• মঙ্গলবার   ২৭ অক্টোবর ২০২০ ||

  • কার্তিক ১২ ১৪২৭

  • || ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

Find us in facebook
সর্বশেষ:
জাতিকে বিভ্রান্ত করতে পারে এমন কোনো সংবাদ পরিবেশন না করার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বের সংকটের কারণে ক্রমেই সংকুচিত হচ্ছে বিএনপির রাজনীতি আমি মারা গেলে যেন বাবা মায়ের পাশে সমাহিত হয়-জিএম কাদের কিশোরগঞ্জে সিঙ্গেরগাড়ী উচ্চ বিদ্যালয়ের একাডেমিক ভবন উদ্ধোধন দূর্গাপূজা উপলক্ষে রসিক কাউন্সিলরের বস্ত্র বিতরণ

বয়স ৩০ এর কোঠা পার হলে এই খাবারগুলো খেতেই হবে 

– দৈনিক রংপুর নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০  

Find us in facebook

Find us in facebook

ইদানিং সবাই স্বাস্থ্য সচেতন হয়েছেন। বিভিন্ন রোগ ব্যাধিতে আক্রান্ত হওয়ার পরই সচেতন হয়েছেন বেশিরভাগ মানুষ। তবে আগে থেকেই যদি আপনি খাবার দাবারের বেলায় একটু সচেতন হওয়া যায়। তবে অনেক শারীরিক সমস্যা থেকে দূরে থাকতে পারবেন।
এরইমধ্যে যদি বয়স ৩০ এর কোঠা পেরিয়ে যান। তাহলে সচেতন হওয়া আপনার জন্য আবশ্যক। এই সময় শরীরের অভ্যন্তরীণ নিয়মে কিছু বদল আসাটাই স্বাভাবিক। আর এই বদলের সঙ্গে মানিয়ে নিতে গেলে লাইফস্টাইল, বিশেষ করে রোজকার ডায়েটটাকেও একটু বদলে নিতে হবে আপনাকে। না হলে পরিপাকে সমস্যা, হজম না হওয়া লেগেই থাকবে।

শরীর সুস্থ রাখতে চিকিৎসকদের পরামর্শ সুপারফুড খাওয়ার। ঘাবড়ে গেলেন, যে সুপারফুড হয়ত দামি কোনো খাবার  হবে। না এটি আপনার প্রতিদিনের খাবার থেকেই পাবেন। তবে প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট, ফাইটোকেমিক্যালস, মিনারালস এবং ভিটামিন সমৃদ্ধ খাবার, যেগুলো শরীরকে চাঙ্গা রাখে তাকেই বলা হয় সুপারফুড।

জেনে নিন কোন খাবারগুলো খাদ্য তালিকায় রাখবেন- 

সবুজ শাকসবজি
সবুজ শাকসবজি শরীরের পিএইচ মাত্রা ঠিক রাখতে সাহায্য করে। এক্ষেত্রে পালং, পার্সলে খেতে পারেন। যা আপনার শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে সহায়তা করবে।

উদ্ভিজ প্রোটিন
বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে কিন্তু আমাদের ডায়েটে প্রোটিনের পরিমাণ বাড়ানো  খুবই প্রয়োজন। তবে সেটা যেন প্রাণিজ প্রোটিন না হয়। মানে মাছ-মাংসের দিকে বেশি না যাওয়াই ভালো। এগুলো আপনার হজমে সমস্যা করতে পারে। ফ্যাট বাড়িয়ে ওজন বাড়িয়ে দেয়। এজন্য উদ্ভিজ প্রোটিন হজম করা যেমন সহজ, তেমনই এর পার্শ্ব প্রতিক্রিয়াও থাকে না। নানারকম শস্যদানা, ডাল, সয়াবিন থেকে প্রচুর প্রোটিন পাওয়া যায়।

উদ্ভিজ ভিটামিন
ভিটামিন সি এবং ডি আমাদের ইমিউনিটি অর্থাৎ রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে থাকে। এতে প্রচুর ফাইটোকেমিক্যালও পাওয়া যায়। 

বীজ এবং শস্যদানা
ডায়েটিশিয়ানরা বলছেন বিভিন্ন শস্যদানা এবং বীজের খাদ্যগুণ না কি কয়েকশো বছর ধরে একই রয়েছে। তাই রোজকার খাবারের মেনুতে এই সব রাখলে হার্ট ভালো থাকে। এই বীজগুলো প্রচুর ফাইবার, পটাশিয়াম, ক্যালসিয়াম, আয়রন, ফ্যাটি-আসিড সমৃদ্ধ। এজন্য তিসি, সিয়াসিড, সূর্যমুখির বীজ, কুমড়ার বীজ, নিয়মিত খেতে পারেন। 

Place your advertisement here
Place your advertisement here