ব্রেকিং:
দিনাজপুরে গত ২৪ ঘণ্টায় ২ জন ব্যক্তি করোনা ভাইরাসে (কোভিড-১৯) আক্রান্ত হয়েছেন। এ নিয়ে জেলায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়ালো ৪ হাজার ৬৬১ জনে। মঙ্গলবার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন দিনাজপুরের সিভিল সার্জন ডাঃ মোঃ আব্দুল কুদ্দুছ।
  • বুধবার   ২৭ জানুয়ারি ২০২১ ||

  • মাঘ ১৩ ১৪২৭

  • || ১৩ জমাদিউস সানি ১৪৪২

Find us in facebook
সর্বশেষ:
২৭ জানুয়ারি করোনা ভ্যাকসিনেশনের উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী রংপুরে নির্মিত হচ্ছে আল্লাহর ৯৯ নামের স্তম্ভ সব জেলায় ৪-৫ দিনের মধ্যে ভ্যাকসিন পৌঁছে যাবে- পাপন দিনাজপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় চাচা ভাতিজাসহ নিহত ৩ কৃষিকে আকর্ষণীয় পেশায় পরিণত করছে `রাইস ট্রান্সপ্লান্টার`

এবার ফখরুলের চেয়ারে মওদুদ-মোশাররফের চোখ 

– দৈনিক রংপুর নিউজ ডেস্ক –

প্রকাশিত: ১২ জানুয়ারি ২০২১  

Find us in facebook

Find us in facebook

জাতীয় নির্বাচনে পরাজয়ের দুই বছর পার হলেও বিএনপির মহসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের সঙ্গে স্থায়ী কমিটির সদস্য মওদুদ আহমেদ ও খন্দকার মোশাররফ হোসেনদের সম্পর্কের উন্নতি ঘটেনি।
মূলত নির্বাচনের আগে ঐক্যফ্রন্টের প্রতি অতিভক্তি এবং নির্বাচনের পর থেকে কেন কামাল হোসেন নিশ্চুপ, মওদুদ-মোশাররফপন্থী নেতাদের এমন প্রশ্নের জবাব দিতে দিতে মির্জা ফখরুল বিরক্ত বলে জানা যায়।

বিএনপির বিভিন্ন দায়িত্বশীল সূত্র জানিয়েছে, কারাগার থেকে খালেদা জিয়াকে বের করাসহ বিগত এক বছরে মির্জা ফখরুলের নেতৃত্বে বিএনপি কোনো কার্যকরী সিদ্ধান্ত গ্রহণ করতে পারেনি। এমন ব্যর্থতা কুড়ে কুড়ে খাচ্ছে মহাসচিব মির্জা ফখরুলকে। তিনি নিজেও জানেন যে, তার চেয়ারের দিকে শকুনের চোখ পড়েছে। ফলে বিএনপির ভেতরে অবস্থান করা শত্রুদের কাছে ভিড়তে দিতে চাচ্ছে না তিনি।

জানা গেছে, মওদুদ-মোশাররফরা মির্জা ফখরুলকে মহাসচিব পদ থেকে সরিয়ে দিতে অনেক দূর অগ্রসর হয়েছেন। এরই মধ্যে মহাসচিবকে বাদ দিয়ে এক দফা আন্দোলনের ডাক দিয়েছেন তারা।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে মির্জা ফখরুল জানান, এক দফা আন্দোলনের বিষয়ে তিনি কিছুই জানেন না। তবে তার নেতৃত্বে আরো বড় আন্দোলনের ডাক আসতে পারে।

বিএনপির এমন রাজনীতি নিতান্তই হতাশাজনক আখ্যা দিয়ে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক দলের স্থায়ী কমিটির অপর সদস্য বলেন, মওদুদ আহমেদ ও খন্দকার মোশাররফের দেয়া আন্দোলনের ডাক ও তার বিপরীতে মির্জা ফখরুলের আন্দোলনকে মূলত বিএনপির বিরুদ্ধে বিএনপির আন্দোলন বলে অভিহিত করা যায়। আশা করছি, বিএনপি নেতারা দলের জন্য নিজের স্বার্থকে বড় করে না দেখে সামনে এগিয়ে যাবার চেষ্টা করবেন। নতুবা বিএনপি নামক দলটি আর বেশিদিন টিকতে পারবে না।

Place your advertisement here
Place your advertisement here