ব্রেকিং:
দিনাজপুরে গত ২৪ ঘণ্টায় ৪ জন ব্যক্তি করোনা ভাইরাসে (কোভিড-১৯) আক্রান্ত হয়েছেন। এ নিয়ে জেলায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়ালো ৩৩৩৯ জনে। বৃহস্পতিবার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন দিনাজপুরের সিভিল সার্জন ডাঃ মোঃ আব্দুল কুদ্দুছ।
  • বৃহস্পতিবার   ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০ ||

  • আশ্বিন ৯ ১৪২৭

  • || ০৬ সফর ১৪৪২

Find us in facebook
সর্বশেষ:
আমরা শক্তিশালী বৈশ্বিক অংশীদারিত্বের অপেক্ষায়- প্রধানমন্ত্রী সব মাধ্যমিক স্কুলে হবে ডিজিটাল একাডেমি- প্রধানমন্ত্রী করোনাকালে রপ্তানির সম্ভাবনা বাড়ছে ইউরোপে ন্যাশনাল সার্ভিস কর্মসূচিতে প্রশিক্ষণ নিয়েছে ২২ লাখের বেশি মানুষ আবাসন শিল্পে সম্ভাবনার দুয়ার খুলে দিয়েছে পদ্মা সেতু
৩৭

করোনাকালে ছুটির দিনে ঘরেই করুন ‘রিল্যাক্সিং স্পা’ 

– দৈনিক রংপুর নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ৮ সেপ্টেম্বর ২০২০  

Find us in facebook

Find us in facebook

ছুটির দিনে নারীরা রিল্যাক্সেশনের জন্য অধিকাংশ ক্ষেত্রেই ম্যাসাজ কিংবা স্পা বেছে নেন। ছুটির দিনে হয়তো শান্তির খোঁজে ছুটতেন স্পায়ে। তবে সেই সুযোগ শিকেয় তুলেছে করোনাভাইরাস!
স্বাস্থ্যবিধির শঙ্কায় স্পায়ে এখন নানারকম ভয়। তবে চিন্তার কিছু নেই। নিজেই নিন উদ্যোগ! ঘরেই স্পা-এর রিল্যাক্সেশন নিন।

যেভাবে ঘরেই পাবেন স্পা-এর আরাম:

১. কাজ সেরে নিজের জন্য ঘণ্টা দু’য়েক সময় বের করুন। সবাইকে বলে দিন এ সময় যেন কেউ ডাকাডাকি না করেন৷ অন করে দিন গিজারের সুইচ ও হালকা মিউজিক৷ বাটিতে কিছুটা গোলাপ জলে তুলোর প্যাড ডুবিয়ে ফ্রিজে ঠান্ডা হতে দিন৷

২. আধ বালতি হালকা গরম পানিতে এক চামচ বাথ সল্ট বা না থাকলে এক চামচ নুন দিয়ে পা ডুবিয়ে বসুন মিনিট দশেক৷ সারাদিন দাঁড়িয়ে, বসে, ঝুঁকে হাজারো কাজ করে পায়ে যে ব্যথা হয়েছে তাতে একটু হলেও প্রলেপ পড়বে৷
৩. ইচ্ছে হলে সাবান ও ব্রাশ দিয়ে ঘষে পা একটু পরিষ্কারও করে নিতে পারেন৷ ব্যথার জায়গাগুলো আলতো করে ধরে ম্যাসাজ করতে পারেন৷

৪. বাথটব থাকলে তো কথাই নেই, উষ্ণ জলে ফোম বাথ নিতে পারবেন৷ না থাকলে উষ্ণ ধারাস্নান করুন৷ শরীরের সব পেশি-সন্ধি রিল্যাক্সড হবে৷ বসে কাজ করার জন্য ঘাড় ও কোমরে ব্যথা হলে সেসব জায়গা দিয়ে গরম পানি বয়ে যেতে দিন একটু বেশি সময়৷ ব্যথা অনেক কমবে৷

৫. লুফা ও সুগন্ধি সাবানে ঘষে ঘষে গা পরিষ্কার করতে হবে৷ মরা কোষ উঠে যাবে৷ ত্বক ঝকঝকে হয়ে উঠবে৷ সুগন্ধে ভাল হবে মন৷ পানিতে সুগন্ধী এসেনশিয়াল অয়েল মিশিয়ে নেন৷ না থাকলে দু-ফোঁটা কোলনও মিশিয়ে নিতে পারেন৷ বেশি তরতাজা লাগবে৷

৬. পরিষ্কার নরম তোয়ালেতে গা হালকা করে মুছে ভাল করে ঘষে ঘষে ক্রিম বা ময়েশ্চারাইজার লাগান। ম্যাসাজের আরাম যেমন হবে, ত্বকও হবে নরম৷
৭. ঢিলেঢালা সুতির পোশাক পরে শুয়ে পড়ুন৷ চোখে-মুখে চাপা দিন ঠান্ডা গোলাপজলে ভেজানো তুলো৷ গরম হয়ে গেলে আবার ভিজিয়ে নিন৷ ৫-১০ মিনিট শুয়ে থাকুন৷

৮. ইচ্ছে হলে ফ্রিজে রাখা ঠান্ডা শশার রস মুখে লাগিয়ে রাখুন খানিকক্ষণ৷ শুকিয়ে গেলে ধুয়ে নিন ঠান্ডা পানির ঝাপটায়৷ ত্বক শুকনো লাগলে একটু ময়েশ্চারাইজার লাগিয়ে নিতে পারেন৷ এরপর পরিপাটি দিবানিদ্রা নয়তো গরম চা বা ঠান্ডা ফলের রসে চুমুক দিতে দিতে বই পড়া বা গান শোনা৷

ব্যাস। আর চিন্তা কী, বাড়িতেই নিজের জন্য সময় খুঁজে স্পা করতে পারলে করোনা আবহে অনেকটাই হালকা মেজাজে থাকা যাবে।

তথ্যসূত্র: এনডিটিভি

Place your advertisement here
Place your advertisement here
লাইফস্টাইল বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর