• মঙ্গলবার   ১৯ জানুয়ারি ২০২১ ||

  • মাঘ ৬ ১৪২৭

  • || ০৫ জমাদিউস সানি ১৪৪২

Find us in facebook
সর্বশেষ:
করোনা ভ্যাকসিনের সুরক্ষা অ্যাপ প্রস্তুত- পলক ভারতের ‘উপহার’ ২০ লাখ টিকা আসছে বুধবার শেখ হাসিনার নেতৃত্বেই দেশ হবে উন্নত-সমৃদ্ধ- রাষ্ট্রপতি কুড়িগ্রামে মুক্তির দুই দিন আগে কারাবন্দির মৃত্যু সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদ নির্মূলে আরো ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান রাষ্ট্রপতির

মিঠাপুকুরে গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ 

– দৈনিক রংপুর নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ১৯ ডিসেম্বর ২০২০  

Find us in facebook

Find us in facebook

রংপুরে মিঠাপুকুরে এক গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ ঘটনার পর থেকে ওই গৃহবধূর শ্বশুরবাড়ির সকলেই পলাতক রয়েছেন।

শনিবার দুপুরে জেলার মিঠাপুকুর থানা পুলিশ উপজেলার পায়রাবন্দ ইউনিয়নের বৈরাগীগঞ্জ কালীগঞ্জ গ্রাম ওই গৃহবধূর ঝুলে থাকা মরদেহ উদ্ধার করে। সুরতহালের পর লাশ ময়নাতদন্তের জন্য রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

ওই গৃহবধূর নাম নাসরিন বেগম (৩০)। তিনি রংপুর নগরীর দমদমা লক্ষণপাড়া গ্রামের ইলিয়াস মুনশির মেয়ে। স্বামীর নাম রাজু মিয়া। রাজু মিঠাপুকুরের কালীগঞ্জ গ্রামের তালেব মিয়ার ছেলে।

নিহতের পরিবার ও স্থানীয়রা জানান, পাঁচ বছর আগে তাদের বিয়ে হয়। বিয়েতে দুই লাখ টাকাসহ বিভিন্ন উপঢৌকন দেয় নাসরিনের পরিবার। রাজু মাদকাসক্ত ও জুয়ায় আসক্ত ছিল। সম্প্রতি তিনি এক নারীর সঙ্গে পরকীয়ায় জড়িয়ে পড়েন। স্ত্রী বাঁধা দিলে তার ওপর নির্যাতন চলে। তিনি ওই নারীকে বিয়েও করেন। এরপর থেকে নির্যাতনের মাত্রা আরো বাড়ে।

শুক্রবার (১৮ ডিসেম্বর) রাতে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে ঝগড়া হয়। পরে শনিবার সকালে ওই গৃহবধূর ঝুলন্ত লাশ দেখতে পেয়ে পুলিশকে খবর দেওয়া হয়। তারা দাবি করে বলেন, রাজু তার স্ত্রী নাসরিনকে পিটিয়ে হত্যা করে ঘরের মধ্যে ঝুলিয়ে রেখে পালিয়ে যায়।

নিহতের বাবা ইলিয়াছ মুনশি বলেন, শনিবার সকালে মেয়ের মৃত্যুর খবর জানতে পেরে জামাইয়ের বাড়িতে এসেছি। এখানে তো কেউ নেই। সবাই পালিয়েছে।

মিঠাপুকুর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. আমিরুজ্জামান জানান, ঘটনা তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।

Place your advertisement here
Place your advertisement here