ব্রেকিং:
ঠাকুরগাঁওয়ের আইসোলেশনে ভর্তি ৫ রোগীর দেহে কোভিড-১৯ পাওয়া যায়নি ত্রাণ নিয়ে অনিয়ম-দুর্নীতি সহ্য করা হবে না: প্রধানমন্ত্রী দিনাজপুরের বিরামপুরে বন্দুকযুদ্ধে ‘মাদক ব্যবসায়ী’ নিহত নববর্ষের সব অনুষ্ঠান বন্ধের অনুরোধ প্রধানমন্ত্রীর সব কিছু বিবেচনা করে ছুটি সীমিত আকারে বাড়াতে হবে: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা
  • বুধবার   ০১ এপ্রিল ২০২০ ||

  • চৈত্র ১৭ ১৪২৬

  • || ০৭ শা'বান ১৪৪১

Find us in facebook
সর্বশেষ:
আসছে ঈদুল ফিতর পর্যন্ত বন্ধ থাকতে পারে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান করোনা রোধে উদ্ভুত পরিস্থিতিতে ঘরে বসেই মিলছে স্বাস্থ্যসেবা করোনা পরিস্থিতি নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর ভিডিও কনফারেন্স আজ করোনা রোগীদের জন্য দেশেই তৈরি হবে ভেন্টিলেটর: পলক এবার চীনের সরকারের বিরুদ্ধে ২০ ট্রিলিয়ন ডলারের মামলা!
১৭১১

রংপুরে ভর্তুকির টাকা আত্মসাৎ: কৃষি কর্মকর্তার বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু

– দৈনিক রংপুর নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ৪ মার্চ ২০২০  

Find us in facebook

Find us in facebook

কৃষকদের ভর্তুকির টাকা আত্মসাৎ, কর্মস্থলে অনুপস্থিতসহ বিভিন্ন অভিযোগে উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা আব্বাস আলীর বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু করেছে রংপুর কৃষি সম্প্রসারণ বিভাগ। মঙ্গলবার দুপুরে রংপুর কৃষি সম্প্রসারণ বিভাগের তদন্ত দলের প্রধান ও জেলা প্রশিক্ষক আফতাব হোসেন ও অতিরিক্ত কৃষি কর্মকর্তা তানিয়া আখতার রংপুর সদর উপজেলার সদ্যপুস্কনী ইউপির মাধবপুর ব্লকে গিয়ে  অভিযোগকারী কৃষকদের জাবানবন্দি গ্রহণ করেন।

অভিযোগকারী কৃষক নরেশ চন্দ্র, জীবন ঘোষ, মোসলে, সাহাদাত, সেকেন্দার আলী, রফিকুল, তাহেরসহ অন্যান্যরা জানান, সদর উপজেলার সদ্যপুস্কনী ইউপির মাধবপুর ব্লকের কৃষি কর্মকর্তা আব্বাস আলী কাগজে কলমে গত তিন বছর ধরে সেখানে কর্মরত থাকলেও কৃষকরা কখনো তার সাক্ষাৎ পান নাই। সরকার কৃষকদের ভুতর্কি প্রদানসহ যেসব সুযোগ-সুবিধা প্রদান করে তা কখনোই তাদের ভাগ্যে জোটে নাই। ফসল উৎপাদন করতে গিয়ে কৃষিবিষয়ক পরামর্শ তারা বিভিন্ন কোম্পানির বিক্রয় প্রতিনিধির থেকে জমিতে কীটনাশক ও সার প্রয়োগের নিয়ম জেনেছেন। তাই তারা বাধ্য হয়ে এখানকার প্রায় শতাধিক কৃষক কৃষি সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন দপ্তরে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।

রংপুর কৃষি সম্প্রসারণ বিভাগের তদন্ত দলের প্রধান ও জেলা প্রশিক্ষক আফতাব হোসেন জানান, রংপুর সদর উপজেলার সদ্যপুস্কনী ইউপির সাত, আট ও নয় নম্বর ওয়ার্ড নিয়ে মাধবপুর ব্লক। এখানকার কৃষকদের লিখিত অভিযোগের প্রেক্ষিতে কৃষি সম্প্রসারণ বিভাগের কর্মকর্তাদের নির্দেশে তদন্তে এসেছি। আমরা অভিযোগকারী কৃষদের জাবনবন্দি গ্রহণ করেছি। আমরা তাদের কথাগুলো বিশ্লেষণ করে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিব। তদন্তে অভিযোগ প্রমাণিত হলে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করবে কর্তৃপক্ষ।

উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা আব্বাস আলী তার বিরুদ্ধে আনা সব অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, কৃষকরা আমার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করছেন। যারা অভিযোগ করেছেন তারা আমাদের খাতায় কৃষক নন। তাদের বাপ-চাচা কৃষক। আমার ব্লকে এক হাজার ৮শ’ কৃষক আছেন। ভর্তুকি দেয় সরকার এটাতে আমার কোনো হাত নেয়। ইউপির চেয়ারম্যানরা যাদের নামে সুপারিশ করে তারাই ভর্তুকির টাকা পান বলেও জানান তিনি।

Place your advertisement here
Place your advertisement here
রংপুর বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর