ব্রেকিং:
রংপুর মেডিকেল কলেজের (রমেক) পিসিআর ল্যাবে গত ২৪ ঘণ্টায় ১৮৮টি নমুনা পরীক্ষা করে ৩৫ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। সোমবার রংপুর মেডিকেল কলেজের (রমেক) অধ্যক্ষ অধ্যাপক ডা. একেএম নুরুন্নবী লাইজু এসব তথ্য নিশ্চিত করে বলেন- রমেকের অণুজীব বিজ্ঞান বিভাগের পিসিআর ল্যাবে ১৮৮ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়। এতে রংপুরে ২৫ জন, গাইবান্ধায় ৬, কুড়িগ্রামে ২ এবং লালমনিরহাটে ২ জনের নমুনায় করোনা শনাক্ত হয়। দেশে করোনাভাইরাসে গত ২৪ ঘণ্টায় আরো ৩৯ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে মোট মারা গেলেন ২ হাজার ৩৯১ জন। এছাড়া নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ৩ হাজার ৯৯ জন। এ নিয়ে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ১ লাখ ৮৬ হাজার ৮৯৪ জন।
  • সোমবার   ১৩ জুলাই ২০২০ ||

  • আষাঢ় ২৯ ১৪২৭

  • || ২২ জ্বিলকদ ১৪৪১

Find us in facebook
সর্বশেষ:
রংপুরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় করোনা আক্রান্ত মুক্তিযোদ্ধার মৃত্যু অনুমতি দেয়া পাঁচ বেসরকারি হাসপাতাল ও ডায়াগনস্টিক সেন্টারের কোভিড-১৯ পরীক্ষা স্থগিত রাখার নির্দেশ দিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদফতর ২০২০ সালে নিবন্ধিত হজযাত্রীদের জন্য ৮ নির্দেশনা দিয়েছে ধর্ম মন্ত্রণালয় বন্যার সার্বিক পরিস্থিতি সার্বক্ষণিকভাবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা খোজ খবর নিচ্ছেন-পানিসম্পদ উপমন্ত্রী মানবদেহে কোভিড ভ্যাকসিনের সফল প্রয়োগের দাবি রাশিয়ার!
৭৪

ভারতীয় যন্ত্র আছড়ে পড়ল বাংলাদেশ ভূখণ্ডে

– দৈনিক রংপুর নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ২৫ নভেম্বর ২০১৯  

Find us in facebook

Find us in facebook

বাংলাদেশ ভূখণ্ডে আছড়ে পড়েছে ভারতের আবহাওয়া পরিমাপের একটি যন্ত্র। খবর পেয়ে যন্ত্রটি উদ্ধার করেছে জেলা প্রশাসন।

রোববার সন্ধ্যায় চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদার দেউলী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয়রা জানায়, বিশাল আকৃতির বেলুনটি ওই গ্রামের নূর মোহাম্মদের ছেলে আবুল কালামের গমক্ষেতে আছড়ে পড়ে। ওই বেলুনের সঙ্গে ছিল প্লাস্টিকের আদলের একটি সোলারবক্স, একটি ব্যাটারি ও তিন মাথাওয়ালা ক্যামেরাযুক্ত একটি সার্কিট। যন্ত্রটির প্যাকেটের উপরের অংশ ভারতীয় পতাকা দিয়ে ঢাকা ছিল।

দামুড়হুদা মডেল থানার ওসি সুকুমার বিশ্বাস জানান, এটা আবহাওয়া ও বৃষ্টির সম্ভাবনা পরিমাপের যন্ত্র। যন্ত্রটির বাক্সের গায়ে বাংলায় লেখা, বেলুন ফোলা অবস্থায় ধূমপান করবেন না, বাক্সটিকে জলে ডোবাবেন না, লাঠির আঘাত করবেন না, পোড়াবেন না, পুলিশ বা সংস্থার কর্তৃপক্ষ না আসা পর্যন্ত হাত দেবেন না, বাক্সটির ক্ষতি করা দণ্ডনীয় অপরাধ, বাক্সটি বিপজ্জনক নয়।

চুয়াডাঙ্গার এসপি জাহিদুল ইসলাম বলেন, বাক্সটির গায়ে থাকা নাম্বারে যোগাযোগ করে আমরা নিশ্চিত হয়েছি সেটি আবহাওয়া ও বৃষ্টি পরিমাপের যন্ত্র। ভারতের কৃষ্ণনগরের একটি বিশ্ববিদ্যালয়ের এক প্রফেসর এটির আবিষ্কারক। পরীক্ষামূলক উড্ডয়নের সময় অতিরিক্ত বাতাস থাকায় রাডার থেকে ছিটকে বাক্সটি বাংলাদেশের ভূখণ্ডে চলে আসে।

চুয়াডাঙ্গার ডিসি নজরুল ইসলাম সরকার জানান, বিষয়টি পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে জানানো হয়েছে। পরবর্তী নির্দেশনা পেলে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Place your advertisement here
Place your advertisement here
ইত্যাদি বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর