ব্রেকিং:
রংপুর মেডিকেল কলেজের (রমেক) পিসিআর ল্যাবে গত ২৪ ঘণ্টায় ১৮৮টি নমুনা পরীক্ষা করে চার জেলায় নতুন আরও ৭২ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। বুধবার (১৫ জুলাই) সন্ধ্যায় এসব তথ্য নিশ্চিত করেন রংপুর মেডিকেল কলেজের (রমেক) অধ্যক্ষ অধ্যাপক ডা. একেএম নুরুন্নবী লাইজু। তিনি জানান, রমেকের অণুজীব বিজ্ঞান বিভাগের পিসিআর ল্যাবে ১৮৮ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়। এতে রংপুরে ৩৪ জন, কুড়িগ্রামে ১৬ জন, গাইবান্ধায় ১২ জন এবং লালমনিরহাটে ১০ জনের নমুনায় করোনা শনাক্ত হয়। দেশে গত ২৪ ঘন্টায় করোনা শনাক্ত ৩৫৩৩, মৃত্যু ৩৩ দেশেই প্রথম হেলিপোর্ট তৈরির কাজ চলছে: বিমান সচিব রংপুরের পীরগাছায় বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের মাঝে ত্রাণ বিতরণ ঠাকুরগাঁওয়ের পীরগঞ্জে ব্যবসায়ী হত্যায় তিন আসামি গ্রেফতার রিজেন্ট গ্রুপের চেয়ারম্যান সাহেদ সাতক্ষীরা থেকে গ্রেফতার।
  • বৃহস্পতিবার   ১৬ জুলাই ২০২০ ||

  • আষাঢ় ৩১ ১৪২৭

  • || ২৫ জ্বিলকদ ১৪৪১

Find us in facebook
সর্বশেষ:
স্থানীয় সরকারকে ঢেলে সাজানোর চিন্তা করতে হবে: শেখ হাসিনা টেকসই বেড়িবাঁধ নির্মাণে ৮ হাজার কোটি টাকার ৪ প্রকল্প গ্রহণ ‘সেতু নির্মাণ প্রকল্প নেওয়ার আগে ভালোভাবে খতিয়ে দেখতে হবে কুড়িগ্রামে দ্বিতীয় দফা বন্যায় পানিবন্দি ২০ হাজার মানুষ আ’লীগ ঐতিহ্যগত ভাবেই মানুষকে সহায়তা করে আসছে- কাদের
১৫৭

করোনা: দুর্নীতি ঠেকাতে সরকারি কেনাকাটায় আরও কড়াকড়ি

– দৈনিক রংপুর নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ২৯ জুন ২০২০  

Find us in facebook

Find us in facebook

করোনা ভাইরাসের (কোভিড-১৯) জন্য সব ধরনের সরকারি কেনাকাটায় কড়াকড়ি আরোপ করেছে অর্থ মন্ত্রণালয়। ঠিকাদারের বিস্তারিত পরিচয়সহ ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের সুবিধাভোগীদের তথ্য দেওয়ার শর্ত আরোপ করে অর্থ বিভাগ সম্প্রতি স্বাস্থ্য সেবা বিভাগকে নির্দেশনা দিয়েছে।  


করোনা সংক্রমণের পর মাস্কসহ অন্যান্য সামগ্রী কেনাকাটায় দুর্নীতির পর অর্থ বিভাগ চার দফা শর্ত দিয়ে সরকারি কেনাকাটা করতে স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের সচিবকে চিঠি পাঠায়।


এতে বলা হয়, কোভিড-১৯ মহামারী সংক্রান্ত সকল সরকারি ক্রয় কার্যক্রম সম্পাদনের লক্ষ্যে অর্থ বিভাগ থেকে নির্দেশনা জারি করা হয়েছে। এই নির্দেশনা যথাযথভাবে অনুসরণের জন্য নির্দেশ দেওয়া হয়।


‘পাবলিক প্রকিউরমেন্ট অ্যাক্ট-২০০৬ এবং পাবলিক প্রকিউরমেন্ট রুলস-২০০৮ যথাযথভাবে অনুসরণ করতে হবে।’

টেন্ডার আহ্বান, দরপত্র মূল্যায়ন ও কার্যাদেশ প্রদানের ক্ষেত্রে শতভাগ স্বচ্ছতা বজায় রাখতে হবে বলে নির্দেশনায় বলা হয়েছে।

চিঠিতে বলা হয়, যে ঠিকাদারকে কার্যাদেশ প্রদান করা হবে তার বিস্তারিত পরিচয় এবং ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের মালিকানা সুবিধাভোগীদের বিস্তারিত তথ্য সংগ্রহ ও সংরক্ষণ করতে হবে, যা মহাহিসাব নিরীক্ষক ও নিয়ন্ত্রকের অডিটের আওতাভূক্ত হবে।

‘অনুমোদিত কার্যাদেশের আওতায় ক্রয়কৃত দ্রব্যসামগ্রী গ্রহণ সংক্রান্ত ফিজিক্যাল ভেরিফিকেশন এবং ইনভেন্টরি যথানিয়মে প্রামাণিক দলিলসহ সংরক্ষণ করতে হবে।’

অর্থ বিভাগের চিঠিতে আরও বলা হয়, বর্ণিত কোনো একটি নির্দেশনা শিথিল করার প্রয়োজন হলে অর্থনৈতিক বিষয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির পূর্বানোমদন গ্রহণ করতে হবে।

অর্থ বিভাগ সম্প্রতি স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের সচিবকে এ চিঠি দিয়ে সব দপ্তর এবং অধিদপ্তরসহ অধীন সব প্রতিষ্ঠানে জরুরি ভিত্তিতে পাঠানোর নির্দেশনা দেয়া হয়। 

পরে স্বাস্থ্য সেবা বিভাগ হতে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর, স্বাস্থ্য অর্থনীতি ইউনিট, ঔষধ প্রশাসন অধিদপ্তর এবং নার্সিং ও মিডওয়াইফারি অধিদপ্তরের মহাপরিচালক, স্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের প্রধান প্রকৌশলী, সব মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক, সব মেডিক্যাল কলেজের অধ্যক্ষ, সব সিভিল সার্জনকে পাঠানো হয়েছে।

এছাড়াও, ন্যাশনাল ইলেকট্রো-মেডিক্যাল ইকুইপমেন্ট মেইনটেন্যান্স ওয়ার্কশপ (নিমিউ এন্ড টিসি) চিফ টেকনিক্যাল ম্যানেজার এবং ট্রান্সপোর্ট এন্ড ইকুইপমেন্ট মেইনটেনেন্স অর্গানাইজেশন (টেমো) ওয়ার্কশপ ম্যানেজারকে নির্দেশনা পাঠানো হয়।

Place your advertisement here
Place your advertisement here
জাতীয় বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর