• মঙ্গলবার   ২৭ অক্টোবর ২০২০ ||

  • কার্তিক ১২ ১৪২৭

  • || ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

Find us in facebook
সর্বশেষ:
জাতিকে বিভ্রান্ত করতে পারে এমন কোনো সংবাদ পরিবেশন না করার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বের সংকটের কারণে ক্রমেই সংকুচিত হচ্ছে বিএনপির রাজনীতি আমি মারা গেলে যেন বাবা মায়ের পাশে সমাহিত হয়-জিএম কাদের কিশোরগঞ্জে সিঙ্গেরগাড়ী উচ্চ বিদ্যালয়ের একাডেমিক ভবন উদ্ধোধন দূর্গাপূজা উপলক্ষে রসিক কাউন্সিলরের বস্ত্র বিতরণ

বিএনপি থেকে গণ পদত্যাগের আল্টিমেটাম দিয়েছে পীরগাছার নেতা-কর্মীরা 

– দৈনিক রংপুর নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০  

Find us in facebook

Find us in facebook

রংপুরের পীরগাছা উপজেলা বিএনপির সভাপতি আফছার আলী ও সাধারণ সম্পাদক আমিনুল ইসলাম রাঙ্গা’র বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহার করার দাবি জানিয়েছে তৃণমূলের নেতা-কর্মীরা। দাবি আদায়ে সাতদিনের আল্টিমেটাম দেয়া হয়েছে। অন্যথায় দল থেকে গণ পদত্যাগের সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছে পীরগাছা উপজেলা বিএনপির নেতা-কর্মীরা।

রোববার (২৭ সেপ্টেম্বর) বিকেলে পীরগাছা উপজেলা বিএনপি কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন থেকে আল্টিমেটাম ঘোষণা করে বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহারের দাবি জানান ভারপ্রাপ্ত সভাপতি খন্দকার মতিয়ার রহমান।

এ সময় সংবাদ সম্মেলন থেকে সাতদিনের আল্টিমেটাম দিয়ে বহিষ্কারাদেশ প্রত্যাহার না করা হলে পীরগাছা উপজেলা ও ইউনিয়ন বিএনপির সকল সদস্য, নেতা-কর্মী দল থেকে গণ-পদত্যাগ করার পাশাপাশি দুর্বার আন্দোলনে হুশিয়ারি দেয়া হয়।

সংবাদ সম্মেলনে ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক জাকির আহমেদ, পীরগাছা সদর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ও সভাপতি মোস্তাফিজার রহমান রেজা, সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম, উপজেলা বিএনপির প্রচার সম্পাদক আব্দুল মান্নান সর্দার, উপজেলা ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম, জেলা যুবদলের সদস্য আব্দুল আলীমসহ উপজেলার নয়টি ইউনিয়নের সভাপতি ও সম্পাদকসহ অঙ্গ সহযোগি সংগঠনের নেতা-কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

তিনি বলেন, সভাপতি আফছার আলী দুইবারের ইউপি সদস্য ও তিনবারের ইউপি চেয়ারম্যান। তিনি পীরগাছা উপজেলার সাবেক চেয়ারম্যান এবং জনপ্রিয় নেতা। পাশাপাশি উপজেলা সাধারণ সম্পাদক আমিনুল ইসলাম রাঙ্গা ছাত্র জীবন থেকেই বিএনপির রাজনীতির সাথে জড়িত। ব্যবসায়ী নেতা হিসেবেও সবার কাছে গ্রহণযোগ্য। তৃণমূল থেকে উঠে আসা রাঙ্গা ও সভাপতি আফছারের নেতৃত্বে বিগত উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান, ভাইস চেয়ারম্যান ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে বিজয় লাভ করা সম্ভব হয়েছে। তাদের কারণে রংপুর জেলার মধ্যে পীরগাছা উপজেলা বিএনপি একটি শক্তিশালী সংগঠনে পরিণত হয়েছে। যার কারণে ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারির জাতীয় সংসদ নির্বাচনে পীরগাছায় ৮৪টি কেন্দ্রের মধ্যে একটি কেন্দ্রেও নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে দেয়া হয়নি।

খন্দকার মতিয়ার বলেন, স্বৈরাচার বিরোধী আন্দোলন থেকে বর্তমান সরকারের বিরুদ্ধে জোরদার আন্দোলনে যাদের অবদান সাহসিকতার। তাদের মতো নেতাকে কারণ দর্শানোর কোনো নোটিশ না দিয়ে, অভিযোগের সত্যতা যাচাই-বাছাই না করে এবং আত্মপক্ষ সমর্পণের সুযোগ না দিয়ে মিথ্যা ও বানোয়াট তথ্যের ভিত্তিতে দলের সকল পদ-পদবী থেকে অব্যাহতি দেয়া ষড়যন্ত্রমূলক। যা পীরগাছা উপজেলা বিএনপিকে ধ্বংস করার চক্রান্ত বলে তৃণমূলের নেতা-কর্মীরা মনে করে।

লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, পীরগাছা উপজেলা বিএনপিকে যারা জীবনের চেয়ে বেশি ভালোবেসে সংগঠিত করেছে। দলের নির্দেশনা অনুযায়ী আন্দোলন সংগ্রাম করে তৃণমূলে বিএনপির অবস্থানকে শক্ত অবস্থানে ধরে রেখেছে। সেই নেতাদেরকে দল থেকে বহিষ্কার করার সিদ্ধান্ত অবৈধ ও ষড়যন্ত্রমূলক।

উল্লেখ্য, গত ২৬ সেপ্টেম্বর বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল-বিএনপি’র কেন্দ্রীয় কমিটির সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব (দপ্তরের দায়িত্বপ্রাপ্ত) রুহুল কবীর রিজভী স্বাক্ষরিত এক পত্রের মাধ্যমে পীরগাছা উপজেলা সভাপতি আফছার আলী ও সাধারণ সম্পাদক আমিনুল ইসলাম রাঙ্গাকে বিএনপির প্রাথমিক সদস্য পদসহ সকল পর্যায়ের পদ থেকে অব্যাহতি প্রদান করা হয়। কারণ হিসেবে তাদের বিরুদ্ধে দলীয় শৃঙ্খলা পরিপন্থী ও দল বিরোধী কর্মকাণ্ডে জড়িত থাকার অভিযোগ দেখানো হয়েছে।

Place your advertisement here
Place your advertisement here