সোমবার   ০৯ ডিসেম্বর ২০১৯   অগ্রাহায়ণ ২৪ ১৪২৬   ১১ রবিউস সানি ১৪৪১

Find us in facebook
৮৭

লালমনিরহাটে ধসে যাওয়া ব্রিজ সেচ্ছাশ্রমে মেরামত করে দিল ছাত্রলীগ

প্রকাশিত: ২ ডিসেম্বর ২০১৯  

লালমনিরহাটের হাতীবান্ধায় বন্যায় ধসে যাওয়া ব্রিজ সেচ্ছাশ্রমে মেরামত করে দিয়েছেন ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। এ সময় এলাকাবাসী তাদের সাহায্য করতে এগিয়ে আসেন। পাশাপাশি তাদের এই উদ্যোগকে সাধুবাদ জানান। রোববার উপজেলার সিন্দুর্না হলদীবাড়ি গ্রামে বন্যার পানিতে ধসে যাওয়া ব্রিজটি মেরামত করে ছাত্রলীগ।

জানাগেছে, ২০১৮ সালের বন্যায় উপজেলার সিন্দুর্না হলদীবাড়ি গ্রামের একটি ব্রিজ ধসে যায়। আর তাই চলাচল করতে অসুবিধা হয় ওই এলাকার মানুষদের। বিষয়টি উপজেলা ছাত্রলীগ জানতে পেয়ে নিজ উদ্যোগে সেচ্ছাশ্রমে বন্যায় ধসে যাওয়া ব্রিজটি মেরামত করে দেন।

সরেজমিন গিয়ে দেখা যায়, হাতীবান্ধা উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ফাহিম শাহরিয়ার খান জিহান কোদাল দিয়ে মাটি কেটে বস্তা ভর্তি করছে। আর তাকে সাহায্য করছে উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক পারভেজ হোসেন।

এ সময় আলিমুদ্দিন সরকারি কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি লিপন রায়, টংভাঙ্গা ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি আরিফ হোসেন, সহ-সভাপতি ঋত্বিক রায়, সিন্দুর্না ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি উজ্জল, গোতামারী ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি মুনতাসির হাসান সম্মাট, ভেলাগুড়ি সাধারণ সম্পাদক ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি জাহিদ খানকে তাদেরকে সাহায্য করতে দেখা যায়।

স্থানীয় বাসিন্দা মানিক মিয়া বলেন, বন্যায় ব্রিজটির ক্ষতি হয়। এতে করে চলাচল করতে খুবই অসুবিধা হতো। যেকোনও সময় ব্রিজটি ভেঙে গিয়ে বড় ধরণের দুঘর্টনা ঘটতে পারে। তবে ছাত্রলীগের লোকজন ব্রিজটি মেরামত করে দিয়েছেন। এতে করে এলাকার মানুষ খুবই খুশি হয়েছে। আমরা আশা করি তারা ভবিষ্যতে এই ধরণের আরও ভালো কাজ করবেন।

হাতীবান্ধা উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ফাহিম শাহরিয়ার খান জিহান বলেন, আমি নিজেই সিন্দূনা গ্রামের বাসিন্দা। আমাদের এই ইউনিয়ন তিস্তা নদীর পাশে হওযায়। প্রতি বছর বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত হয়। ২০১৮ ,সালের বন্যায় এ ব্রিজ ধসে যায়। এতে করে এলাকাসীকে চলাচল করতে খুবই অসুবিধা হচ্ছিল। তাই ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের নিয়ে নিজ উদ্যোগে সেচ্ছাশ্রমে বন্যায় ধসে যাওয়া ব্রিজটি মেরামত করা হয়েছে।

হাতীবান্ধা উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মাহমুদুল হাসান সোহাগ বলেন, ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা খুবই ভালো কাজ করেছে। আমি বিষয়টি জানতে পেরেই খুবই খুশি হয়েছি। আমি তাদের সাথে কথা বলেছি। তারা এ ধরনের কাজ যেন সব সময় করেন। এ ধরনের কাজে আমি তাদেরকে সার্বিক ভাবে সাহায্য করব বলে জানিয়েছি।

– দৈনিক রংপুর নিউজ ডেস্ক –
Place your advertisement here
Place your advertisement here
এই বিভাগের আরো খবর