্পৃক্তের আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর স্বাস্থ্যবিধি মেনে সব অফিস খুলছে আজ করোনায় স্বাস্থ্যবিধি মানাতে চলবে মোবাইল কোর্ট পঙ্গপালের কারণে বিপর্যয়ের মুখে ভারত-পাকিস্তান দেশেই করোনাভাইরাসের পূর্ণাঙ্গ জিনোম সিকোয়েন্সিং সম্পন্ন আদিতমারীতে সব করোনা রোগী সুস্থ হয়েছেন
১৮৮

শেষ ইচ্ছামতে কুড়িগ্রামের ড. সামাদকে ক্রাইস্টচার্চ শহরে দাফন

দৈনিক রংপুর

প্রকাশিত: ২০ মার্চ ২০১৯  

Find us in facebook

Find us in facebook

নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে আল-নূর মসজিদে হামলায় নিহত কুড়িগ্রামের ড. আবদুস সামাদকে তার ইচ্ছানুযায়ী নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চ শহরেই দাফন করা হবে।
ড. আবদুস সামাদের বড় ছেলে সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ার তোহা মোহাম্মদ সোমবার দুপুরে এ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, বাবা তার জীবদ্দশায় বলেছেন, আমার মৃত্যু হলে লাশ নিয়ে টানা-হেঁচড়া না করে আমার কর্মস্থল নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চ শহরেই মুসলিম কবরস্থানে যেন দাফন করা হয়। তাই নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চ শহরেই মুসলিম কবরস্থানে দাফনের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে বলে জানান বড় ছেলে তোহা মোহাম্মদ।

তিনি বলেন, নিউজিল্যান্ড সরকারের কাছ থেকে মরদেহ গ্রহণ করার পর বাবাকে দাফন করা হবে।

উল্লেখ্য, ড. আবদুস সামাদ নাগেশ্বরী ডিএম উচ্চবিদ্যালয় থেকে এসএসসি পাস করেন। এরপর এইচএসসি শেষে ময়মনসিংহে বাংলাদেশ কৃষিবিশ্ববিদ্যালয়ে লেখাপড়া শেষ করে ওই বিশ্ববিদ্যালয়ে কৃষি তথ্য বিভাগের অধ্যাপক ছিলেন। কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে আগাম অবসর গ্রহণ করার পর তিনি পাঁচ বছর আগে সপরিবারে নিউজিল্যান্ড চলে যান। সেখানে তিনি লিংকন বিশ্ববিদ্যালয়ে পিএইচডি ডিগ্রি গ্রহণ করেন।

নিউজিল্যান্ডে স্ত্রী কিশোয়ারাসহ দুই ছেলে তানভীর ও তারেক সাথেই থাকতেন। তার বড় ছেলে সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ার তোহা মোহাম্মদ ঢাকায় একটি কোম্পানিতে কর্মরত।

Place your advertisement here
Place your advertisement here