ব্রেকিং:
করোনা পরিস্থিতিতে দেশের মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ের সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের চলমান ছুটি আগামী ৩০ জুন পর্যন্ত বৃদ্ধি করা হয়েছে
  • রোববার   ১৩ জুন ২০২১ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ২৯ ১৪২৮

  • || ০১ জ্বিলকদ ১৪৪২

Find us in facebook
সর্বশেষ:
সম্মিলিত প্রচেষ্টায় দেশ থেকে শিশুশ্রম নিরসন সম্ভব- প্রধানমন্ত্রী করোনা আপডেট: গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে আরও ৩৯ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ১৬৩৭ ৩০ জুন পর্যন্ত বাড়লো শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছুটি `উদোর পিণ্ডি বুধোর ঘাড়ে চাপানো বিএনপির পুরনো অভ্যাস` মিঠাপুকুরে করলাক্ষেতে ভাইরাসজনিত পাতা মোড়ানো রোগ দেখা দিয়েছে

গরমে ত্বক রাখুন সুস্থ

– দৈনিক রংপুর নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ২৪ মে ২০২১  

Find us in facebook

Find us in facebook

গ্রীষ্মের গরমে চামড়া বেশ ক্ষতিগ্রস্ত হয়। ভিটামিন-ডি ত্বকের জন্য উপকারী হলেও দীর্ঘসময় রোদে থাকলে ত্বকের ক্ষতি হয়। ক্ষতিকর অতি-বেগুনি রশ্মি ত্বকের উজ্জ্বলতা নষ্ট করে। তাছাড়া দীর্ঘদিনের অসতর্কতার কারণে ত্বকের স্থায়ী ক্ষতিও হতে পারে জানালেন সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজের চর্মরোগ বিভাগের অধ্যাপক এবং বিভাগীয় প্রধান ডা. রাশেদ মোহাম্মদ খান।

তিনি আরও জানান, এই মৌসুমে অতিরিক্ত গরম আর ধুলাবালির কারণে ঘামাচি, র‌্যাশ, চুলকানি, ব্রণ ইত্যাদি চর্মরোগ হওয়া খুবই সাধারণ ঘটনা। যেকোনো রোগের মতোই ত্বকের সমস্যা হলেও প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করা জরুরি।

এই চিকিৎসক বলেন, “রোদের তাপের কারণে ঘামাচি, র‌্যাশ ইত্যাদি হতে পারে। এমনকি ঘামে ভেজা জামা-কাপড় থেকেও হতে পারে ছত্রাকের সংক্রমণ। এক্ষেত্রে ঘামে ভেজার কাপড় বেশিক্ষণ পরে না থাকাই ভালো। আর বাইরে থেকে ঘরে ফিরে ঘামে ভেজা কাপড়গুলো যেখানে সেখানে ফেলে না রেখে বাইরে শুকাতে দিতে হবে।”

“রোদে ত্বক পুড়ে যাওয়া থেকে বাঁচতে সানস্ক্রিন ব্যবহার করা উচিত। তবে বেশিক্ষণ তা মেখে থাকা যাবে না। বাইরে থেকে এসেই হাত-মুখ ধুয়ে ফেলতে হবে। প্রয়োজনে নতুন করে সানস্ক্রিন মাখতে হবে।” বলেন ডা. রাশেদ মোহাম্মদ খান।

তৈলাক্ত ত্বকের ক্ষেত্রে ‘অয়েল ফ্রি’ সানস্ক্রিন ব্যবহার করা উচিত। চোখের নিচের অংশে মেডিকেইটেড সানস্ক্রিন ব্যবহার করতে পারেন। আর সানস্ক্রিন কেনার আগে এর সান প্রটেকশন ফ্যাক্টর ‘এসপিএফ ফিফটিন’ কিনা দেখে নেওয়ার পরামর্শ দেন এই চিকিৎসক।

রোদের তীব্রতা থেকে বাঁচতে সাদা কিংবা অন্যান্য হালকা রংয়ের জামা-কাপড় পরা ভালো বলে জানান ডা. রাশেদ মোহাম্মদ খান।

“হালকা রংয়ের কাপড় সূর্যের আলো প্রতিফলিত করে বেশি, তাই রোদের তাপটাও গায়ে লাগে তুলনামূলকভাবে কম।” বললেন তিনি।

পরামর্শ দিতে গিয়ে তিনি আরও জানান, গরমে সুস্থ থাকতে পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতার দিকে বেশি সতর্ক হতে হবে। শরীর ঠাণ্ডা রাখতে নিয়মিত গোসল করতে হবে। প্রয়োজনে একাধিকবারও গোসল করা যেতে পারে, তবে সতর্ক থাকতে হবে যেন সর্দি-কাশি বা ঠাণ্ডা লেগে না যায়। যতটা সম্ভব শীতলস্থানে থাকার চেষ্টা করতে হবে। ত্বকের আদ্রতা ধরে রাখতে প্রচুর পরিমাণে পানি, ফলের শরবত, লেবুর শরবত পান করুন। এছাড়াও বেশি করে ভিটামিন সি-যুক্ত ফল খেতে হবে।

যারা প্রতিদিন জুতা পরেন তাদের পায়ের আঙ্গুলের ফাঁকে জমে থাকা ঘামের কারণে ছত্রাক সংক্রমণের সম্ভাবনার কথা জানালেন ডা. রাশেদ মোহাম্মদ খান। গৃহিনীরাও এই সমস্যায় আক্রান্ত হতে পারেন।

এ বিষয়ে তিনি বলেন, “এ সমস্যা দেখা দিলে আক্রান্ত স্থান যতটা সম্ভব পরিষ্কার এবং শুকনা রাখতে হবে। ডাক্তারের পরামর্শ অনুযায়ী ক্রিমজাতীয় ওষুধ ব্যবহার করতে হবে। তবে মলমজাতীয় ঔষধ এড়িয়ে চলুন।”

ত্বক পরিষ্কার রাখার জন্য ত্বকের ধরন অনুযায়ী গ্লিসারিনযুক্ত সাবান বা ফেইসওয়াশ ব্যবহার করার পরামর্শ দেন ডা. খান। এছাড়া শুষ্ক ত্বকের ক্ষেত্রে ক্রিম বা বেবি লোশন ব্যবহার করলে উপকার পাওয়া যাবে। তবে অবশ্যই ‘অয়েল ফ্রি’ লোশন বা ক্রিম ব্যবহার করতে হবে।

এই মৌসুমে ঘামাচি হলে ডা. খান ট্যালকম পাউডার কিংবা নিমপাতার রস ব্যবহার করতে বলেন।

তার কথায়, “তৈলাক্ত ত্বক হলে গরমে প্রচুর ময়লা আটকে থাকে ত্বকে। এক্ষেত্রে বার বার ঠাণ্ডা পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে নিতে হবে। এ সময় শসা, লেবুর রস ব্যবহার করা ত্বকের জন্য বেশ উপকারী।”

নিয়মিত ভালোভাবে ত্বক পরিষ্কার রাখার পাশাপাশি এই গরমে ভাজাপোড়া এবং তেলজাতীয় খাবার এড়িয়ে চলার পরামর্শ দেন ডা. খান।

তিনি বলেন, এ সময় প্রচুর শাকসবজি ও ফলমূল খেলে ত্বক এবং শরীর ভালো থাকবে। শরীরের পানির চাহিদা মেটাতে প্রচুর পরিমাণে পানি পান করা উচিত। প্রয়োজনে পানিতে স্যালাইন, গ্লুকোজ ইত্যাদি মিশিয়ে পান করলে উপকার পাওয়া যাবে।

Place your advertisement here
Place your advertisement here