ব্রেকিং:
দিনাজপুরে গত ২৪ ঘণ্টায় ২ জন ব্যক্তি করোনা ভাইরাসে (কোভিড-১৯) আক্রান্ত হয়েছেন। এ নিয়ে জেলায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়ালো ৪ হাজার ৬৬১ জনে। মঙ্গলবার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন দিনাজপুরের সিভিল সার্জন ডাঃ মোঃ আব্দুল কুদ্দুছ।
  • বুধবার   ২৭ জানুয়ারি ২০২১ ||

  • মাঘ ১৩ ১৪২৭

  • || ১৩ জমাদিউস সানি ১৪৪২

Find us in facebook
সর্বশেষ:
২৭ জানুয়ারি করোনা ভ্যাকসিনেশনের উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী রংপুরে নির্মিত হচ্ছে আল্লাহর ৯৯ নামের স্তম্ভ সব জেলায় ৪-৫ দিনের মধ্যে ভ্যাকসিন পৌঁছে যাবে- পাপন দিনাজপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় চাচা ভাতিজাসহ নিহত ৩ কৃষিকে আকর্ষণীয় পেশায় পরিণত করছে `রাইস ট্রান্সপ্লান্টার`

শান্তিপূর্ণভাবে চলছে রংপুরের বদরগঞ্জ পৌরসভার ভোট গ্রহণ 

– দৈনিক রংপুর নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ২৮ ডিসেম্বর ২০২০  

Find us in facebook

Find us in facebook

শান্তিপূর্ণভাবে চলছে রংপুরের বদরগঞ্জ পৌরসভার ভোট গ্রহণ। সকাল ৯ টায় বিকাল ৫ টা পর্যন্ত চলবে ভোটগ্রহণ।

সোমবার (২৮ ডিসেম্বর) সকাল ৯ টা থেকে শুরু হয়েছে। চলবে বিকাল ৫ টা পর্যন্ত। আইনশৃঙ্খলা বাহিনী তৎপর হয়েছে ভোট গ্রহণে কোনো ধরনের বিশৃঙ্খলা এড়াতে। পুলিশ র‌্যাব আনসার সদস্যসহ সাদা পোশাকে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর টহল জোরদার করা হয়েছে এই পৌরসভায়।

অন্যদিকে ২২ বছর পর রংপুরের বদরগঞ্জ পৌরসভায় এবার নতুন একজনকে মেয়র পদে প্রার্থী হিসেবে করতে লড়ছেন।এর আগে ১৯৯৯ সালে বদরগঞ্জকে পৌরসভা করা হয়।

প্রথমে প্রশাসক হিসেবে পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি উত্তম কুমার সাহাকে নিয়োগ দেয়া হয়। পরে চার মেয়াদে জনগণের প্রত্যক্ষ ভোটে তিনিই মেয়র হিসেবে নির্বাচিত হন।

শারীরিক সমস্যায় উত্তম কুমার সাহা এবারের পৌর নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হতে অপারগতা জানান। তাই এবার নতুন এক মেয়র হিসাবে একজন প্রার্থী নির্বাচনে লড়ছেন। আর ২২ পর আজ আবারো পৌর নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে এই নির্বাচনে জয়-পরাজয় যে হোক না কেন নতুন একজন মেয়র হবেন।

বদরগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচনে এবার আওয়ামী লীগের আহাসানুল হক চৌধুরী ওরফে টুটুল (নৌকা), বিএনপির ফিরোজ শাহ (ধানের শীষ), ইসলামী আন্দোলনের সাদ্দাম হোসেন (হাতপাখা) ও স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে বদরগঞ্জ মহিলা ডিগ্রি কলেজের সহকারী অধ্যাপক আজিজুল হক নারকেলগাছ প্রতীক নিয়ে মেয়র পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

ভোটারদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, নির্বাচনে আহসানুল হক চৌধুরীর সঙ্গে মূলত লড়াই হবে আজিজুল হকের। এর আগেও দুই মেয়াদে পৌর নির্বাচনে প্রার্থী ছিলেন আজিজুল হক।

পৌর মেয়র উত্তম কুমার সাহা বলেন, ‘আমি ২২ বছরে পৌরসভাকে তিলে তিলে দাঁড় করিয়েছি। উন্নয়নমূলক অনেক কাজ করেছি। কিছু ভালো কাজ করতে গিয়ে বাধার সম্মুখীন হয়েছি। প্রতি নির্বাচনে পৌর কাউন্সিলররা জামায়াত ও বিএনপি থেকে নির্বাচিত হওয়ায় তারা আমাকে উন্নয়নমূলক কাজে সহযোগিতা করেননি। এ কারণে ইচ্ছা থাকা সত্ত্বেও অনেক ভালো কাজ আমি করতে পারিনি। এবার শারীরিক সমস্যার কারণে আমি নিজে দলীয় প্রার্থী হতে চাইনি। তবে পৌরবাসীর প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাই, তারা বারবার আমাকে টানা মেয়র হিসেবে নির্বাচিত করায়।’

৯টি ওয়ার্ড নিয়ে গঠিত বদরগঞ্জ পৌরসভা। এখানে ভোটার ১৯ হাজার ৭৮২ জন। এদের মধ্যে পুরুষ ৯ হাজার ৭২২ ও নারী ১০ হাজার ৬০ জন।সকাল থেকে চলছে ভোট গ্রহণ। চলবে বিকেল পাঁচটা পর্যন্ত কে হবেন এই পৌরসভার নতুন মেয়র।

Place your advertisement here
Place your advertisement here